Printed on Thu Sep 23 2021 11:09:17 AM

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের লড়াকু সংগ্রহ

স্পোর্টস ডেস্ক
খেলার খবর
বাংলাদেশের লড়াকু সংগ্রহ
বাংলাদেশের লড়াকু সংগ্রহ
শুরুটা হয়েছিল দুঃস্বপ্নের মতো। দ্রুতই ফিরে যান তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান। মোহাম্মদ মিঠুন ভালো শুরুর পরও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। এরপর উইকেট বিলিয়ে ফেরেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতও। ধুঁকতে থাকা বাংলাদেশকে পথ হারাতে দেননি লিটন কুমার দাস। পরে তার সঙ্গে যোগ দিয়ে ইনিংস বড় করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

তাদের ৯৩ এই রানের জুটিতে ভিত পেয়ে যাওয়া বাংলাদেশ পরে আফিফ হোসেন ও মেহেদী হাসান মিরাজের ব্যাটে আগায়। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৯ উইকেটে ২৭৬ রান তুলেছে তামিম ইকবালের দল।

লিটন ১১৪ বলে ৮টি চারে ১০২ রানের মহাকার্যকর এক ইনিংস খেলেন। এ ছাড়া সাকিব ১৯, মিঠুন ১৯, মাহমুদউল্লাহ ৩৩, আফিফ ৪৫ ও মিরাজ ২৬ রান করেন। লুক জঙ্গুয়ে ৩টি উইকেট নেন। এ ছাড়া ব্লেসিং মুজারাবানি ও রিচার্ড এনগাভারা ২টি করে উইকেট নেন।

গত বছর মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে রেকর্ড গড়া ১৭৬ রানের ইনিংস খেলার পর ওয়ানডেতে রান করতে যেন ভুলে গেছেন লিটন। ছবি: সংগৃহীত
অবশেষে ব্যাট হাতে ঝলমলে লিটন কুমার দাসের দেখা মিললো। ব্যর্থতার বৃত্তে বন্দি হয়ে পড়া ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান খেললেন অসাধারণ এক ইনিংস। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে দলের দুঃসময়ে হাল ধরা লিটন তুলে নিলেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের চতুর্থ সেঞ্চুরি।

সেঞ্চুরির পর আর ব্যাট চালানো হয়নি তার। ১১৪ বলে ৮টি চারে ১০২ রান করে আউট হন বাংলাদেশ ওপেনার। ২০২০ সালের মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১৭৬ রানের ইনিংস খেলার পর এটাই লিটনের সবচেয়ে বড় ইনিংস। মাঝে আট ইনিংসে তেমন কিছুই করতে পারেননি তিনি।

আফিফ হোসেন ধ্রুব ও মেহেদী হাসান মিরাজের ব্যাটে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ৪৫ ওভার শেষে ৬ উইকেটে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২২৮ রান। আফিফ ২৬ ও মিরাজ ১৩ রানে ব্যাটিং করছেন।এই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই নিজের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসটি খেলেছিলেন লিটন কুমার দাস। ২০২০ সালে মার্চে সিলেটে ১৭৬ রানের রেকর্ড গড়া সেই ইনিংসের পর নিজেকে হারিয়ে বসেছিলেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। টানা ৮ ইনিংসে ব্যর্থ ছিলেন তিনি। দল থেকে বাদও পড়তে হয়েছিল তাকে। অবশেষে ছন্দ ফিরে পেলেন লিটন।

দলের দুঃসময়ে হাসলো তার ব্যাট। জিম্বাবুয়ে সফরে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে দ্রুত উইকেট হারিয়ে দল যখন খাদের কিনারে, তখন কাণ্ডারি হয়ে দেখা দিলেন লিটন। স্রোতের বিপরীতে ব্যাটিং করে বাংলাদেশের এই ব্যাটসম্যান তুলে নিলেন ওয়ানডের চতুর্থ হাফ সেঞ্চুরি।

লিটনের সঙ্গে দায়িত্বশীল ব্যাটিং করে যাচ্ছেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট খেলে ক্রিকেটের দীর্ঘতম ফরম্যাটকে বিদায় জানানো মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। পঞ্চম উইকেটে ইতোমধ্যে ৯০ রানের জুটি গড়েছেন লিটন-মাহমুদউল্লাহ।

তাদের ব্যাটিংয়ে ৩৫ ওভার শেষে ৪ উইকেটে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৬৪ রান। লিটন ৭৯ ও মাহমুদউল্লাহ ৩২ রানে ব্যাটিং করছেন।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে তামিম-সাকিবের পর মিঠুনও সাজঘরে। দলের এমন বিপদের সময় জোর করে আউট হয়ে ফিরলেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। অফ স্টাম্পের অনেক বাইরের বলে দেরিতে ব্যাট চালিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। ১৫ বল খেলে ৫ রান করেন তিনি।

২৩ ওভার শেষে ৪ উইকেটে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৯০ রান। লিটন দাস ৩৪ ও মাহমুদউল্লাহ ৬ রানে ব্যাটিং করছেন। মোসাদ্দেকের আগে ১৯ রান করে থামেন মোহাম্মদ মিঠুন।

দল না পারলেও সাবলীল শুরু করেছিলেন মোহাম্মদ মিঠুন। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানকে দেখে মনে হচ্ছিল না যে, তাকে রান তুলতে লড়াই করতে হচ্ছে। কিন্তু তার এই পথচলা দীর্ঘ হলো না। ১৯ রান করে সাজঘরে ফিরেছেন মিঠুন। টেন্ডাই চাতারার বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন তিনি।

১৫ ওভার শেষে ৩ উইকেটে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৬২ রান। লিটন কুমার দাস ১৬ ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ১ রানে ব্যাটিং করছেন। এর আগে সাকিব আল হাসান ১৯ রান করে আউট হন। অধিনায়ক তামিম ইকবাল রানের খাতাই খুলতে পারেননি।

সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ব্লেসিং মুজারাবানির বোলিংয়ের বিপক্ষে ধুঁকছে বাংলাদেশ। হারারে স্পোর্টস ক্লাবে তামিম ইকবালকে ফেরানোর পর সাকিব আল হাসানকেও টিকতে দিলেন না জিম্বাবুয়ের ডানহাতি এই পেসার। ২৫ বলে ১৯ রান করে বিদায় নিয়েছেন সাকিব।

দীর্ঘদিন ধরে ব্যর্থতার বৃত্তে বন্দী হয়ে থাকা সাকিব একটি সহজ ডেলিভারিতে নিজের উইকেট বিলিয়ে আসেন। অফ স্টাম্পের বাইরের একটি শট ডেলিভারি কাট করতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দেন দিনি।

নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে লিটনের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এক ম্যাচ খেলে বাদ পড়া মোহাম্মদ মিঠুন। লিটন দাস ৭ ও মিঠুন ৫ রানে ব্যাটিং করছেন। ১০ ওভার শেষে ২ উইকেটে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৮ রান।

সিরিজের একমাত্র টেস্টে শুরুতেই বাংলাদেশের ইনিংস এলোমেলো করে দিয়েছিলেন ব্লেসিং মুজারাবানি। ওয়ানডেতেও একইভাবে শুরু করলেন জিম্বাবুয়ের ডানহাতি এই পেসার। আগুনঝরা বোলিংয়ে শুরুতেই তামিম ইকবালকে ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি।

মুজারাবানির একটি লেংন্থ বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন তামিম। জিম্বাবুয়ে পেসারের করা ইনিংসের প্রথম ওভারে তামিমকে কঠিন পরীক্ষা দিতে হয়। বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক পুরো ওভার খেললেও মাত্র একটি ডেলিভারিতে ব্যাটে-বলে করতে পারেন।

মুজারাবানির দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই পরাস্ত হন তামিম। ৭ বল খেলেও রানের খাতা খুলতে পারেননি তিনি। ৪ ওভার শেষে ১ উইকেটে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৩ রান। লিটন কুমার দাস ১ ও সাকিব আল হাসান ৭ রানে ব্যাটিং করছেন।

ভয়েস টিভি / আইএ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/49048
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ