Printed on Fri Aug 06 2021 4:22:15 AM

ফুটবল বিশ্বে কিংবদন্তি আর্জেন্টিনা

নিজস্ব প্রতিবেদক
খেলার খবরভিডিও সংবাদ
আর্জেন্টিনা
আর্জেন্টিনা
আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দল। বিশ্বব্যাপী আর্জেন্টিনার পরিচিতি বাড়িয়ে তুলেছে প্রথম বিশ্বকাপের সময় থেকেই। বিশ্বকাপ শিরোপা জেতার ক্ষেত্রে এর প্রতিদ্বন্দ্বীদের চেয়ে পিছিয়ে থাকলেও, ক্রিড়া নৈপুন্যে আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপের ইতিহাসের অন্যতম সেরা এক দল।

এবার জানবো আর্জেন্টিনা ফুটবল দলের কিছু রেকর্ড :
এ পযন্ত বিশ্বকাপ জিতেছেই মাত্র আটটি দেশ। এর মধ্যে মাত্র ৫টি দেশ একাধিকবার বিশ্বকাপ জেতার কীর্তি গড়েছিল। সেই ৫ দলের একটি আর্জেন্টিনা।

আর্জেন্টিনা ফুটবল দলের রেকর্ডের শেষ নেই। বিশ্বকাপ ফুটবলে ৫ বার ফাইনাল ২ রার চ্যাম্পিয়ন ৩ বার রানার আপ হয়েছে। কোপা আমেরিকায় সর্বোচ্চ ২৭ বার ফাইনাল, ১৪ বার চ্যাম্পিয়ন এবং রানার আপ হয়েছে ১২বার। ফিফা কনফেডারেশন কাপ ৩বার ফাইনাল ১বার চ্যাম্পিয়ন ২বার রানার আপ। অলিম্পিক টুনামেন্ট ৪বার ফাইনাল ২বার চ্যাম্পিয়ন ২বার রানার আপ।

ইতিহাসের প্রথম দল হিসেবে ফিফা স্বীকৃত সব ট্রপি ঘরে তুলেছে আর্জেন্টিনা। পান আমেরিকার সর্বোচ্চ ৬বারের শর্ন্য বিজয়ী দল। ২ বারের সিলভার বিজয়ী দল। ৩ বারের ব্রোঞ্জ মেডেল বিজয়ী দল। ইতিহাসের প্রথম সর্বোচ্চ রেংকিং ৫৪ পয়েন্ট পাওয়া দল। ফিফা স্বীকৃত সব আন্তজার্তিক ট্রপি জেতা ১ম লাতিন ফুটবল দল। মোট ট্রপি ১৯টা; যা ৫ বারের বিশ্বকাপ জয়ী ব্রাজিলের চেয়ে বেশি। সর্বকালের সেরা একাদ্বশে ৩ জন মেসি ম্যারাডোনা ডি স্টেফানো ব্রাজিলের থেকে একজন বেশি।

আর্জেন্টিনার ফুটবল দল পরিচালনা করে আর্জেন্টাইন ফুটবল এসোসিয়েশন বা এএফএ। ১৯৩০ সালের প্রথম বিশ্বকাপ ফাইনালের রানার্স আপ এ দলটি, ফিফা বিশ্ব র্যাং কিং এ প্রথমবারের মত শীর্ষস্থান অর্জন করে ২০০৭ সালে। বর্তমানে ফিফা র্যাং কিং এ আর্জেন্টিনার অবস্থান পঞ্চম।

আর্জেন্টিনার প্রথম জাতীয় ফুটবল দল গঠিত হয় ১৯০১ সালে। জাতীয় দল হিসেবে আজেন্টিনা প্রথম ম্যাচটিও খেলেছিল উরুগুয়ের বিপক্ষে। ১৯০১ সালে অনুষ্ঠিত সে ম্যাচটিতে আর্জেন্টিনা ৩-২ ব্যবধানে জয় লাভ করে।
১৯০৬ সালে আবার উরুগুয়ে কে ২-০ ব্যবধানে হারিয়ে আর্জেন্টিনা তাদের প্রথম অফিসিয়াল শিরোপা কোপা লিপতন কাপ জিতে নেয়।

১৯৩০ সালে প্রথম বিশ্বকাপের সবকয়টি খেলায় জয় লাভ করে ফাইনালে পৌঁছালেও, উরুগুয়ের কাছে ৪-২ ব্যবধানে পরাজিত হয়ে প্রথম রানার্স আপ দলের মর্যাদা পায় আর্জেন্টিনা। এরপর ১৯৩৪ সালের ইতালি বিশ্বকাপে অংশগ্রহন করলেও, প্রথম পর্বে সুইডেনের বিপক্ষে ৩-২ ব্যবধানে পরাজিত হয়ে প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় নিতে হয় তাদের।

আর্জেন্টিনা মোট পাঁচ বার ফিফা বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলেছে। ১৯৩০ সালের প্রথম বিশ্বকাপে শিরোপা জয়ের অধরা স্বপ্ন পূরণ করতে তাদের লেগে যায় আরও দীর্ঘ ৪৮ বছর। ১৯৭৮ সালের বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ফাইনাল খেলে ৩-১ ব্যবধানে জয় লাভ করে, তাদের প্রথম বিশ্বকাপ শিরোপা অর্জন করে। এর ৮ বছর পর, আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি খেলোয়ার দিয়াগো মারাডোনার নেতৃত্বে ১৯৮৬ সালে পশ্চিম জার্মানিকে ৩-২ ব্যবধানে হারিয়ে আর্জেন্টিনা তাদের দ্বিতীয় বিশ্বকাপ শিরোপা জয় করে। পরবর্তীতে ১৯৯০ সালেও আর্জেন্টিনা ফাইনালে ওঠে; কিন্তু বিতর্কিত এক পেনাল্টিতে জার্মানির বিপক্ষে ১-০ ব্যবধানে পরাজিত হয় তারা। সর্বশেষ, ২০১৪ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপে দলটি ফাইনালে ওঠে এবং অতিরিক্ত সময়ে জার্মানির কাছে ১-০ গোলে পরাজিত হয়।

আর্জেন্টিনা ফুটবল দলটি বিশ্বকাপের বাইরে সবচেয়ে বড় আঞ্চলিক ফুটবল প্রতিযোগীতা কোপা আমেরিকায় খুবই সফল একটি দল। তারা মোট চৌদ্দবার এই শিরোপা জিতেছে। ১৯৯২ সালে তারা ফিফা কনফেডারেশন্স কাপ শিরোপা এবং ২০০৪ এথেন্স এবং ২০০৮ বেইজিং অলিম্পিকে ফুটবলে স্বর্ণপর্ণ দক জেতে।
জাতীয় দলগুলোর মধ্যে কেবলমাত্র আর্জেন্টিনা এবং ফ্রান্স, ফিফা স্বীকৃত তিনটি সর্বোচ্চ শিরোপা ফিফা বিশ্বকাপ, ফিফা কনফেডারেশন্স কাপ এবং অলিম্পিক স্বর্ণপদক এর মত তিনটি ক্ষেত্রেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

আর্জেন্টাইন ফুটবলের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলোয়াড় দিয়াগো ম্যারাডোনার ভক্তরা মনে করে ম্যারাডোনা সর্বকালের সেরা ফুটবলার। তারা ১৯৯৮ সালে দি চার্চ অব ম্যারাডোনা স্থাপন করে আনুষ্ঠানিকভাবে ম্যারাডোনার উপাসনা শুরু করে। তারা মনে করে, আর্জেন্টাইনদের জন্য ফুটবল এক ধর্ম, প্রত্যেক ধর্মের একজন ঈশ্বর থাকে, আর ফুটবল ধর্মের ঈশ্বরের নাম দিয়াগো ম্যারাডোনা। দ্যা বুক অব ম্যারাডোনিয়ান চার্চ: দ্যা হ্যান্ড অব গড নামের একটি বইকে তারা এ ধর্মের বাইবেল হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। এমনকি ম্যারাডোনার জন্মদিন, ৩০ অক্টোবরে তারা ম্যারাডোনা ক্রিসমাস উৎযাপন করে। বর্তমানে প্রায় ৬০ টি দেশে ১ লাখ অনুসারী রয়েছে ম্যারাডোনিয়ান ধর্মের।

ভয়েস টিভি/ডি
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/48432
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ