Printed on Sun Jun 20 2021 4:44:49 AM

পাবনায় কাউন্সিলরের বাড়িতে মাদক ব্যবসায়ীদের হামলা-ভাঙচুর

পাবনা প্রতিনিধি
সারাদেশ
কাউন্সিলরের
কাউন্সিলরের
পাবনা সদরের হেমায়েতপুর ইউনিয়নের বুদের হাট এলাকায় বৃহস্পতিবার গভীররাতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পৌরসভার ১৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলরের বাড়িতে হামলা ভাঙচুরসহ লুটপাট চালায় প্রতিপক্ষ গ্রুপের লোকজন। ঘটনার পরপরই পুলিশ ঘটনাস্থল পরির্দশন করে মহিদুল ইসলাম ও সায়েম শেখ নামের দুইজনকে আটক করেছে।

পুলিশ, স্থানীয় বাসিন্দা ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা যায়, সদ্য সমাপ্ত পৌরসভার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিরোধের সুত্রপাত হয়। ওই নির্বাচনে ১৫ নং ওয়ার্ডে শাহিন শেখ কাউন্সিলর হিসেবে বিজয়ী হওয়ার পর সন্ত্রাসী কার্যকলাপের সমর্থন না দেয়ায় তার ওপর ক্ষিপ্ত হয় প্রতিপক্ষের লোকজন। এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী আজাদ হোসেন, শফি, সুমন, সায়েম শেখ, হিরক শেখ গংরা একত্রিত হয়ে মাদক ব্যবসাসহ সব ধরনের অপকর্মের সঙ্গে সম্পৃক্ত বলে জানান ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

গত ৩০ মার্চ চিহ্নিত ওই সন্ত্রাসীরা ওয়ার্ড কাউন্সিল শাহিন শেখের ছোট ভাই জেলা ছাত্রলীগের পাঠাগার সম্পাদক শাকিল শেখকে সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। এই ঘটনায় শাকিল শেখ দীর্ঘদিন রাজশাহী ও ঢাকায় চিকিৎসা শেষে বুধবার বাড়িতে আসেন। ওই ঘটনায় পাবনা সদর থানায় উভয় পক্ষ আলাদা দু’টি অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার প্রাথমিক তদন্ত শেষে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন অভিযোগ দু’টি নথিভুক্ত করে।

কিন্তু সেই হামলা ও মামলার রেশ কাটতে না কাটতেই প্রতিপক্ষ গ্রুপের লোকেরা শাহিন শেখের বসতবাড়িতে হামলা চালায়। এসময় তারা ধারালো অস্ত্রদিয়ে শাহিন শেখের বসতঘরের টিনের বেড়া গেট ও ঘরের মধ্যে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। এসময় তারা শাহিন শেখের এক সমর্থকের বাড়িতেও হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও মারপিট করে।

কাউন্সিলর শাহিন শেখের ছোট ভাই আহত শাকিল শেখের অভিযোগ, ওই সময় হামলাকারীরা তার ভাই কাউন্সিলর শাহিন শেখকে না পেয়ে পরিবারের অন্য সদস্যদের ওপর নির্যাতন চালায় এবং শাহিনকে হত্যার হুমকি দিয়ে বাড়িতে লুটপাট চালায়। এরপর পুলিশ আসার খবর পেয়ে দ্রুত পালিয়ে যায় হামলাকারীরা।

শাহীন শেখের পিতা আহাম্মদ শেখ জানান, এই হামলার ঘটনার পরে তার পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে রয়েছে। তারা আবারও যেকোনো সময় হামলা করতে পারে। এমনকি তার ছেলে শাহিনের ক্ষতি করতে পারে।

ঘটনার বিষয়ে কাউন্সিলর শাহিন শেখ বলেন, আমি খুব বিপদের মধ্যে আছি। একের পর এক আমার ওপরে হামলা হচ্ছে। প্রকাশ্যে এই সন্ত্রাসীরা আমাকে হত্যার হুমকি প্রদান করছে। দুই সপ্তাহ আগে আমার ছোট ভাইকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আহত করে। এবার আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার বাড়ির উপরে হামলা চালিয়েছে। মাদকসহ তাদের খারাপ কাজের সমর্থন না দেয়ার কারণে তারা আমার ওপরে ক্ষিপ্ত হয়েছে। আমি প্রশাসনের কাছে সহযোগিতা চাইছি। আমার ও আমার পরিবারের জানের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করবে প্রশাসন।

পাবনার অতিরিক্তি পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রোকনুজ্জামান সরকার বলেন, এলাকায় মাদক, বালু, ক্লিনিক ও হাটবাজারের দখল নিয়ে আসলে ঝামেলার সূত্রপাত হয়েছে। শাহিন কাউন্সিলরের প্রতিপক্ষ গ্রুপের সন্ত্রাসীরা তার বাড়িতে হামলা চালায়। ঘটনা শোনার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে আমরা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনি। এই ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন। ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত সবাইকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। এই ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত দুইজনকে ইতোমধ্যে আটক করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন: ‘ভালবাসার রঙ’ দিয়ে রঙিন দুনিয়ায়, অতঃপর...

আরও পড়ুন: পাবনায় কিশোরীকে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করে মা-বাবা

ভয়েস টিভি/এসএফ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/42013
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ