Printed on Fri Feb 26 2021 4:28:15 AM

ফের বুড়ি তিস্তা দখলের চেষ্টা!

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
সারাদেশ
দখলের
দখলের
নদী যোদ্ধা‌দের দীর্ঘ আ‌ন্দোল‌নের পর প্রাণ ফি‌রে পে‌য়ে‌ছে মরা বু‌ড়ি ‌তিস্তা। সেই সঙ্গে ফি‌রে পে‌য়ে‌ছে তার হারা‌নো যৌবনও। কিন্তু এর স্থায়ীত্ব নেই বললেই চলে। ধী‌রে ধী‌রে নানা কৌশ‌লে বু‌ড়ি ‌তিস্তা‌কে দখলের অপ‌চেষ্টা চালা‌চ্ছে এক‌টি চক্র। এভা‌বে চল‌তে থাক‌লে অল্প সময়ের ম‌ধ্যেই নাব‌্যতা হা‌রি‌য়ে আবা‌রও দখলদারদের কব‌লে চ‌লে যা‌বে বলে অভিমত সূ‌ধিজ‌নদের।

জানা গে‌ছে, ১৯৮৮ সালের ভয়াবহ বন্যায় জেলার উ‌লিপুর উপ‌জেলার থেতরাই ইউনিয়নের গোড়াইপিয়ারে নি‌র্মিত স্লুইস গেট‌টি তিস্তা নদীর গ‌র্ভে চ‌লে যায়। প‌রে পানি উন্নয়ন বোর্ড অপরিকল্পিত ভাবে বুড়ি তিস্তার উৎস মুখে বাঁধ নির্মাণ করেন। ফলে নদীর স্বাভাবিক পানি প্রবাহ বন্ধ হয়। এছাড়া দখল আর দূষণে প্রমত্তা বুড়ি তিস্তা মরা খালে পরিণত হয়।

এরপর মরা নদীর প্রাণ ফি‌রে পে‌তে উলিপুর প্রেসক্লাব এবং রেল, নৌ যোগাযোগ ও পরিবেশ উন্নয়ন গণ কমিটি ‘বুড়িতিস্তা বাঁচাও, উলিপুর বাঁচাও’ আ‌ন্দোল‌ন গ‌ড়ে তোলেন। নদীর উপর অ‌বৈধ স্থাপনা উচ্ছেদসহ স্বাভাবিক পা‌নি প্রবাহ ফি‌রে পে‌তে বিভিন্ন কর্মসূ‌চি পালন ক‌রেন নদী যোদ্ধারা।

সরকার দেশব্যাপী ছোট নদী খননের উদ্যোগ নিলে ডেল্টা প্লানের মাধ‌্যমে বুড়ি তিস্তাকেও খনন প্রকল্পের আওতায় আনেন। প্রায় ১৭ কো‌টি টাকা ব‌্যয়ে গত বছ‌রের মার্চে ৩১ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য ও ৮০ ফুট প্রস্থ নদীটির খনন কাজ শুরু হ‌য়। খনন শেসে প্রাণ ফি‌রে পায় মরা নদীটি। কিন্ত সেই নদীর স্বাভাবিক পা‌নি প্রবাহে প্রতিবন্ধকতা সৃ‌ষ্টি ক‌রে আবারও দখ‌লের পায়তারা করছেন একটি মহল।

স‌রিজমি‌নে গিয়ে দেখা গেছে, পৌরশহরের নারিকেল বাড়ি তেলিপাড়া, পাগলা কুড়া, কা‌জির চক, খামার, চরপাড়া এলাকার বি‌ভিন্ন জায়গায় নদীর পাড়ের অংশ কে‌টে সমতল ভূ‌মি‌তে প‌রিণত কর‌া হচ্ছে। আবার কেউ পাড়ের মা‌টি কে‌টে নি‌য়ে গে‌ছে।

দখলের

নদীর স্বাভা‌বিক পা‌নি প্রবাহ বন্ধ ক‌রে বাঁশ আর জা‌লের ঘের দি‌য়ে মাছ চাষ করতেও দেখা গে‌ছে। ফ‌লে বু‌ড়ি‌তিস্তার স্বাভা‌বিক পা‌নি প্রবাহে প্রতিবন্ধকতা সৃ‌ষ্টি হয়েছে। এছাড়া নদীর গুনাইগাছ ব্রিজ পয়েন্টে আবর্জনা ফেলে পরিবেশ দূষণের অপচেষ্টা চালা‌নো হ‌চ্ছে।

কা‌জির চক এলাকার বা‌সিন্দা মহ‌সিন আলী ব‌লেন, পুকুর শু‌কি‌য়ে গে‌ছে। তাই বু‌ড়ি‌তিস্তা নদী‌তে ঘের দি‌য়ে মাছ চাষ কর‌া হচ্ছে। এসময় একই এলাকার ফজল উ‌দ্দিন‌কে নদীর পাড় কাট‌তে দেখা যায়। এ বিষয়ে জান‌তে চাই‌লে তি‌নি কিছু না জা‌নি‌য়ে পাশ কে‌টে চ‌লে যান।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, এভা‌বে নদীর পাড় কাট‌লে বর্ষা মৌসু‌মে অনায়া‌সে লোকাল‌য়ে পা‌নি ঢু‌কে বন‌্যা পরিস্থিতির সৃ‌ষ্টি হবে। যে যার মত নদীটি‌কে ব‌্যবহার ক‌রে যা‌চ্ছে। এভা‌বে চল‌তে থাক‌লে নদী আবারও মরা খালে পরিণত হবে।

রেল, নৌ যোগাযোগ ও পরিবেশ উন্নয়ন গণ কমিটির উ‌লিপুর শাখার সভাপ‌তি আপন আলমগীর ব‌লেন, বুড়িতিস্তা নদীর পৌরসভার অংশটুকু অধিগ্রহণ না থাকায় একটি চক্র আবারও নদী দখলে অপচেষ্টা চালাচ্ছে। দ্রুত সব প্রতিবন্ধকতা দুর করে নদীটির আপন গতিতে ফিরিয়ে আনতে কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

তিস্তা নদী রক্ষা ক‌মি‌টির কু‌ড়িগ্রাম সভাপ‌তি ও উ‌লিপুর প্রেসক্লা‌বের সা‌বেক সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরদার বলেন, এভাবে আবারও নদী দখল হতে থাকলে, সরকারের সব প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যাবে। দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জণ্যে প্রশাসনের  হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

কু‌ড়িগ্রাম পা‌নি উন্নয়ন বো‌র্ডের নির্বাহী প্রকে‌ৗশলী আ‌রিফুল ইসলাম ব‌লেন, বুড়িতিস্তা নদীর পৌর এলাকায় অধিগ্রহণে আইনি জটিলতা থাকায় তাৎক্ষনিক পদক্ষেপ নেয়ার সুযোগ নেই। স্থানীয় প্রশাসনকে বিষয়টি অবহিত করা হবে।

ভয়েস টিভি/এমএইচ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/30716
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ