Printed on Wed Jan 27 2021 2:18:30 PM

কারচুপি নয়, সুষ্ঠু নির্বাচনে মেয়র হতে চাই: সেতুমন্ত্রীর ছোট ভাই

নোয়াখালী প্রতিনিধি
রাজনীতিসারাদেশ
কারচুপি
কারচুপি
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী। নির্বাচনে শেষ দিনের প্রচারণায় এক পথ সভায় বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে আমি মেয়র হতে চাই। ভোট কারচুপি করে নয়। আমার জন্য কাউকে ভোট চুরি করতে হবে না। আমার জন্য যদি কেউ ভোট কারচুপি করে আল্লাহ যেন আমাকে মৃত্যু দান করে। আমি চাই সারাদেশে একটি সুষ্ঠু ভোটের বিপ্লব ঘটাতে।

১৪ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার বসুরহাট বাজারের রুপালী চত্বরে তিনি এসব কথা বলেন।

আবদুল কাদের মির্জা আরও বলেন, নেত্রীর সাপোর্ট থাকায় নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রচারণা চালিয়ে যেতে পারছি। দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ন্যায় নীতির সঙ্গে কাজ করেন। আমার কথা বলার উদ্দেশ্য হলো- নোয়াখালীর অপরাজনীতির বিরুদ্ধে ও নোয়াখালীর রাজনীতির আমূল পরিবর্তন আনা। এ অঞ্চলের প্রবীণ রাজনীতিবিদ মাহমুদুর রহমান বেলায়েত ও অধ্যক্ষ খায়রুল আনম সেলিম এবং ফেনীতে জয়নাল হাজারী ও ইকবাল সোবহান চৌধুরীর মাধ্যমে আমূল পরিবর্তন করা সম্ভব।

নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করে কাদের মির্জা বলেন, আমাদের এলাকার নির্বাচন কমিশন শাহাদাত হোসেন চৌধুরী গতকাল আসার কথা ছিল। তিনি কেন আসেন নাই এ নিয়ে আমার সন্দেহ হচ্ছে। তারা যে কোনভাবে নির্বাচন বানচাল করার চেষ্টা চালাচ্ছে। যতই নির্বাচন বানচাল করার চেষ্টা করুক তা কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে।

মির্জা কাদের বলেন, তিনি এবারের পৌরসভা নির্বাচনকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের অংশ হিসেবে নিয়েছেন। তিনি ভোট জালিয়াতির প্রতিবাদ করবেন। নির্বাচনকে নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র, চক্রান্ত চলছে। আপনারা ইতোমধ্যে শুনেছেন, আমাদের প্রতিপক্ষ প্রার্থীদের জন্য নোয়াখালীর এমপি, ফেনীর এমপি এক কোটি টাকা পাঠিয়েছেন। এখানে শুধু আমার বিরুদ্ধে নয়, আমার কাউন্সিলরদের বিরুদ্ধেও চক্রান্ত চলছে। আজকে ভোটারদের টাকা দিচ্ছে কাউন্সিলরদের মাধ্যমে।

তিনি বলেন, আমার স্পষ্ট বক্তব্য, আমি নির্বাচন করছি অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের অংশ হিসেবে। ভোট জালিয়াতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করব। আমি শপথ করেছি, আমি অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করব। আমি এক ভোট পেলেও অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন চাই। আমি বাংলাদেশে প্রমাণ করে দিতে চাই গণতন্ত্র কী জিনিস। আমি প্রমাণ করে দিতে চাই, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন কী জিনিস। আমি সাহস করে সত্য কথা বলব। আমি বলতে চাই, এই কোম্পানীগঞ্জের নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে। এ জন্য প্রশাসনকে আমি সব ধরনের সহযোগিতা করে যাব। কেউ নির্বাচন নিয়ে ছিনিমিনি খেলার চেষ্টা করবেন না।

আবদুল কাদের মির্জা বলেন, আপনাদের কাছে আমি আজকে হলফ করে বলছি, যদি পরশু দিনের নির্বাচনে কোনো কারচুপি হয়, যদি আমি কারচুপিতে সহযোগিতা করি, তাহলে সে দিনই যেন আমার মৃত্যুর দিন হয়। আমি কোনো কারচুপির নির্বাচন করব না। কিন্তু আপনাদের বলব, আপনাদের তো স্বভাব ১২টার পর বর্জন করা। সিলেটেও আপনারা ১২টার সময় নির্বাচন বর্জন করেছিলেন। কোথাও কোনো কারচুপি হলে আমাকে জানাবেন। জনগণকে নিয়ে সেখানে ভোট বন্ধ করে দেব। আমি ভোট বন্ধ করে এখানে এসে আন্দোলন শুরু করব।

সভায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খানসহ দলের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ভয়েস টিভি/এসএফ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/32161
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ