Printed on Sat Jul 02 2022 6:09:23 PM

ভোটারের উপস্থিতি ভালো, উৎসবমুখর পরিবেশে হচ্ছে ভোট

নিজস্ব প্রতিবেদক
সারাদেশ
ভোটার উপস্থিতি
ভোটার উপস্থিতি
নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনে (নাসিক) ভোট হচ্ছে শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে। গোলযোগবিহীন এ নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতিও তুলনামুলক ভালো বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহফুজা আক্তার। রোববার ১৬ জানুয়ারি দুপুরের দিকে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহফুজা আক্তার আরও বলেন, আমরা বিভিন্ন কেন্দ্রে দেখলাম, কথা বললাম। চার ঘণ্টায় ভালো ভোট কাস্ট হচ্ছে। ভোটারের উপস্থিতিও ভালো রয়েছে। প্রথমদিকে ভোটারদের উপস্থিতি কম ছিল। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে উপস্থিতি বাড়ছে এবং উৎসবমুখর পরিবেশ তৈরি হচ্ছে।

ভোটের শুরুতে উপস্থিতি কম থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে জনসমাগম। শীতের মধ্যেও উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিতে কেন্দ্রে হাজির হন ভোটাররা। তরুণ ভোটার থেকে শুরু করে বয়োজ্যেষ্ঠরা-একে একে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে থাকেন।

এদিকে, ১৬ নং ওয়ার্ডের দেওভোগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করে তৈমুর আলম খন্দকার অভিযোগ করেন, ইভিএমের কারণে ভোট দিতে দেরি হচ্ছে। লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও মানুষ ভোট দিতে পারছেন না। ত্রুটিপূর্ণ মেশিনের কারণে এমন ভোগান্তি হচ্ছে।

অন্যদিকে, আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী শিশুবাগ বিদ্যালয়ের নারীকেন্দ্রে সকাল ১০টা ৪৮ মিনিটের দিকে ভোট দিতে আসেন। ভোট শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের মানুষ নির্ধারণ করে ফেলেছেন আমাকেই ভোট দেবে। ইনশাআল্লাহ, নৌকার জয় হবেই হবে, আইভীর জয় হবেই হবে।

রোববার ১৬ জানুয়ারি সকাল ৮টায় শুরু হওয়া এই ভোট কোনো বিরতি ছাড়া চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। গত ৩০ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেওয়া হয়েছে প্রাচ্যের ড্যান্ডি খ্যাত নারায়ণগঞ্জ নগরীকে। আর এই সিটি করপোরেশনে মেয়র পদে লড়ছেন দুই হ্যাভিওয়েট প্রার্থী। চারবারের নির্বাচিত নারায়ণগঞ্জ পৌর মেয়র চুনকা কন্যা ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী লড়ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকে। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার। হাতি প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন তিনি।

সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং তৈমুর আলম খন্দকারের পাশাপাশি মেয়র পদে আরও পাঁচ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন, খেলাফত মজলিসের এবিএম সিরাজুল মামুন (দেয়াল ঘড়ি), স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. কামরুল ইসলাম (ঘোড়া), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মাওলানা মো. মাছুম বিল্লাহ (হাতপাখা), বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মো. জসীম উদ্দিন (বটগাছ) ও বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মো. রাশেদ ফেরদৌস (হাত ঘড়ি)। একই সঙ্গে ৯টি সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৩৪ জন এবং ২৭টি সাধারণ সদস্য পদে ১৪৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় করছেন।

নাসিক নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১৯২টি। ভোটকক্ষ রয়েছে ১ হাজার ৩৩৩টি। মোট ইভিএম ২ হাজার ৯১২ ইউনিট। স্মার্টবুথ রয়েছে ২টি কেন্দ্র। মডার্ন গার্লস স্কুল (১২৩ ও ১২১ কেন্দ্র), ওয়ার্ড নম্বর- ৬। নাসিকে মোট ভোটার ৫ লাখ ১৭ হাজার ৩৬১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ৫৯ হাজার ৮৪৬ জন। নারী ভোটার ২ লাখ ৫৭ হাজার ৫১১ জন এবং হিজড়া ভোটার রয়েছে ৪ জন।

ভয়েসটিভি/এমএম
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/63445
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ