Printed on Mon Apr 12 2021 12:07:36 PM

দ্রুত আগুন নেভাতে যত বিস্ময়কর আবিষ্কার

অনলাইন ডেস্ক
বিশ্বপ্রযুক্তি
আবিষ্কার
আবিষ্কার
চালকবিহীন বিমান ড্রোন দূরে থেকেই নিয়ন্ত্রণ করা যায়। এ সুবিধার কথা মাথায় রেখে কয়েকটি কোম্পানি এরই মধ্যে ফায়ারফাইটিং ড্রোন বাজারে ছেড়েছে। যেখানে এখন পর্যন্ত ক্রেন দিয়ে সর্বোচ্চ ১০০ মিটারের কিছু বেশি উচ্চতায় পৌঁছানো যায় না, সেখানে অ্যারোনেস কোম্পানির ড্রোনগুলো ৩ শ থেকে ৪শ মিটার উচ্চতায় যেতে পারে এবং এগুলো মিনিটে ১০০ লিটার গতিতে পানি ছিটাতে পারে। শুধু তাই নয় ১৪৫ কিলোগ্রাম পর্যন্ত ওজনের কোনো ব্যক্তিকেও এটি তুলে আনতে পারে।

আবিষ্কার

যুক্তরাষ্ট্রের জর্জ মেসন ইউনিভার্সিটির দুই প্রকৌশল ছাত্র ট্র্যান ও রবার্টসন ২০১৭ সালে সাউন্ডওয়েভ ফায়ার এক্সটিনগুইশার যন্ত্রটি আবিষ্কার করেন। যদিও আগুন নেভানোর জন্য শব্দের ব্যবহারের আইডিয়া আগে আলোচিত বা পরীক্ষা করা হয়েছে, একে বাস্তব যন্ত্রে রূপান্তর করেছেন এই দু’জন। যন্ত্রটি দিয়ে ১০০ হার্টজ ফ্রিকোয়েন্সির শব্দ তৈরি করে আগুনে অক্সিজেনের সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয়। আর ম্যাজিকের মতো মুহূর্তেই আগুন নিভে যায়।

আবিষ্কার

বম্বার্ডিয়ার সিএল ৪১৫ এয়ারক্রাফট ফায়ারফাইটার হলো ভয়াভহ আগুন নেভানোর কাজে ব্যবহারযোগ্য বিমান। এর মধ্যে বম্বার্ডিয়ার সিএল ৪১৫ কানাডায় তৈরি একটি বোমারু বিমান, যেটি আগুনের মধ্যে বোমার মতো পানি ফেলে অল্প সময়েই নিভিয়ে ফেলে। মাত্র ১২ সেকেন্ডে এটি ৬ হাজার ১ শ ৪০ লিটার পানি ছড়াতে পারে এটি।

আবিষ্কার

স্কাইক্রেনও এয়ারক্রাফট ফায়ারফাইটার। এটি একটি মার্কিন হেলিকপ্টার। এটিও অনেক দ্রুতগতিতে আগুনে পানি ছিটাতে পারে। মাত্র ৪৫ সেকেন্ডে ১০ হাজার লিটার পানি ছিটাতে পারে এই স্কাইক্রেনটি। এটি একটি মিলিটারি মডেলের হেলিকপ্টার। বিখ্যাত অ্যানিমেশন মুভি ‘দি ইনক্রেডিবল হাল্ক’-এ এই মডেলটি ব্যবহার করা হয়েছে।

আবিষ্কার

ছোট ট্যাঙ্কের মতো এই ফায়ারফাইটিং রোবটগুলো অস্ট্রেলিয়ায় তৈরি। এগুলো আগুনের খুব কাছে পৌঁছে যেতে পারে। এগুলো ৮৫ মিটার বা একটি ফুটবল মাঠের দূরত্বে পানি ছেটাতে পারে। এগুলো সিঁড়ি বেয়ে উঠতে পারে, বাধা অতিক্রম করতে পারে। ছোট হলেও সামনে ভারী বস্তু ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দিতে পারে। দুইজনকে বহন করতে পারে এ রোবটটি।

আবিষ্কার

ফায়ার এক্সটিনগুইশার বল বেশ মজার একটি যন্ত্র। বলটিতে থাকে আগুন নেভানোর রাসায়নিক পদার্থ ও দাহ্য পদার্থ। তাই আগুনের সংস্পর্শে আসলে মাত্র তিন সেকেন্ডের মধ্যে এটি বিস্ফোরিত হয় এবং সেই পদার্থ ছড়িয়ে পড়ে আগুন নিভে যায়। এগুলো বাসাবাড়ি ও অফিস আদালতে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

আবিষ্কার

এলইউএফ ৬০ একটি চলনশীল ওয়্যারলেস রিমোট কন্ট্রোল যন্ত্র। এটি ১ হাজার ফুট পর্যন্ত সামনের আগুন নিভিয়ে পথ পরিষ্কার করে দেয়। এছাড়া মিনিটে ১ হাজার ৮ শ লিটার পানি ৩৬০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে ছুড়তে পারে। বিদ্যুৎ চলে গেলে এতে ম্যানুয়েল কন্ট্রোলও আছে। বিশেষ করে ওয়্যারহাউস বা আন্ডারগ্রাউন্ডে আগুন নেভানোর মতো ঝুঁকিপূর্ণ কাজ সহজেই এর মাধ্যমে করা যায়।

অফিস ঘর বা হোটেল রুমে যেসব সাধারণ স্প্রিঙ্কলারগুলো রয়েছে, তাতে আগুন নেভাতে নেভাতে অনেক ক্ষতি হয়ে যায়। হাই ফগ এর চেয়ে দশগুণ বেশি গতিতে কাজ করে। এর বিশেষত্ব হলো এটি প্রচণ্ড বেগে কুয়াশার মতো পানি ছোড়ে, যা শুধু আগুনই নেভায় না, পরিবেশের তাপমাত্রা কমায় ও আগুনে অক্সিজেনের সরবরাহে বাধা দেয়। তাতে আগুন খুব দ্রুত নিভে যায়।

ভয়েস টিভি/এসএফ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/39212
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ