Printed on Mon Jul 26 2021 5:28:25 AM

ক্যাশ-ইনচার্জ একাই গায়েব করেছেন পৌনে চার কোটি টাকা!

নিজস্ব প্রতিবেদক
অর্থনীতিজাতীয়
পৌনে চার
পৌনে চার
ঢাকা ব্যাংকের বংশাল শাখার ভল্ট থেকে ক্যাশ ইনচার্জ একাই সরিয়েছেন পৌনে ৪ কোটি টাকা। প্রাথমিকভাবে ক্যাশ-ইনচার্জ রিফাজুল হক একাই তিন কোটি ৭৭ লাখ ৬৬ হাজার টাকা গায়েব করেছেন বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন। এমনটাই জানালেন ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এমরানুল হক।

এদিকে এ ঘটনায় ব্যাংকটির বংশাল ব্রাঞ্চের ক্যাশ-ইনচার্জ রিফাজুল হক, ম্যানেজার (অপারেশন) এমরান আহমেদকে আটক করেছে পুলিশ। ভল্টের চাবি ওই দুই কর্মকর্তার কাছে থাকায় ব্যাংকের নিয়মানুযায়ী তাদেরকেই পুলিশে সপোর্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ব্যাংকের জনসংযোগ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান। তিনি বলেন, শুধুমাত্র তদন্ত ও জিজ্ঞাসাবাদের স্বার্থেই তাদেরকে পুলিশে সপোর্দ করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত কারও বিরুদ্ধে চুরি বা অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়নি।

১৮ জুন শুক্রবার দুপুরে বংশাল থানার ডিউটি অফিসার এসআই মাসুম বিল্লাহ আটকের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ঢাকা ব্যাংকের জনসংযোগ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, ব্যাংকের নিয়মানুযায়ী প্রতিদিনের লেনদেন শেষে ভল্টের টাকার হিসাব করে থাকেন সংশ্লিষ্ট শাখার সিনিয়ার ক্যাশ ইনচার্জ। বৃহস্পতিবার হিসাব করতে গিয়ে ওই কর্মকর্তা প্রায় চার কোটি টাকার গড়মিল পান। এরপর তিনি এ সংক্রান্ত কাগজপত্র ব্যাংকের ম্যানেজার অপারেশন্সকে জানানো হলে পুনরায় হিসাব করা হয়। সেখানেও হিসাবে টাকার অংক কম আসায় বিষয়টি ব্যাংক ম্যানেজারকে জানানো হয়। পরে ব্যাংকের নিয়মানুযায়ী তিনি পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন বলছেন ব্যাংকটির জনসংযোগ কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে ঢাকা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এমরানুল হক বলেন, বৃহস্পতিবার ব্যাংকের শাখায় আমাদের ইন্টারনাল অডিট হয়। এরপরই টাকার অংকে অসঙ্গতি দেখা যায়। ক্যাশ কম পাওয়ায় আবারও ইনভেস্টিগেশন করা হয়। পৌনে চার কোটি টাকার মত কম ছিল। এরপর দায়িত্বে থাকা ক্যাশ-ইনচার্জের কাছে জানতে চাইলে তিনি প্রাথমিকভাবে ক্যাশ সরিয়ে ফেলার বিষয় স্বীকার করেন। এ কাজটি তিনি একাই করেছেন বলে জানিয়েছেন ক্যাশ-ইনচার্জ রিফাজুল হক। কী জন্য এই টাকা সরিয়েছেন তা এখনও তিনি জানাননি।

এমডি জানান, পরবর্তীতে আমরা নিয়ম অনুযায়ী লিগ্যাল প্রসেসে ব্যবস্থা নিয়েছি। যেহেতু দুজন দায়িত্বে ছিলেন তাই ক্যাশ-ইনচার্জ ও ম্যানেজার (অপারেশন) দুজনকে পুলিশে সোপর্দ করেছি। এখন সংশ্লিষ্ট সংস্থা তদন্ত করে বলতে পারবে কিভাবে ও কী জন্য এ টাকা সরানো হয়েছে।

এ বিষয়ে ডিএমপির লালবাগ বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার মো. জসিম উদ্দিন মোল্লা বলেন, ঢাকা ব্যাংকের বংশাল শাখা ম্যানেজার আবু বক্কর সিদ্দিক তাদের দুই কর্মকর্তাকে থানায় সোপর্দ করেছেন বৃহস্পতিবার রাতে। তার অভিযোগ ছিল, অডিটের মাধ্যমে তারা জানতে পেরেছেন ব্যাংকের ভল্ট থেকে তিন কোটি ৭৭ লাখ ৬৬ হাজার টাকা এই দুই কর্মকর্তা আত্মসাৎ করেছেন। আমরা আটক দুই কর্মকর্তাকে ৫৪ ধারায় আদালতে পাঠিয়েছি। আইনগত যে প্রক্রিয়া আছে সেটা আমরা এখন করছি।

ভয়েস টিভি/এসএফ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/47105
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ