Printed on Tue Jun 28 2022 5:23:49 AM

ইউক্রেন পরিণত হচ্ছে অস্ত্রের গুদামে

নিজস্ব প্রতিবেদক
বিশ্ব
অস্ত্রের গুদামে
অস্ত্রের গুদামে
ইউক্রেনে পোল্যান্ড সীমান্ত দিয়ে ইউক্রেনে স্রোতের মতো ঢুকছে অস্ত্র ও গোলাবারুদ। ঝাঁকে ঝাঁকে এসব মারণাস্ত্র সরবরাহ করছে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা। প্রথা ভেঙে অর্থ ও সমরাস্ত্র দিচ্ছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। কিয়েভ বাহিনীকে সহায়তায় দফায় দফায় হাজারো ক্ষেপণাস্ত্র, ট্যাঙ্কবিধ্বংসী অস্ত্র, স্টিংগার, গোলাবারুদ, মেশিনগান, স্নাইপার রাইফল দেওয়া হচ্ছে। এতে দেশটি পরিণত হচ্ছে অস্ত্রের গুদামে।

২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দিয়ে আক্রমণ শুরু করে রাশিয়া। এমন প্রেক্ষাপটে সেনা দিয়ে সহায়তা না করলেও কিয়েভকে অর্থ, অস্ত্র দিয়ে পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দেয় যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা বিশ্ব। ইইউও প্রথা ভেঙে প্রথমবারের মতো জোটের বাইরে কোনো দেশে অস্ত্র দেওয়ার ঘোষণা দেয়। হামলার জন্য মস্কোর ওপর নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি কিয়েভকে সমরাস্ত্র, আর্থিক সহায়তা ও প্রশিক্ষণ দিতে শুরু করে পশ্চিমারা। হামলার শিকার ইউক্রেনকে সহায়তা দিতে পাশে দাঁড়াচ্ছে সারাবিশ্ব। জানাচ্ছে সংহতি। পাঠাচ্ছে মানবিক সহায়তাসহ প্রতিরোধ ব্যবস্থা। ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর হামলায় যখন শত শত নিরীহ মানুষ নিহত হচ্ছে, ধ্বংস হচ্ছে একের পর এক স্থাপনা, লাখ লাখ মানুষ উদ্বাস্তু হয়ে রাস্তায় রাস্তায় দিন কাটাচ্ছে; তখনই আর্তের ডাকে সাড়া দিয়ে বিভিন্ন দেশ অস্ত্র পাঠাতে শুরু করে।

যুক্তরাজ্যের সামরিক গোয়েন্দা সংস্থা জেনস ইনফরমেশন সার্ভিসের ওয়েবসাইটে বলা হয়, ইইউ সামরিক সহায়তার পাশাপাশি স্মল আর্মস অ্যান্ড লাইট ওয়েপনস (এসএএমডব্লিউ) দিচ্ছে ইউক্রেনকে। এর আওতায় ১০০টি ছোট ট্যাঙ্কবিধ্বংসী অস্ত্র (এনএলএডব্লিউ) দিচ্ছে লুক্সেমবার্গ। আগামী জানুয়ারির মধ্যে এই সংখ্যা দুই হাজারে উন্নীত করবে লন্ডন। এরই মধ্যে প্যানজারফস্ট ৩ ট্যাঙ্কবিধ্বংসী অস্ত্র দিতে শুরু করেছে জার্মানি, নেদারল্যান্ডস ও ইতালি। চারশ রাউন্ড গোলাবারুদসহ ৫০টি লঞ্চার দিয়েছে নেদারল্যান্ডস। জার্মানি এক হাজার সিস্টেমসহ ৫০০টি স্টিংগার দিয়েছে। হাজারটি প্যানজারফস্ট ৩ অস্ত্র দিচ্ছে রোম। সুইডেন পাঁচ হাজার এইটটিফোর এটিফোর ট্যাঙ্কবিধ্বংসী অস্ত্র, নরওয়ে দুই হাজার সিক্সটিসিক্স এমএম এম৭২ এলএডব্লিউ দিচ্ছে। ডেনমার্ক ও ফিন্ডল্যান্ড যথাক্রমে ২ হাজার ৭০০ ও দেড় হাজার ট্যাঙ্কবিধ্বংসী অস্ত্র দিচ্ছে। ফিনল্যান্ড, বেলজিয়াম, পর্তুগালও প্রায় একই ধরনের অস্ত্র সরবরাহ করছে তাদের। চেক প্রজাতন্ত্র, পোল্যান্ড ও স্লোভাকিয়া স্নায়ুযুদ্ধ যুগের অস্ত্র দিচ্ছে কিয়েভকে।

ডয়েচ ভেলের খবরে বলা হয়, ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর সহায়তায় আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা, ট্যাঙ্কবিধ্বংসী অস্ত্র, গোলাবারুদ ও অন্য যুদ্ধাস্ত্রের জন্য ৫০৩ মিলিয়ন ডলার অনুমোদন দিয়েছে ইইউ। এ ছাড়া আত্মরক্ষামূলক যুদ্ধাস্ত্র কেনার জন্য ৫০ মিলিয়ন ব্যয় করবে তারা। যুক্তরাষ্ট্র সমরাস্ত্র সরবরাহের পাশাপাশি অস্ত্র কেনার জন্য আরও সাড়ে তিনশ মিলিয়ন ডলারের সহায়তা দিচ্ছে। এগুলোর মধ্যে ট্যাঙ্কবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র, বিমানবিধ্বংসী স্টিংগারও রয়েছে। যুক্তরাজ্যও মারণাস্ত্রের পাশাপশি আত্মরক্ষামূলক ব্যবস্থা দিচ্ছে।

আলজাজিরার খবরে জানানো হয়, কানাডা ইউক্রেনকে বিভিন্ন ভারী অস্ত্র দেওয়ার পাশাপাশি অস্ত্র কেনার জন্য ৩৯৪ মিলিয়ন ডলার ঋণ সহায়তা দিচ্ছে। গ্রিস, স্পেন, রোমানিয়াসহ বহু দেশ ইউক্রেনে শত শত এমসেভেনটিটু ট্যাঙ্কবিধ্বংসী অস্ত্র, রকেট লঞ্চার, অ্যালস্ট রাইফেল, গোলাবারুদ, স্বয়ংক্রিয় রাইফেল, আত্মরক্ষার বর্মসহ মানবিক সহায়তা পাঠাচ্ছে।

এএফপি জানায়, গতকাল জার্মানির সরকারি সূত্র জানায়, আরও দুই হাজার সাতশ বিমানবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাচ্ছে তারা। যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম নিউজলাইনের এক খবরে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের প্রতিবেশী দেশ পোল্যান্ড কিয়েভকে যুদ্ধবিমান দিতে যাচ্ছে। নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইইউ ও ন্যাটো- উভয়ের মোট ২১ সদস্য দেশ পোল্যান্ড সীমান্ত দিয়ে অস্ত্র ও সহায়তা পাঠাচ্ছে। তবে এটি নিজ নিজ দেশের উদ্যোগে পরিচালিত হচ্ছে। এসব কার্যক্রম ন্যাটো বা ইইউর আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম নয়।

ভয়েসটিভি/এমএম
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/68386
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ