Printed on Sun Mar 07 2021 3:25:30 AM

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হচ্ছেন সেলিম খান

নিজস্ব প্রতিবেদক
রাজনীতিসারাদেশভিডিও সংবাদ
বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়
বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়
বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন চাঁদপুর সদরের ১০ নং লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও এক দশকের সফল চেয়ারম্যান মো. সেলিম খান। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্বও সফলতার সঙ্গে পালন করে আসছেন।

নির্বাচন কমিশন সুত্রে জানাযায়, তফসিল অনুযায়ী ৩ ফেব্রুয়ারি বুধবার মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন ছিলো। এ সময়ের মধ্যে চেয়রম্যান পদে অন্য কোনো প্রার্থী মনোনয়ন জমা দেননি। তাই ৪ ফেব্রুয়ারি প্রার্থিতা যাচাই-বাছাই বৈধ হলে  ও ১১ ফেব্রুয়ারি প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় শেষ হলে স্বাভাবিক নিয়মেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষনা করা হবে মোঃ সেলিম খানকে ।

চলচ্চিত্র অঙ্গনের প্রখ্যাত প্রযোজক, পরিচালক ও শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার মো. সেলিম খান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হচ্ছেন।

এর আগে, দুপুর ১২টার দিকে চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেনের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন জনপ্রিয় এ আওয়ামী লীগ নেতা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলী আশ্বাদ মিজি ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আশ্বাদ মিয়াজী। মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিনে এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১ জন ও ইউপি সদস্য পদে ১২ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

গত ৩০ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ড সেলিম খানকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত করে

এর পরদিন ৩১ জানুয়ারি তিনি ঢাকা থেকে এলাকায় পৌঁছালে দলীয় নেতাকর্মীসহ হাজারও জনতা তাকে ফুল দিয়ে অভিনন্দন জানান। জনতার ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে সেদিন সেলিম খান এলাকার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন।

লক্ষীপুর ইউপিতে

এর আগে ২০১৬ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন পান বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. সেলিম খান। শেষ মুহূর্তে সীমানা জটিলতায় উচ্চ আদালতের আদেশে নির্বাচন স্থগিত হয়ে যায়।

মো. সেলিম খান জানান, ২০১১ সালে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্থানীয় আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী হিসেবে অংশ নিয়ে বিএনপির দাপুটে নেতা ও একাধিকবারের চেয়ারম্যানকে বিপুল ভোটে পরাজিত করে নির্বাচিত হন। এছাড়া ২০০৩ সালের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে স্থানীয় আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করেন।

প্রহসনের সেই নির্বাচনে তিনি জয়ী হলেও রাতের অন্ধকারে তৎকালীন ইউএনও অফিসে ফলাফল শিট পাল্টে অল্প কিছু ভোটে পরাজিত দেখানো হয়।

এদিকে গত ১৯ জানুয়ারি মঙ্গলবার লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় নয়টি ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা মো. সেলিম খানকে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে সমর্থন করেন। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি এই ইউনিয়ন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়া কথা রয়েছে।

ঘোষিত তফসিলে মনোনয়ন জমা দেয়ার শেষ তারিখ ছিলো ৩ ফেব্রুয়ারি, প্রার্থিতা যাচাই-বাছাই ৪ ফেব্রুয়ারি ও প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১১ ফেব্রুয়ারি। এ ইউনিয়নে মোট ভোটার প্রায় ৩০ হাজার।

ভয়েস টিভি/ডিএইচ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/34526
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ