Printed on Sun Jun 26 2022 9:30:08 PM

‘দ্য ডার্টি পিকচার’ ও একজন ভারত জয়ী বিদ্যা বালান (ভিডিও)

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদনভিডিও সংবাদ
বিদ্যা বালান
বিদ্যা বালান
একসময় নিজের চেহারা নিয়ে শুনতে হয়েছিল তাকে অনেক কটূক্তি, যা রীতিমতো আত্মবিশ্বাস ভাঙ্গার পর্যায়ে চলে গিয়েছিল। তাও নিজের মনকে হারতে দেননি, সবরকম প্রতিকূলতাকে জয় করেছিলেন তিনি।

অসাধারণ অভিনয়ের দক্ষতার জোরে এখন তিনি সুপ্রতিষ্ঠিত, শুধু তাই নয় গোটা বিশ্বের কাছে তিনি সুপরিচিত একজন ‘হুনহার’ অভিনেত্রী।

বলছিলাম দর্শকদের কাছে মিস্টি মেয়ে হিসেবে পরিচিতি বলিউড অভিনেত্রী বিদ্যা বালানের কথা। চরিত্রের প্রয়োজনে যে মিস্টি মেয়েটিও সাহসী ও স্বল্প বসনা হতে পারেন তা ‘দ্য ডার্টি পিকচার’ ছবিতে দেখিয়েছিলেন বিদ্যা।

তার মতে, অভিনয়ের ক্ষেত্রে লজ্জা-শরম রাখা যাবে না। মনের মাঝে শঙ্কা রাখা যাবেনা। হতে হবে ভয়-ডরহীন। সব সময় ফুরফুরে থাকতে হবে।

৮০-র দশকের দক্ষিণ ভারতের ‘হিট অ্যান্ড হট' নায়িকা সিল্ক স্মিতার জীবন থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে বলিউডে নির্মিত হয় ‘দ্য ডার্টি পিকচার’। সিনেমায় সিল্ক স্মিতার চরিত্রে অভিনয় করে বিদ্যা বালান জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।

‘দ্য ডার্টি পিকচার’ সিনেমায় নিজের অবস্থানের শুরু এবং শেষ নিয়ে ভারতীয় এক গণমাধ্যমে সম্প্রতি আলোচনা করেছেন বিদ্যা।

জানিয়েছেন সিল্ক স্মিতা হতে গিয়ে তার ভালো-মন্দ অভিজ্ঞতার কথা।

বিদ্যা বলেন, আমার কোনো আপত্তি ছিল না ‘দ্য ডার্টি পিকচার’ সিনেমাটি করার বিষয়ে। আমার মনে হচ্ছিল এই চরিত্রটি আমাকে অনেক কিছুই উপহার দেবে। আমি যখন মিলানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছি তখন সে আমার প্রতি তার বিশ্বাসের কথা জানিয়েছিল।

যা আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা দিয়েছে। তার কাজের প্রতি আমার ধারণা আগে থেকেই ছিল। তাই আমি জানতাম এটি কোনো সস্তা কাজ হবে না।

এছাড়াও একতা কাপুরও ছিলেন এই সিনেমার সঙ্গে। আমার ক্যারিয়ারও শুরু হয় তার হাত ধরে। সুতরাং আমি নির্ভার ছিলাম।

ওই সিনেমাতে কাজ করা ছাড়া দ্বিতীয় কোনো চিন্তা মাথায় আসেনি সেই সময়।

বিতর্কিত ও খোলামেলা স্বভাবের সিল্ক স্মিতার চরিত্রে বিনয়ী-ভদ্র স্বভাবের বিদ্যাকে মানতেই পারছিলেন না কেউ। শুধুমাত্র বাবা-মা পাশে থাকার হাতটা বাড়িয়েছিলেন তখন।

তার বাবা-মা তাকে তার অন্তর্দৃষ্টি অনুসরণ করতে বলেছিলেন। এ নিয়ে বিদ্যা বলেন, আমার মনে আছে সেই সময় বাবা-মায়ের সঙ্গে কথা বলেছি এবং আমি তাদের জিজ্ঞাসা করেছি আমার কি এটি করা উচিত?

বাবা-মা পুরো ব্যাপারটি সম্পূর্ণ আমার ওপর ছেড়ে দিয়েছিলেন। তারা বলেছিল যে, ‘যা ঠিক মনে হয় তা করো’।

বিদ্যা বালান মানেই যেন শাড়ি। বলিউডে তার মতো শাড়িপ্রেমী অভিনেত্রী খুব একটা দেখা যায় না। চলচ্চিত্র কিংবা উৎসব শাড়িই তাঁর প্রথম পছন্দ। এর কারণ একটাই তার মোটা শরীর।

তাই শরীর নিয়ে তাই তাকে কটু কথা শুনতে হয়েছে, হচ্ছে। বিদ্যার কথা, ওসবে পাত্তা দিতে নেই।

বিদ্যা তার শরীর নিয়ে যেসব কটাক্ষ শুনেছেন সে প্রসঙ্গে বলেন, ‘একটা মোটা মেয়ে হিসেবে বড় হওয়া, ক্যারিয়ার গড়া যে কত কঠিন, তা আমি হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছি। “মোটা” শরীরের জন্য বারবার আমাকে কটুকথা শুনতে হয়েছে।

আর আমি প্রতিবার ক্ষুদ্র থেকে ক্ষুদ্রতর হয়ে গেছি। দীর্ঘ সময় ধরে আমি আমার শরীরকে ঘৃণা করেছি। আমি ক্রাশ ডায়েট করেছি। প্রতিদিন আড়াই ঘণ্টা করে জিম করেছি, পাতলা হয়েছি।

‘লাগে রাহো মুন্না ভাই’, ‘ভুল ভুলাইয়া’, ‘হেই বেবি’, ‘কিসমত কানেকশন’, ‘পা’ সিনেমাগুলো করেছি। সিনেমা হিটও হয়েছে। সিনেমার প্রশংসা শেষে আমার বেলা এলেই লেখা হচ্ছিল, “ওর শরীর সুন্দর না”।

তারপর আমি সাময়িকী পড়া বন্ধ করে দিলাম। নিজেকে অন্যের চোখে দেখা বন্ধ করলাম। এভাবে জীবন বদলে গেল।’
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/51116
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ