Printed on Tue Apr 13 2021 7:20:47 PM

এবার ঢাকার মশা নিধনে ব্যাঙ আমদানি

নিজস্ব প্রতিবেদক
জাতীয়
ব্যাঙ
ব্যাঙ
মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ নগরবাসী। মশা মারতে সিটি করপোরেশনের একের পর এক প্রকল্প ব্যর্থ হচ্ছে। মশা নিধনের ব্যর্থতা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ট্রলও কম হয়নি। সম্প্রতি মশার নিয়ে নগরবাসীর সমালোচনার জবাবে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, নগরাবাসী বলেন, ছোট আতিক আমাদের কামড় দিচ্ছে।’

তবে এবার মশা মারতে ব্যাঙ আমদানি করছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ধরে নিয়ে আসা এসব ব্যাঙ নগরীর বিভিন্ন পুকুর ডোবা ও জলাশয়ে ছেড়ে দেয়া হবে। প্রাথমিকভাবে ডিএসসিসির কয়েকটি জলাশয়ে এরই মধ্যে কিছু ব্যাঙ অবমুক্ত করা হয়েছে।

এর আগে গাপ্পি মাছ, হাঁস চাষ ও ড্রোন ব্যবহার করে মশা নিধনের প্রকল্প ব্যর্থ হয়েছে। তাই কীটতত্ত্ববিদরা বলছেন, এই উদ্যোগ হাস্যকর। কারণ মাছ, হাঁস ও ব্যাঙ চাষ কখনও মশার লার্ভা ধ্বংস করতে পারে না। পৃথিবীর কোনও দেশে এমন নজির নেই।

ডিএসসিসির সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, ঢাকা দক্ষিণের মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করার পরপরই মাছ ও হাঁস চাষের মাধ্যমে নগরীতে মশা নিয়ন্ত্রণের কথা জানান মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। তাই নগরীর বিভিন্ন পুকুরে মাছ ও হাঁস অবমুক্ত করা হয়। কিন্তু কিছুদিন যেতে না যেতেই সেই মাছ ও হাঁস উধাও হয়ে যায়। সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, পুকুর ও জলাশয়ের পানি অতিরিক্ত দূষণের কারণে সেগুলো মারা যায়।

ডিএসসিসির এসব উদ্যোগে যখন কোনোভাবেই মশা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না, তখন এবার নতুন করে নগরীর পুকুর-ডোবাসহ জলাশয়গুলোতে ব্যাঙ অবমুক্ত করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তবে মাত্রাতিরিক্ত দূষণের শিকার পুকুর ও জলাশয়ের পানিতে এই ব্যাঙ কতদিন বাঁচবে তা নিয়ে খোদ সিটি করপোরেশনই শঙ্কা প্রকাশ করেছে। কারণ এর আগে এসব পুকুর ও জলাশয়ে অবমুক্ত করা হাঁস ও মাছ বেশি দিন বাঁচেনি।

এ বিষয়ে ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী বলেন, ‘আমরা মাত্র পরীক্ষামূলক পদক্ষেপ নিয়েছি। আমরা এখন পর্যবেক্ষণ করবো এই ব্যাঙগুলো বাঁচে কিনা। কারণ আমাদের শহরের খাল ও জলাশয়ের পানি যে পরিমাণ দূষিত তাতে ব্যাঙগুলো বাঁচতে নাও পারে। যদি আমরা সফল হই তাহলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবো।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সেন্টার ফর গভর্নেন্স স্টাডিজের (সিজিএস) চেয়ারম্যান ও বিশিষ্ট কীটতত্ত্ববিদ ড. মঞ্জুর আহমেদ চৌধুরী বলেন, ‘মশা দমনের জন্য তারা (ডিএসসিসি) পাতিহাঁস ও তেলাপিয়া মাছ ছেড়ে ছিলেন। নতুন করে ১৫ হাজার ব্যাঙ আমদানি করছেন। এখানে একটা কথা স্পষ্ট- পৃথিবীর কোথাও হাঁস ও ব্যাঙ দিয়ে কখনও মশা নিয়ন্ত্রণ হয়নি, হবেও না। হাঁস ও ব্যাঙের খাবার হচ্ছে অন্য কিছু। তাদের ৯৯ শতাংশ খাবার হচ্ছে বড় খাবার। তারা ঘাস থেকে শুরু করে মাংস পর্যন্ত খায়। এসব উদ্ভট প্ল্যান করে তারা সময় নষ্ট করছে। কিছু কিছু লোক তাদেরকে মদদ দিচ্ছে।’

আরও পড়ুন: এবার ড্রোন দিয়ে মশা মারবে ডিএনসিসি

ভয়েস টিভি/এসএফ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/39193
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ