Printed on Fri Mar 05 2021 5:10:08 PM

নড়াইল বাস টার্মিনাল এখন ময়লার ভাগাড়, দুর্ভোগ চরমে

নড়াইল প্রতিনিধি
সারাদেশ
নড়াইল
নড়াইল
প্রথমে দেখলেই যে কারও মনে হতে পারে এটি কোনো ময়লা-আবর্জনা রাখার নির্ধারিত স্থান। প্রকৃতপক্ষে তা নয়; এটি নড়াইল পৌরসভার নতুন বাস টার্মিনাল। আপনাকে ময়লা-আবর্জনার দুর্গন্ধ দিয়ে এভাবেই স্বাগত জানাবে।

বাস টার্মিনালটি এখন ময়লার ভাগাড়ে পরিনত হয়েছে। বছরের পর বছর এই বাস টার্মিনালটি ব্যবহার না করায় শহরের বিভিন্ন স্থানে রাস্তার পাশে যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং করায় শহরে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে, নড়াইল শহরকে যানজট মুক্ত রাখার জন্যে শহর থেকে দুই কিলোমিটার দুরে নড়াইল-যশোর সড়কের ভাদুলি ডাঙ্গা এলাকায় ২০০৫ সালে নতুন বাস টার্মিনাল নির্মান করা হয়। টার্মিনালটি নির্মাণের পর দুই বছর যথাযথ ব্যবহার পর অকেজো হয়ে যায়। গত ১০ বছর ধরে এই টার্মিনালে কোনো সংস্কার না করায় দিন দিন এটি ব্যাবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়ছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, টার্মিনালের মূল ভবনের বিভিন্ন স্থানে ফাটল ধরতে শুরু করেছে। দীর্ঘদিন রং না করায় ভবনের চেহারা পালটে গেছে। গাড়ি পার্কিং এর নির্দিষ্ট জায়গায় ছোট-বড় গর্ত হয়ে গেছে। টার্মিনালের ভেতরে কয়েকটি নষ্ট বাস ট্রাকে রিপিয়ারের কাজ করছে। দেখে মনে হচ্ছে এটি একটি গাড়ি রিপিয়ার করার বড় গ্যারেজ।

ভিতরে বিভিন্ন স্থানে ১০-১২টি গরু চরানো হচ্ছে। হঠাৎ দেখলে মনে হবে এটি একটি গরুর খামার। টার্মিনালের ভেতরে মূল গেটে পৌরসভার ময়লা ফেলছে কয়েকজন পরিচ্ছন্ন কর্মী।

টার্মিনালে বসে থাকা এক বাস সহকারী রতন জানান, এখানে ১০ মিনিটও বসে থাকা যায় না। প্রতিদিন ভ্যানে এবং গাড়িতে পৌর এলাকার ময়লা এনে ফেলা হচ্ছে। দূর্গন্ধে বাতাস ভারি হয়ে উঠছে। এলাকার বিভিন্ন স্থানে বাতাসে ছড়িয়ে পড়ছে এই গন্ধ।

এক বাস চালক প্রতিদিন জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে মেইন রোডের পাশে গাড়ি পার্কিং করেন। তিনি জানায়, নতুন বাস টার্মিনালে গন্ধে যাওয়া যায় না। তাই বাধ্য হয়ে রাস্তার পাশে অবৈধ্য পার্কিং করতে হয়।

শহরের ভ্যান চালক ইব্রাহিম এবং অটোরিকশা চালক রমজান আলী জানান, শহরে বড় বাসটার্মিনাল থাকলেও সেটি ব্যাবহার করে না গাড়ির মালিকরা। যত্রযত্র রাস্তার পাশে গাড়ি পার্কিং করে রাখায় শহরে যানজট লেগে থাকে।

সদর হাসপাতালের চিকিৎসক আফম মশিউর রহমান বাবু বলেন, শহরের জনবহুল খোলা স্থানে পৌর কর্তৃপক্ষ ময়লা অবর্জনা ফেলছে। এখান থেকে মশা উৎপাদন হচ্ছে। আর মাছি ময়লার উপর বসে সহজে বাসা-বাড়িতে গিয়ে খাবারের উপর পড়ছে আর মানুষের পেটের পিড়াসহ বিভিন্ন রোগ হচ্ছে। শহরের বাইরে কোনো নির্দিষ্টস্থানে ময়লা আবর্জনা রাখার ব্যবস্থা করার দাবি জানান তিনি।

নড়াইল বাস মিনি বাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সাদেক আহম্মেদ খান জানান, বাস টার্মিনাল এলাকায় বর্জ্য ফেলার বিষয়ে পূর্বের জেলা প্রশাসক এবং বর্তমান জেলা প্রসাশক ও মেয়রকে একাধিক বার বলেছি। কিন্ত এখন পর্যন্ত বিষয়টির কোনো সুরাহা হয়নি। পৌর টার্মিনালের দীর্ঘদিন কোন সংস্কার কাজ করা হয় না। এটিকে দ্রুত সংস্কার করে এবং ময়লা ফেলা বন্ধ করে ব্যবহার যোগ্য করা দরকার।

নড়াইল পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র রেজাউল বিশ্বাস অস্থায়ীভাবে নতুন বাসটার্মিনাল এলাকায় বর্জ্য ফেলার বিষয়ে বলেন, ওই স্থানটি ময়লা অবর্জ্যনা ফেলে ভরাট করা হচ্ছে। দ্রুতই নতুন স্থান নির্ধারণা করে সেখানে ময়লা অবর্জনা ফেলার ব্যবস্থা করা হবে।

আরও পড়ুন : ১০৯ কেজি গাঁজাসহ আটক ১

ভয়েস টিভি/এমএইচ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/34295
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ