Printed on Tue Jun 28 2022 5:13:26 AM

ভোট চুরি করলে জনগণ বিএনপির আন্দোলনে সাড়া দিতো: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
জাতীয়

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি ভোটারবিহীন নির্বাচন করে বিএনপি ক্ষমতায় এসেছিল। তখন আওয়ামী লীগের আন্দোলনে সাড়া দিয়ে জনগণ তাদের ক্ষমতা ছাড়তে বাধ্য করেছিল। একইভাবে আওয়ামী লীগও যদি ভোট চুরি করে ক্ষমতায় আসতো জনগণ এক্ষেত্রেও তাই করত।


বুধবার ৩০ মার্চ একাদশ জাতীয় সংসদের ১৭তম অধিবেশনে নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও সংসদ সদস্য মুজিবুল হক চুন্নুর সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ সব কথা বলেন।


প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যদি সত্যিই ভোট নিয়ে খেলতাম, যদি সত্যি ভোট ছিনতাই করতাম, তাহলে ওই যে ১৫ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনের মতো যেভাবে জনগণ ঝাঁপিয়ে পড়েছিল, আন্দোলন করে খালেদা জিয়াকে ক্ষমতা থেকে হটিয়েছিল, সেভাবে আমাদের হটাত।


তিনি বলেন, ‘মানুষ তো সেখানে সাড়া দেয়নি। কারণ, মানুষ তো ভোট দিতে পেরেছে। আজকে ভোটের যতটুকু উন্নয়ন সেটা আমরাই করেছি।’


২৬ বছর আগের সেই নির্বাচনের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সারাদেশে সেনাবাহিনী নামিয়ে ভোটারবিহীন একটা নির্বাচন করল। সেই নির্বাচনে ৩-৪ শতাংশের বেশি ভোট পড়েনি। আর্মি নামিয়ে পুরো নির্বাচনকে কুলষিত করল। মানুষের অধিকার কেড়ে নিলে মানুষ কিন্তু বসে থাকে না। আমরা আন্দোলনের ডাক দিলাম সেই আন্দোলনে মানুষ ঝাঁপিয়ে পড়ল। এরপর ১৯৯৬ সালের ৩০ মার্চ খালেদা জিয়া পদত্যাগ করতে বাধ্য হলেন।’


গত দুটি সংসদ নির্বাচনের কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, ‘২০১৪ সালের নির্বাচন হলো, সেই নির্বাচন যাতে না হয় তার জন্য নানান চক্রান্ত করলেন খালেদা জিয়া। এরপর ২০১৮ সালের নির্বাচন হলো। বিএনপি দুপুর ১২টার পর থেকে সড়ে গেল।’


বিএনপির আন্দোলনের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যদি আমরা ভোট না পেতাম ওই যে খালেদা জিয়া আন্দোলনের ডাক দিলেন, অবরোধে ডাক দিলেন, এত আন্দোলন করার পর জনগণের সাড়া পেল না কেন?’


বাংলাদেশে রাজনৈতিক পালাবদলের ইতিহাস তুলে ধরে সরকারপ্রধান বলেন, ‘স্বাধীনতার পর মাত্র ৯ মাসের মধ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটা সংবিধান দিলেন, শুধু সংবিধান দিলেন না, সংবিধানের ভিত্তিতে একটা নির্বাচন দিলেন। অর্থাৎ গণতান্ত্রিক পদ্ধতিটা তিনি সুষ্ঠুভাবে চালু করলেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট তাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হলো।


সংবিধান লংঘন করে আর্মি রুলস লঙ্ঘন করে প্রথমে জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এলে তিনি একাধারে সেনাপ্রধান, একাধারে রাষ্ট্রপতি হলেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তার পদাঙ্ক অনুসরণ করে জেনারেল এরশাদও ঠিক একই কাজ করলেন। সেনাপ্রধান আবার নিজেকে রাষ্ট্রপতি ঘোষণা করলেন। এভাবেই তো ক্ষমতার পালাবদল শুরু হলো।’


প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা গণতন্ত্র দিতে চাই দেশে। বাংলাদেশি ইতিহাসে ১৯৯৬ সালে যখন সরকার গঠন করি এরপর ২০০১ সালে ক্ষমতা হস্তান্তর করি। বাংলাদেশি ইতিহাসে শান্তিপূর্ণভাবে কখনো ক্ষমতা হস্তান্তর হয় নাই। একমাত্র ২০০১ সালের ১৬ জুলাই যখন আমি ক্ষমতা হস্তান্তর করে আসি, তখনই কেবল শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর হয়েছিল।’


ভয়েসটিভি/আরকে
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/71069
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ