Printed on Sat Jun 25 2022 8:49:07 AM

সংঘাত বন্ধের আশা প্রকাশ করছেন বেলারুশের প্রেসিডেন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক
বিশ্ব
আশা প্রকাশ
আশা প্রকাশ
বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্দার লুকাশেঙ্কো সংঘাত বন্ধের আশা প্রকাশ করছেন। তিনি একইসঙ্গে বলছেন, যে প্রস্তাব রাশিয়া দিয়েছে, তা মেনে নেওয়া উচিৎ ইউক্রেইনের, নইলে তাদের আত্মসমর্পণ করা ছাড়া তাদের বিকল্প থাকবে না।

যুদ্ধের মধ্যে রাশিয়া-ইউক্রেইনকে আলোচনায় প্রধান মধ্যস্ততাকারী লুকাশেঙ্কো বৃহস্পতিবার জাপানের টিবিএস টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে একথা বলেন।

ইউরোপে প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে রাশিয়ার পক্ষে থাকা একমাত্র দেশ বেলারুশের মধ্যস্থতায় কয়েক দফায় আলোচনায় বসেন রুশ ও ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা।

বেলারুশে অনুষ্ঠিত সেসব বৈঠকে কোনো অগ্রগতি না আসার মধ্যে যুদ্ধের ভবিষ্যৎ নিয়ে লুকাশেঙ্কো কথা বললেন বলে রুশ টেলিভিশন আরটি জানিয়েছে।

বেলারুশের প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমি এটাই মনে করি, অচিরেই এই সংঘাত বন্ধ হবে। শান্তির মধ্য দিয়ে শেষ হবে রাশিয়ার অভিযান।’

তিনি বলেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন যে প্রস্তাব দিয়েছে, তা ইউক্রেইনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির মেনে নেওয়া উচিৎ।

‘পুতিন যে চুক্তির প্রস্তাব জেলেনস্কিকে দিয়েছেন, তা গ্রহণযোগ্য একটি প্রস্তাব। এটা এখনও সম্ভব যে রাশিয়া ও ইউক্রেইনের মধ্যে সমঝোতা হবে, এবং জেলেনস্কি কাছে তা সইয়ের জন্য যাবে। তিনি যদি এতে সই না করেন, তবে পরে আত্মসমর্পণের দলিলে সই করা ছাড়া তার কোনো পথ থাকবে না।’

রাশিয়া বরাবরই ২০১৫ সালে বেলারুশের রাজধানী মিনস্কে মস্কো-কিইভের মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তিটি কার্যকরের আহ্বান জানিয়ে আসছে। যেখানে পূর্ব ইউক্রেইন থেকে সামরিক স্থাপনা, সামরিক সরঞ্জাম ও বাইরের সেনাদের সরিয়ে নেওয়া এবং বিচ্ছিন্নতাবাদী অঞ্চলগুলোকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়ার কথা বলা আছে।

পাশাপাশি নেটোতে যোগ দেওয়ার বাসনা ছেড়ে ইউক্রেইনকে ‘নিরপেক্ষ দেশ’ ঘোষণা করতে জেলেনস্কিকে শর্ত দিয়েছে রাশিয়া।

অন্যদিকে জেলেনস্কি চাইছেন রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে সরাসরি আলোচনা। তার মতে, তাহলেই আলোচনার জট খুলতে পারে।

ইউক্রেইনের নেটোতে যোগ দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশের পর টানাপড়েনের মধ্যে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রতিবেশী দেশটিতে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া।

বেলারুশের ভূখণ্ড দিয়ে রাশিয়ার ওই অভিযান হলেও তাতে তার দেশের সৈন্যরা অংশ নিচ্ছে না বলে দাবি করে আসছেন লুকাশেঙ্কো।

জাপানের টেলিভিশনে দেওয়া সাক্ষাৎকারেও একই কথা বলেন বেলারুশের প্রেসিডেন্ট। সেই সঙ্গে তিনি অভিযোগ করেন, বেলারুশকে উসকানি দিচ্ছে ইউক্রেইন।

‘ইউক্রেইন থেকে অন্তত দুটি ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে বেলারুশে। যদি এমন উসকানি চলতে থাকে, তবে আমরাও জবাব দেব।’

ভয়েসটিভি/এমএম
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/70010
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ