Printed on Tue Mar 02 2021 5:26:40 AM

চুরি হওয়া মোবাইল শনাক্তে ‘থিফ গার্ড’

প্রযুক্তি ডেস্ক
ভিডিও সংবাদপ্রযুক্তি
চুরি হওয়া মোবাইল শনাক্তে ‘থিফ গার্ড’
চুরি হওয়া মোবাইল শনাক্তে ‘থিফ গার্ড’
মোবাইল চুরি করে আর পার পাবে না চোর। দেশের যে কোন জায়গায় চুরি যাওয়া মোবাইলের অবস্থান শনাক্ত করা যাবে নিমিষেই। আর এই অসম্ভবকে সম্ভব করেছেন দেশের প্রযুক্তি উদ্যোক্তা সাইদুর রহমান। নিজের মোবাইল চুরি হওয়ার আক্ষেপ থেকে মোবাইল অ্যাপ 'থিফ গার্ড' বানিয়ে ফেলেছেন তিনি।

বাড়ি কিংবা রাস্তা নয়, যেকোনো স্থান থেকে আপনার অ্যান্ড্রয়েট মোবাইল ফোনটি চুরি হলে তার সাথে খোয়া যায় নিত্যসঙ্গী মোবাইলের সব ব্যক্তিগত তথ্যও। এমন ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে সমাধান খুঁজতে থাকেন দেশের প্রযুক্তি উদ্যোক্তা সাইদুর রহমান। সম্প্রতি তিনি তৈরি করেছেন মোবাইল অ্যাপ থিফ গার্ড।

১৩ টি ফিচারের এই অ্যাপটি বাজারে আনছে তারই প্রতিষ্ঠান সফটালজি। সফটালজি’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইদুর রহমান বলেন, তার চুরি হওয়া ফোনে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিলো। যা তাকে খুবই কষ্ট দিয়েছে।

থিফগার্ড ডট কম থেকে ডাউনলোড করে শুরুতে ইউজার নাম, মোবাইল নম্বর, ইমেইল, পাসওয়ার্ড দিয়ে অ্যাপ চালু করতে হবে। যে কেউ আপনার মোবাইলে ভুল পাসওয়ার্ড দিতে চাইলেই বেজে উঠবে অ্যালার্ম। চাইলেই কেউ সিম খুলতে বা মোবাইল বন্ধ করতে পারবে না। উল্টো মোবাইল ফোনটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ছবি ও লোকেশন পাঠিয়ে দিবে আপনার ইমেইলে।

প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই অ্যাপের ফিচারগুলো আন্তর্জাতিকমানের। শিগগিরই বাজারে আসবে অ্যাপটি। অ্যাপটি ব্যবহারে প্রতি বছর গ্রাহককে খরচ করতে হবে ৩৫০ টাকা। প্রতিষ্ঠানের পরিচালক জাকির হোসেন বলেন, এটি এখন পরীক্ষামূলক পর্যায়ে। সব ধরনের সমস্যা অতিক্রম করে দ্রুতই এগিয়ে যাওয়ার আশা ব্যক্ত করেন তিনি।

সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মোবাইল ফোন চুরি হলে চোরের ছবি ও লোকেশন জানতে সহায়তা করবে অ্যাপটি। এ সময় চোর মোবাইল ফোন বন্ধ করতে বা কম্পিউটারের সঙ্গে কানেক্ট করতেও পারবে না। সিম পরিবর্তন করলে মোবাইল তার মালিককে নতুন সিম নাম্বার জানিয়ে দিবে। অনুমতি ব্যতীত কেউই ডিভাইসে থাকা কোনো ডাটাতে অ্যাক্সেস করতে পারবে না।

এক্ষেত্রে মোবাইল ফোন চুরি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে যেকোনো স্মার্টফোন অথবা কম্পিউটার থেকে প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটে গিয়ে ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করলেই চুরি হয়ে যাওয়া মোবাইল ফোনের ক্যামেরা চালু করা যাবে এবং মোবাইল তার মালিকের ইমেইলে ছবি পাঠাতে থাকবে। এ সময় জিপিএস অন করে দিলে লোকেশনও পাঠাতে থাকবে।

এই অ্যাপে অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে- মোবাইল ফোনের মালিক চাইলে হারিয়ে যাওয়া ফোনের স্ক্রিন লক করতে পারবেন। এছাড়া যেকোনো সময় ভাইরাস স্ক্যান করতে পারবেন। যেকোনো পাবলিক প্লেসে অন্য কেউ পকেট থেকে মোবাইল বের করতে চাইলে সাইরেন বেজে উঠবে। মোবাইলটা টেবিলে বা চার্জে দিয়ে আপনি অন্য কোথাও থাকলে এবং সে সময়ে কেউ মোবাইলটা চার্জ থেকে খুলতে চাইলে তাৎক্ষণিক সাইরেন বেজে উঠবে। যতক্ষণ পর্যন্ত সঠিক প্যাটার্ন দিয়ে নির্দিষ্ট অপশনে গিয়ে বন্ধ না করবে ততক্ষণ পর্যন্ত অ্যালার্ম বাজতেই থাকবে।

প্রথমিকভাবে অ্যান্ড্রয়েড ৭ থেকে ১২ ভার্সনে কাজ করবে অ্যাপটি। আপাতত এক বছর ও দুই বছর মেয়াদে এ থিফগার্ড অ্যাপটি সারাদেশের মোবাইল ফোনের দোকানে পাওয়া যাচ্ছে। ধীরে ধীরে আইফোনে ব্যবহার উপযোগী করতে চান উদ্যোক্তারা। এজন্য কাজ করছে একটি টিম। এছাড়া ব্যবহারকারীদের সমস্যা সমাধানে রয়েছে কল সেন্টার। ব্যবহারকারীদের আস্থা অর্জন করতে পারলে এ ধরনের আরো অ্যাপ তৈরি করতে চায় প্রতিষ্ঠানটি।
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/36799
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ