Printed on Sat Nov 28 2020 5:10:57 AM

বিজিবিকে আজ থেকে ত্রিমাত্রিক বাহিনী : প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
জাতীয়
বিজিবিকে আজ থেকে
বিজিবিকে আজ থেকে
একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বিজিবিকে একটি বিশ্বমানের আধুনিক সীমান্তরক্ষী বাহিনী হিসেবে রূপান্তরের লক্ষে ‘বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ভিশন ২০৪১ এর পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় ৮ নভেম্বর রোববার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে বিজিবি এয়ার উইং-এর দুটি অত্যাধুনিক এমআই ১৭১ ই হেলিকপ্টার ‘বীর শ্রেষ্ঠ নুর মোহাম্মদ এবং ‘বীর শ্রেষ্ঠ আব্দুর রউফ’ এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রী সীমান্ত সুরক্ষায় নিয়োজিত এই বাহিনীকে ত্রিমাত্রিক বাহিনী হিসেবে ঘোষণা করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আজ থেকে বিজিবি দেশ মাতৃকার সীমান্ত এবং সার্বভৌমত্ব রক্ষার পাশাপাশি অর্পিত দায়িত্ব পালনের লক্ষে জলে, স্থলে ও আকাশপথে বিচরণ করবে। বিজিবি এখন অন্যান্য বাহিনীর মতো ত্রিমাত্রিক বাহিনীতে উন্নীত হয়েছে। ২টি হেলিকপ্টার উদ্বোধনের মাধ্যমে আমি আজ বিজিবিকে একটি ত্রিমাত্রিক বাহিনী হিসেবে ঘোষণা করছি। আজকে থেকে বিজিবি ত্রিমাত্রিক বাহিনী।

২০১৬ সালের মে মাসে বিজিবি এয়ার উইং এর কার্যক্রম শুরু হয় এবং ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে বিজিবির জন্য রুশ প্রজাতন্ত্র হতে ২টি অত্যাধুনিক এমআই-১৭১-ই হেলিকপ্টার ক্রয় করা হয়। নজরদারি বাড়ানো ও সক্ষমতা বৃদ্ধি করতে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) পেলো দুটি হেলিকপ্টার। সীমান্তপথে সব ধরনের মাদকের অনুপ্রবেশ বন্ধে ও জরুরি প্রয়োজনে হেলিকপ্টার দুটি টহলে থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এদেশের গরীব, দুঃখী ও মেহনতি মানুষের মুখে হাসি ফুটিয়ে একটি সুখী, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন। জাতির জনকের স্বপ্ন পূরণে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ তার ঐতিহ্য সমুন্নত রেখে সামনের দিকে এগিয়ে যাবে এবং একদিন বিশ্বের শ্রেষ্ঠতম সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মর্যাদা লাভ করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। পরিশেষে বিজিবি’র অব্যাহত উন্নয়ন, সমৃদ্ধি এবং সফলতা কামনা করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিজিবি এয়ার উইং এর দুটি হেলিকপ্টার ‘বীরশ্রেষ্ঠ নুর মোহাম্মদ’ এবং ‘বীরশ্রেষ্ঠ আব্দুর রউফ’ এর শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ভবিষ্যতে দেশের সব সীমান্তে সব ধরনের মাদকের অনুপ্রবেশ বন্ধে ভিশন-২০৪১ এর বিজিবির ১৬৮টি নতুন বিওপি সব সীমান্তে বর্ডার সার্ভেইল্যান্স সিস্টেম এবং সীমান্ত সড়ক নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে। সীমান্তে নদীপথ রয়েছে, বিশেষ করে টেকনাফ ও সুন্দরবন অঞ্চলে বিজিবির জন্য চারটি অত্যাধুনিক হাইস্পিড ইঞ্জিনবোট কেনা হয়েছে।

বিজিবি সদর দফতরে আরও উপস্থিত ছিলেন- স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন, বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম ও বিজিবির সর্বস্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

ভয়েসটিভি/এএস
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/22158
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2020 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ