Printed on Sun Jun 20 2021 12:56:43 PM

ক্ষমা চাইলেন সাকিব

নিজস্ব প্রতিবেদক
খেলার খবর
চাইলেন
চাইলেন
আম্পায়ার আবেদনে সাড়া না দেয়ায় মেজাজ হারিয়ে যা কিছু করেছেন সেজন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন সাকিব আল হাসান। ১১ জুন ৫টা ৫০ মিনিটে তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে তিনি দুঃখ প্রকাশ করে স্টাটাস দেন।

স্টাটাসে তিনি ভক্ত অনুরাগী ও বাসায় থেকে যারা ম্যাচ উপভোগ করেছেন সবার কাছেই দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

তিনি লেখেন, ‘প্রিয় ভক্ত-অনুরাগী, আমি আমার মেজাজ হারিয়ে ম্যাচটি নষ্ট করে দেয়ার জন্য আমি অত্যন্ত দুঃখিত। আমার মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড়ের উচিত ছিল না সেভাবে প্রতিক্রিয়া জানানো কিন্তু কখনও কখনও সমস্ত প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে এটি দুর্ভাগ্যজনকভাবে ঘটে। এই মানবিক ত্রুটির জন্য আমি দল, পরিচালনা, টুর্নামেন্টের কর্মকর্তা এবং সাংগঠনিক কমিটির কাছে ক্ষমা চাই। আশা করি, ভবিষ্যতে আর এটিকে পুনরাবৃত্তি করব না।’

এর আগে আম্পায়ার আবেদনে সাড়া না দেয়ায় মেজাজ হারান সাকিব আল হাসান। লাথি মেরে ভাঙলেন স্টাম্প। দুপুরে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচ এভাবেই হয়ে উঠল উত্তপ্ত।

তবে ঘটনাটি স্টাম্প ভাঙা আর আম্পায়ারের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়েই শেষ হয়নি। আবাহনীর ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে তুমুল বৃষ্টি নামলে আম্পায়ার মাহফুজুর রহমান খেলা বন্ধ ঘোষণা করেন। তিনি যখন মাঠকর্মীদের কাভার আনার ইশারা দিচ্ছেন, তখন সাকিব আম্পায়ারের দিকে এগিয়ে গিয়ে তিনটি স্টাম্পই তুলে উইকেটের ওপর ছুড়ে মারেন। তিনি এ সময় আম্পায়ারকে প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয়ে কিছু একটা বলছিলেন।

খেলোয়াড়েরা যখন মাঠ ত্যাগ করছিলেন, তখনো নিজেকে সামলাতে বেশ কষ্ট হচ্ছিল সাকিবের। তিনি এ সময় আবাহনীর ড্রেসিংরুমের দিকে তাকিয়ে কিছু বললে খেপে গিয়ে তেড়ে আসেন কোচ খালিদ মাহমুদ সুজন। এগিয়ে যান সাকিবও। মোহামেডানের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার তখন জাপটে ধরে থামান সাকিবকে। সুজনকেও থামান মোহামেডানের শামসুর রহমান।

পরে অবশ্য পুরো ব্যাপারই মিটে গেছে। সাকিব আবাহনীর ড্রেসিংরুমে গিয়ে ক্ষমা চান সুজনের কাছেও। সুজনও তাকে জড়িয়ে ধরে ঘটনার পরিসমাপ্তি ঘটান।

ভয়েস টিভি/এসএফ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/46532
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ