Printed on Mon Jul 26 2021 5:57:30 AM

করোনায় ঈদের ছুটিতে বই

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল
করোনায়
করোনায়
করোনা মহামারির এই দু:সময়ে ঈদের ছুটিতে বাড়ির বাইরে যেতে পারছে না কেউ। কঠোর বিধিনিষেধ মানতে হচ্ছে সবাইকে। ছুটির দিনে দেরি করে ঘুম থেকে উঠেই অনেকেই বসবে টেলিভিশনের সামনে। শিশুরা দেখবে কার্টুন, থ্রিরার সিরিজ বা মুভি নিয়ে। গৃহিনীর কাটবে গৃহস্থালি কাজ কিংবা ফোনের বাড়তি আলাপ করে। বাড়ির কর্তা পত্রিকার পাতা দিয়ে দিনের শুরু করলেও একটি সময় বিরক্তিতে ধরবে তাকেও। এ সময়ে অনেকটা একঘেয়েমিতে সময় কাটাবে বাড়ির তরুণ-তরুণিরা।

একঘেয়েমি কাটাতে কোথাও বেড়াতে যাওয়া বা বন্ধু বান্ধবদের সাথে আড্ডা দেয়ারও নেই উপায়। বাড়ির মেয়েরা মায়ের সাথে দু-একটা কাজে হাত দিলেও বিকেলটা কাটবে একেবারেই বোরিং। এই বোরিংনেস কাটাতে তখন খুব জরুরি বন্ধু হতে পারে বই। ঈদের দিন কয়েকের ছুটি দারুণভাবে কাজে লাগানোর একটা পথ হচ্ছে বই পড়া। পছন্দের কাগজের বই কিংবা ই-বুক পড়তে পারেন।

যেকোন ব্যাপার দেখার দৃষ্টিভঙ্গি বদলানো থেকে শুরু করে বই আমাদের নতুন অনেক কিছু জানতে ও বুঝতে শেখায়। এমনকি আমরা দুঃখভারাক্রান্ত থাকলে ভালো কোন একটি বই পড়লে মন ভালো হয়ে যায় সঙ্গে সঙ্গে।

ঈদের ছুটিতে এমনই বই নির্বাচন করতে পারেন; যা কিনা খুব দ্রুতই শেষ করা যায়। আত্মজীবনী কিংবা পেশাজীবনে কাজে দেয় এমন কোনো বই পড়তে পারেন। আলোচিত উদ্যোক্তা কিংবা ব্যবসায়ীদের জীবন-দর্শনের ওপরে দারুণ সব বই পাওয়া যায়, তা কিনে কিংবা ই-বুক নামিয়ে নিয়ে পড়তে পারেন। একদিকে বই পড়াও হবে, অন্যদিকে বই থেকে কিছু শিখে-জেনে কাজের দুনিয়াতেও কাজে লাগানো যাবে। ইতিবাচক জীবন যাপনের ওপরেও বাংলা-ইংরেজি ভাষায় দারুণ সব বই আছে। এ ধরনের বইও পড়তে পারেন।

কোন বই পড়বেন আর কোন বই পড়বেন না, তা পছন্দ করতে হবে সতর্কতার সঙ্গে। কুরুচিপূর্ণ বই আমাদের চরিত্রহানি ঘটায়। ছোট বাচ্চা এবং বয়স্ক মানুষদের বুঝেশুনে ভালো বই পড়তে দেওয়া উচিৎ। কারণ, তাদের মন খুব নরম থাকে। একটি ভালো বই আমাদের বন্ধু, দার্শনিক ও পথপ্রদর্শক হতে পারে।

খেলাধুলা, ঘুরে বেড়ানো কিংবা সিনেমা দেখে আমরা সকলেই সময়গুলো উপভোগ করতে পারি। কিন্তু আসল আনন্দ পাওয়া যায় বই পড়ার মাধ্যমে। ভালো বই পড়লে আমরা যেন নিজেদেরই ভুলে যাই। পৃথিবীর কোন দুশ্চিন্তা আমাদের স্পর্শ করতে পারেনা। আমরা যেন মুহূর্তের মধ্যেই সৌন্দর্য, কল্পনা এবং আনন্দের সাগরে ভেসে যায়।

যিনি সর্বদা বই পড়তে ভালোবাসেন, তিনি যেন একটি জ্ঞান-ভাণ্ডার! তিনি সব ব্যাপারেই কিছু না কিছু ধারণা রাখেন। একজন পড়ুয়া মানুষ কিন্তু ভালো বক্তা। তার একটি আলাদা সামাজিক সম্মান রয়েছে। তিনি যেকোন কিছুর ব্যাপারেই কথা বলতে পারেন। এজন্যে সকলেরই বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তোলা উচিৎ।

কিছু বই আছে একেবারে প্রকৃতির ওপর ভিত্তি করে লেখা। সকলেই এমন বই পড়তে ভালোবাসে। কিছু বই আছে জ্ঞানভিত্তিক, কিছু আছে অনুপ্রেরণামূলক আবার কিছু রয়েছে হাস্যরসাত্মক। আপনার জন্য কোন বই মানানসই, তা বেছে নিন।

শিশুরা রূপকথার বই বা খণ্ড গল্পের বই পড়তে পারে। এতে ছোট ছোট গল্প থাকায় তাড়াতাড়ি শেষ করে নতুন গল্প পড়তে পারায় বইয়ের প্রতি একঘেয়েমিভাব আসবে না শিশুটির। কিশোরেরা পড়তে পারে বিজ্ঞানবিষয়ক বই। ইতিহাস পড়তে পারে তরুনরা। আত্মজীবনী পড়তে পারেন বাড়ির মুরুব্বিরা। এছাড়া কবিতাও পছন্দ করেন অনেকে।

যেকোন বই পড়তে শুরু করার আগে আমাদের খুব যত্নশীল হওয়া উচিৎ। ভালো বই আমাদের বিভিন্নভাবে গুণান্বিত করে তোলে। যে মানুষটি অনেক পড়াশোনা করেন, সমাজ ও সংস্কৃতির ব্যাপারে তার সমূহ ধারণা থাকে। আমাদের জীবন আনন্দে পরিপূর্ণ হয়ে যায়। কিন্তু খারাপ যেকোন বই আমাদের রুচিকে বিকৃত করে তোলে। এমন বই বর্জন করাই শ্রেয়।

ভয়েসটিভি/এএস
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/49076
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ