Printed on Fri Sep 17 2021 1:35:52 AM

অভাবের সংসারে ছুলেমার সংগ্রামকে মনে রাখেনি কেউ, অভিমানে আত্মহত্যা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি
সারাদেশ
অভাবের
অভাবের
ষাটোর্ধ্ব ছুলেমা খাতুন অভাবের সংসারে সবার মুখে আহার যোগাতে ভাতের হোটেল দিয়েছিলেন। সারাদিন বিক্রি করে যা আয় হতো তা দিয়েই কোনোরকম সংসার চলত। তবুও পরিবারের কোনো সদস্যের কাছ থেকে সমান্য ভালোবাসা পাননি। দিনের পর দিন অবহেলা সহ্য করতে না পেরে নিজের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এটি ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার ১ নম্বর তারাকান্দা ইউনিয়নের বকশীমূল গ্রামের ঘটনা। তিনি একই গ্রামের মইদুল ইসলাম মজু মিয়ার স্ত্রী।

বিষয়টি নিশ্চিত করে তারাকান্দা থানার সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) সবুর বলেন, অভাব অনটনের সংসারে ছুলেমার বিয়ে হয়েছিল। বহু বছর ধরে স্থানীয় কোদালদর বাজারে ভাতের হোটেল ছিল তার। ভাত বিক্রি করে যে টাকা আয় হতো তার সব টাকা পরিবারে খরচ হতো। এভাবে সুখের সংসার হয়েছিল তার। বর্তমান এই পরিবারে নয়জন সদস্য। বয়সের ভারে অনেকদিন ধরে তিনি হোটেল ছেড়ে দিয়েছেন। পরে আর পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে আগের মতো মূল্য পাননি।

তিনি আরও বলেন, আগে অনেক পরিশ্রম করে সংসার চালিয়ে এখন পরিবারের অবহেলা পেয়ে রাগ সামলাতে পারেননি। পরিবারের প্রতি ক্ষোভে নিজেকে দুনিয়া থেকে আড়াল করতে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে ঘরের দরজা বন্ধ করে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেন।

পরিবারের লোকজন তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় দ্রুত উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসকের পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে দুপুর দুইটার দিকে তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে তারাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে দ্রুত পুলিশ পাঠানো হয়েছে। নিহতের কোনো স্বজন ওই পরিবারের সদস্যদের কারও নামে থানায় অভিযোগ দেননি। এজন্য থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

ভয়েস টিভি/এসএফ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/50904
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ