Printed on Tue Sep 21 2021 6:17:10 PM

‘রাষ্ট্রপতি হিসেবে এরশাদই প্রথম বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত করেন’

নিজস্ব প্রতিবেদক
রাজনীতি
এরশাদই প্রথম বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত করেন
এরশাদই প্রথম বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত করেন
জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রয়াত চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অত্যন্ত শ্রদ্ধা করতেন। বঙ্গবন্ধুও তাকে খুব স্নেহ করতেন। তাই বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুর পর এরশাদই প্রথম রাষ্ট্রপতি হিসেবে তার মাজার জিয়ারত করেন।

১৫ আগস্ট রবিবার দুপুরে বনানী কার্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এক অলোচনা সভায় জাপা চেয়ারম্যান জিএম কাদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে  হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ অত্যন্ত শ্রদ্ধা করতেন। বঙ্গবন্ধুও হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে খুব স্নেহ করতেন। ১৯৭৫ সালের পর হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আগ পর্যন্ত ৫ জন রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশের রাষ্ট্র ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত ছিলেন। কিন্তু  এরশাদই দেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি হিসেবে বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত করেছিলেন।

গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমান কোনও একটি দলের নয়, তিনি বাঙালি জাতির সম্পদ।

বঙ্গবন্ধুকে দলীয় সম্পদ করতে চেয়ে আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধুকে ছোট করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তিনি সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি। কারণ, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে একটি জাতির সকল ধর্ম, বর্ণ ও সম্প্রদায়ের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। একই সময়ে দেশের মানুষকে উজ্জীবিত করেছিলেন তিনি। ইতিহাসে বঙ্গবন্ধুর মতো নেতৃত্ব বিরল। তাই, বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ আর বঙ্গবন্ধুর প্রশ্নে জাতির কোনও দ্বিমত নেই।

বঙ্গবন্ধুর ত্যাগের কথা তুলে ধরে জিএম কাদের বলেন, জীবনের একটি বিশাল অংশ কারাবরণ করেছেন বঙ্গবন্ধু, ফাঁসির মুখেও গিয়েছেন একাধিকবার। কিন্তু দেশ ও মানুষের অধিকারের প্রশ্নে কখনোই আপস করেননি বঙ্গবন্ধু। বঙ্গবন্ধু ছিলেন বাঙালি জাতির এক অবিসংবাদিত নেতা।

অনুষ্ঠানে জাতীয় পার্টি মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অনেক ভালোবাসতেন। তাই ১৯৭৪ সালে উচ্চতর প্রশিক্ষণের জন্য তাকে ভারতে পাঠান বঙ্গবন্ধু।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, দলের কো-চেয়ারম্যান এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার। তিনি বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সবসময় জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানকে পিতার মতো শ্রদ্ধা করতেন। এরশাদ দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে কখনোই জাতির জনকের সমালোচনা করে কথা বলেননি। তিনি সব সময় মুক্তিযোদ্ধাদের অত্যন্ত শ্রদ্ধার চোখে দেখতেন।

তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট এরশাদ দেশে থাকলে হয়তো খুনিরা এমন নির্মম, নৃশংস ও নারকীয় ঘটনা ঘটাতে পারতো না।

আরও পড়ুন : আজ সাবেক তিন রাষ্ট্রপতির জন্মদিন

ভয়েস টিভি/ এএন
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/51129
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ