Printed on Wed Oct 20 2021 4:58:06 PM

করোনায় ২১ মাস বেশি বয়স পেতে যাচ্ছেন সরকারি চাকরিপ্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
জাতীয়
করোনায়
করোনায়
বাংলাদেশে প্রথম করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে গত বছরের ৮ মার্চ। সংক্রমণ মোকাবিলায় ২৫ মার্চ থেকে টানা ৬৬ দিনের সাধারণ ছুটি দেয় সরকার। গত বছরের শেষের কয়েক মাস ও এ বছরের ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত দেশে কোভিড পরিস্থিতি অনেকটা সহনীয় ছিল। এপ্রিল থেকে আবারও সংক্রমণ পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে শুরু করে। এর ফলে নানা পর্যায়ে বিধি-নিষেধ জারি করা হয়। সর্বশেষ জারি করা বিধি-নিষেধের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামীকাল ১০ আগস্ট।

দীর্ঘ এই সময়ে বিসিএস ব্যতীত সরকারি অন্য কোন চাকরির বিজ্ঞপ্তি নিয়মিত প্রকাশিত হয়নি। সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স বাড়ানোর জন্য করোনার আগেই একটি আন্দোলন চলছিল। সেই সাথে করোনার কারণে তরুণরা সরকারি চাকরি বঞ্চিত হচ্ছেন।

শাপে বর পেতে চলেছেন সরকারি চাকরিপ্রার্থীরা। কোভিড পরিস্থিতি বিবেচনায় সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ২১ মাস বাড়ানো হতে পারে। এ বিষয়ে প্রস্তাবনা তৈরির কাজ করছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। চলতি সপ্তাহের মধ্যে প্রস্তাবটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে উপস্থাপন করা হতে পারে। প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন পেলে আনুষ্ঠানিকভাবে চাকরি প্রার্থীদের সুখবর দেবে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এই প্রস্তাবনা চূড়ান্ত হলে গত বছরের ২৫ মার্চের পর থেকে চলতি বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে যাদের সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩০ ছাড়িয়ে গেছে বা যাচ্ছে, তারা এই ছাড়ের সুবিধা পাবেন। অন্যদিকে ২৫ মার্চের আগের জন্য যে সুযোগ দেওয়া হয়েছিল সেটি বহাল থাকবে।

এদিকে করোনাকালেও বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের (বিসিএস) নিয়মিত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। তাই বিসিএসকে এই সুযোগের আওতামুক্ত রাখা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, আগামী বছরও যদি করোনার কারণে এমন পরিস্থিতি চলমান থাকে সেই ক্ষেত্রে নতুনভাবে চিন্তা করবে সরকার। তবে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি সাপেক্ষে বয়স ছাড় দেওয়া হলেও এই সুবিধার আওতায় কত দিন পর্যন্ত চাকরির বিজ্ঞাপন দেওয়া যাবে তা স্পষ্ট জানা যায়নি।

এ বিষয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, গত বছরের ২৫ মার্চ থেকে শুরু করে সামনের যেকোনো একটি মাস পর্যন্ত সীমারেখা বেঁধে দেওয়ার চিন্তা চলছে। এই সীমা কত মাস হবে, সেটা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে।

করোনায় তরুণদের সরকারি চাকরিতে প্রবেশে বয়স ছাড়ের সুযোগ দিয়ে গত সেপ্টেম্বরে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের জারি করা হয়েছিল। ওই আদেশে বলা হয়েছিল, ‘যে সকল মন্ত্রণালয়, বিভাগ এবং এর আওতাধীন অধিদপ্তর, পরিদপ্তর, সংস্থা ও অন্যান্য সংবিধিবদ্ধ, স্বায়ত্তশাসিত, জাতীয়কৃত প্রতিষ্ঠানসমূহ বিভিন্ন ক্যাটাগরির সরকারি চাকরিতে (বিসিএস ব্যতীত) সরাসরি নিয়োগের লক্ষ্যে যথাযথ কর্তৃপক্ষ হতে ২৫-০৩-২০২০ তারিখের পূর্বে নিয়োগের ছাড়পত্র গ্রহণসহ সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন করা সত্ত্বেও কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে পারেনি, সে সকল দপ্তরের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে ২৫-০৩-২০২০ তারিখে প্রার্থীদের সর্বোচ্চ বয়সসীমা নির্ধারণ করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট সকল মন্ত্রণালয়, বিভাগকে নির্দেশ দেওয়া হলো। ’

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, এবছর গতবারের মতই বছর ও বয়স ছাড় দিয়ে আদেশ জারির প্রস্তুতি নিচ্ছিল জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। কিন্তু করোনাকালে দফায় দফায় বিধি-নিষেধ বা লকডাউনের বেড়াজালের কারণে পূর্বের মতো বয়স ছাড়ের নির্দেশনা দেওয়া খুবই জটিল হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই গত বছরের ২৫ মার্চ থেকে চলতি বছরের পুরোটাই অর্থাৎ ২১ মাস পূর্ণাঙ্গ ছাড় দেওয়ার চিন্তা করা হচ্ছে।
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/50618
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ