Printed on Sat Sep 18 2021 2:44:07 AM

‘আমার আট মাস বয়সী শিশু সন্তান আছে, আমাকে ছেড়ে দাও’

নাটোর প্রতিনিধি
সারাদেশ
আমাকে ছেড়ে দাও
আমাকে ছেড়ে দাও
‘আমার আট মাস বয়সী শিশু সন্তান আছে। তোমাদের সাথে আমার কোন শত্রুতা নাই। আমি নৌকা চালিয়ে সংসার চালায়। আমাকে ছেড়ে দাও।’

মৃত্যুর আগে খুনিদের কাছে প্রাণরক্ষায় এভাবেই ফরিয়াদ জানিয়েছিলেন নৌকার মাঝি আরজু শেখ (৩০)। কিন্তু এতে মন গলেনি পাষণ্ডদের। মাত্র ১০ হাজার টাকার দাবি মেটাতে না পারায় হাত-পা বেঁধে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে তারা আরজুকে হত্যা করে।

হত্যাকান্ডের ঘটনায় অভিযুক্ত বাইজিদ বোস্তামীকে (১৮) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সে নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার বিলহরিবাড়ী এলাকার নাসির বোস্তামীর ছেলে। তবে পলাতক রয়েছে তার সহযোগী দুই বন্ধু।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় নিজ কার্যালয়ে আরজু হত্যার ঘটনায় আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এমন তথ্য তুলে ধরেন নাটোর পুলিশ সুপার (এসপি) লিটন কুমার সাহা।

নিখোঁজের ৩৬ ঘন্টা পর গত ২৮ আগস্ট শনিবার সকালে গুরুদাসপুর উপজেলার বিলসা বিল থেকে নৌকার মাঝি আরজু শেখের ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আরজু মিয়া সিংড়া উপজেলার চামারী ইউনিয়নের আনন্দনগর গ্রামের আদম আলীর ছেলে।

তার আগের দিন শুক্রবার দুপুরে গুরুদাসপুর উপজেলার হরদমা এলাকা থেকে তার রক্তমাখা নৌকা উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে আরজু মিয়াকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করেছিল পুলিশ। ফলে হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে তদন্তে নামে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

প্রেস ব্রিফিংয়ে এসপি লিটন কুমার সাহা বলেন, প্রায় ৭ থেকে ৮ মাস আগে সিংড়ার চামারী ইউনিয়নের আনন্দনগর এলাকায় নারী ঘটিত বিষয় নিয়ে আরজু ও তার এলাকার লোকজনের সাথে অভিযুক্ত বাইজিদের হট্টগোল এবং হাতাহাতি হয়। সেই শত্রুতার জেরে পরিকল্পিতভাবে বাইজিদ ও তার দুই বন্ধু গত ২৬ আগস্ট সিংড়ার তিশিখালী মাজারে যাওয়ার নাম করে ৭০০ টাকায় আরজুর নৌকা ভাড়া করে। যাওয়ার পথে চলনবিলের বিলশা এলাকায় ফাঁকা জায়গায় আরজুকে দড়ি দিয়ে নৌকার সাথে বেঁধে ফেলে তারা। হত্যার পূর্বে আরজুর কাছে ১০ হাজার টাকা দাবি করে। টাকা না পেয়ে তাদের কাছে থাকা চাইনিজ কুড়াল দিয়ে আরজুর মাথার পেছনে আঘাত করার পরে পানিতে ফেলে দেয়।

২৮ আগস্ট পুলিশ গুরুদাসপুরের বিলসার হরদমা এলাকা থেকে আরজুর মরদেহ ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করে। এই ঘটনায় নিহতের বাবা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পরে ঘটনার সাথে জড়িত বাইজিদকে গুরুদাসপুরের নাজিরপুর ইউনিয়নের বেড়গঙ্গারামপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

আরও পড়ুন : ‘আমার মাটি আমার মা, ধর্ষকদের হবে না’

ভয়েস টিভি/এএন
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/52799
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ