Printed on Sat May 15 2021 8:56:01 PM

শেখ হাসিনা সরকার নারীদের কর্মের স্বীকৃতিতে বিশ্বাসী : ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
রাজনীতি
কাদের
কাদের
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনা সরকার নারীদের অর্থনৈতিক-রাজনৈতিক ক্ষমতায়নের পাশাপাশি তাদের কর্মের স্বীকৃতিতে বিশ্বাসী। নারীদের সম্মান এবং মর্যাদা প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি সামাজিক ও রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে বর্তমান সরকারের উদ্যোগ দেশ-বিদেশে প্রশংসিতও হয়েছে। যা ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিকভাবেও স্বীকৃতি বয়ে আনছে।

৯ মার্চ মঙ্গলবার সরকারি বাসভবন থেকে নিয়মিত ব্রিফিং এ এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, কর্মক্ষেত্রে নারীদের নিরাপত্তা বিধানের পাশাপাশি দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত বিনা বেতনে অধ্যয়নের সুযোগ করে দিয়েছে সরকার। সরাসরি ভোটে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানে নারী প্রতিনিধি নির্বাচন হচ্ছে, জাতীয় সংসদে বাড়ানো হয়েছে সংরক্ষিত নারী আসন। নারী উদ্যোক্তা তৈরিতে জামানতবিহীন ঋণ প্রদান করা হয়েছে। চ্যালেঞ্জিং পেশায় বাড়ছে নারীদের অংশগ্রহণ।

সন্তানের পরিচয় ও নিবন্ধনে বাবার পাশাপাশি মায়ের নাম যুক্ত করার মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা নারীদের দিয়েছেন অনন্য স্বীকৃতি। অথচ ’৭৫ পরবর্তী বাংলাদেশে যত সরকার এসেছে, তারা নারীদের পিছিয়ে রাখতে চেয়েছে। নারীর ক্ষমতায়নে শেখ হাসিনাই প্রমাণ করেছেন তার সরকার, নারী বান্ধব সরকার।

‘এ সরকারের আমলে দেশের নারীরা অধিকার বঞ্চিত’ নারী দিবসে বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগের জবাবে তিনি বলেন, যে অপশক্তি ধর্মের নামে নারীর এগিয়ে যাওয়ার পথকে রুদ্ধ করে রাখতে চায়, বিএনপি তাদের পৃষ্ঠপোষক।

বিএনপি শাসনামলে নারী নির্যাতনের ফিরিস্তি তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন, ফাহিমা, পূর্ণিমার মতো হাজারো নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছিল। সংখ্যালঘু নারীদের ওপর যে নির্যাতন চালিয়েছিল তা ৭১-এর পাকিস্তানি হানাদারদের বর্বরতাকেও হার মানিয়েছিল। আর শেখ হাসিনা সরকার একদিকে নারীর প্রতি লাঞ্ছনাকারীদের বিরুদ্ধে যেমন কঠোর, অপরদিকে নারী উন্নয়নের সকল সম্ভাবনার দ্বার উন্মুক্ত করে দিতেও সচেষ্ট থেকেছে।

এ দেশের নারীরা বন্দি নয়, বরং শেখ হাসিনা তাদের দেখিয়েছেন সম্ভাবনার মুক্ত আকাশ। তাদের হাতে হাতে এখন বিশ্বজয়ের প্রযুক্তি, ঘরে বসে আয় করছে লাখ লাখ নারী। গৃহকোণ থেকে মোবাইলে প্রতি মুহূর্তে যোগাযোগ করছে দেশ-বিদেশে, নিচ্ছে তথ্য সেবা।

বাস থেকে একজন নারী যাত্রীকে ফেলে দেয়ার বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ও গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনের বিষয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, এ ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত এবং দুঃখজনক। ইতোমধ্যেই বিআরটিএ-কে এ ব্যাপারে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে এবং প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ ও যাচাই-বাছাই করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেও বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন : ‘বঙ্গবন্ধু নারীদের দেশের উন্নয়নের কেন্দ্রবিন্দুতে বসিয়েছিলেন’

ভয়েস টিভি/এমএইচ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/38197
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ