Printed on Mon Apr 12 2021 12:33:16 PM

স্বামীর নির্যাতনে সংসার ছেড়ে একসময়ের ট্যাক্সি চালক এখন পুলিশ কর্মকর্তা

অনলাইন ডেস্ক
বিশ্ব
ট্যাক্সি
ট্যাক্সি
বলছি এক আজন্ম সাহসিকার গল্প। জীবনের পদে পদে হোঁচট খেয়েছেন তিনি। আবার উঠে দাঁড়িয়েছেন। স্বপ্ন পূরণে সংসার ছেড়ে বেছে নিয়েছিলেন প্রবাস জীবন। সেখানে ট্যাক্সি চালিয়েও জীবিকা নির্বাহ করেছেন। শেষে স্বপ্ন ধরা দিল সত্য হয়ে। সাফল্য তার পদচুম্বন করল। তিনি এখন নিউজিল্যান্ড পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। তিনি ভারতীয় নারী মনদীপ কৌর। তিনিই প্রথম ভারতীয় যিনি নিউজিল্যান্ড পুলিশের প্রথম নারী কর্মকর্তা।

মনদীপ কৌরের জন্ম ভারতের পঞ্জাবের এক রক্ষণশীল পরিবারে। মাত্র ১৮ বছর বয়সে বিয়ে হয় মনদীপের। বিয়ের এক বছরের মধ্যেই সন্তানের জন্ম দেন। তার দু’বছরের মধ্যে আরও এক সন্তানের মা হন তিনি। কিন্তু বিবাহিত জীবন যত এগোচ্ছিল ততই গার্হস্থ্য হিংসাও বাড়ছিল তার উপর। দুই সন্তানকে বড় করা, নিজেকে স্বামীর নির্যাতন থেকে রক্ষা করা সব মিলিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছিলেন তিনি।

ট্যাক্সি

শেষমেশ কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। সন্তানদের বয়স যখন ৬ এবং ৮ বছর, স্বামীর ঘর ছাড়েন মনদীপ। সংসার ত্যাগ করে মা-বাবার কাছে চলে আসেন। কিন্তু সেখানেও সমস্যার শেষ ছিল না। বাবার একার উপার্জনে সংসার চালানো ছিল অসম্ভব। শেষে উপার্জনের জন্য সন্তানদের মা-বাবার কাছে রেখে কিছু ঋণ করে পাড়ি দেন সুদূর অস্ট্রেলিয়ায়।

কোথায় থাকবেন, কী কাজ করবেন কিছুই জানা ছিল না। এত খোঁজ খবর নেয়ার মতো মানসিক পরিস্থিতিও ছিল না তার। জীবনের ঝুঁকি নিয়েই বিদেশ পাড়ি দিয়েছিলেন তিনি। সেখানে গিয়ে সেলসম্যানের কাজ পেয়ে যান। ঠিক মতো ইংরাজি বলতে পারতেন না। তাই যা বলতে চাইতেন সবটাই কাগজে লিখে নিয়ে যেতেন।

ট্যাক্সি

এর পর ১৯৯৯ সাল নাগাদ তিনি নিউজিল্যান্ডে চলে আসেন। সেখানে ট্যাক্সি চালাতে শুরু করেন তিনি। অকল্যান্ডের একটি লজে থাকতে শুরু করেন। সেখানেই তার সঙ্গে জন পেগলার নামে এক ব্যক্তির পরিচয় হয়। লজের রিসেপশনে কাজ করতেন জন। তিনি ছিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রাক্তন পুলিশ অফিসার। অবসরের পরে ওই লজে কাজ করতেন মনদীপ।

জনের কাছে এক বার পুলিশ হওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছিলেন মনদীপ। আর সেটাই ছিল তাঁর জীবনের মোড় ঘোরানো মুহূর্ত। সাঁতার শেখানো, দৌড়, নিজেকে ফিট করে তোলার সমস্ত অনুশীলন শুরু হয় তার। জন এবং তার পরিবার ক্রমাগত সাহায্য করতে থাকে মনদীপকে। ২০০২ সালে সন্তানদেরও নিউজিল্যান্ড নিয়ে আসেন মনদীপ। তার দু’বছর কনস্টেবল হিসেবে নিযুক্ত হয়েছিলেন নিউজিল্যান্ড পুলিশে।

ট্যাক্সি

কিন্তু উচ্চাকাঙ্ক্ষা ছিল অফিসার হওয়ার। একাধিক বার পদোন্নতির চেষ্টা বিফল হয়। শেষমেশ একজন সিনিয়র সার্জেন্ট হিসাবে পদোন্নতি হয় তার। তিনিই প্রথম ভারতীয় মহিলা যিনি নিউজিল্যান্ড পুলিশের উচ্চপদে কর্মরত।

নিউজিল্যান্ড পুলিশের উচ্চপদে কর্মরত হিসাবে তিনিই প্রথম ভারতীয় নারী। নিজের হাসিখুশি জীবনকে এক সময়ে ইতিহাস ভাবতে চলা তিনিই আজ বিশ্ব ইতিহাসের পাতায় নাম লিখিয়ে ফেলেছেন।

মনদীপের বয়স এখন ৫২ বছর। তার সন্তানরাও বড় হয়েছে। পাকাপাকিভাবে এখন নিউজিল্যান্ডেই থাকেন তারা।

ভয়েস টিভি/এসএফ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/39446
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ