Printed on Mon Mar 08 2021 7:52:50 AM

মন্দ ধারণা মিথ্যাতুল্য অপরাধ

মো. আবদুল মজিদ মোল্লা
ধর্ম
মন্দ ধারণা মিথ্যাতুল্য অপরাধ
মন্দ ধারণা মিথ্যাতুল্য অপরাধ
আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, ধারণা-অনুমান সম্পর্কে তোমরা সাবধান হও। কারণ অলীক ধারণা পোষণ সবচেয়ে বড় মিথ্যা। তোমরা পরস্পর গোয়েন্দাগিরি করো না, ঝগড়া-বিবাদ করো না, অসাক্ষাতে দোষচর্চা করো না, হিংসা ও ঘৃণা-বিদ্বেষ পোষণ করো না। আল্লাহর বান্দারা, সবাই ভাই ভাই হয়ে যাও।’ (সহিহ বুখারি, হাদিস : ৬০৬৬)

আলোচ্য হাদিসে রাসুলুল্লাহ (সা.) মানুষকে ভিত্তিহীন ধারণা-অনুমান সম্পর্কে সতর্ক করেছেন এবং ধারণাবশত মানুষ যেসব কাজ করে তা থেকেও বিরত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। যেমন গোয়েন্দাগিরি, ঝগড়া-বিবাদ, পরনিন্দা ও বিদ্বেষ। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘হে মুমিনরা, তোমরা বেশির ভাগ অনুমান থেকে দূরে থাকো। কেননা অনুমান কোনো কোনো ক্ষেত্রে পাপ। তোমরা পরস্পরের গোপনীয় বিষয় সন্ধান কোরো না এবং তোমরা পরস্পরের অনুপস্থিতিতে নিন্দা কোরো না।’ (সুরা হুজরাত, আয়াত : ১২)

যেসব ধারণা মিথ্যাতুল্য

ইমাম খাত্তাবি (রহ.) উল্লিখিত আয়াত ও হাদিসের ব্যাখ্যায় বলেন, এখানে সেসব ধারণা থেকে নিষেধ করা হয়েছে, যা উদ্দিষ্ট ব্যক্তির জন্য দূষণীয়, অপবাদের পর্যায়ে পড়ে এবং যে ধারণার কোনো ভিত্তি না থাকা সত্ত্বেও তা অন্তরে পোষণ করা হয়। নতুবা মানুষের পক্ষে প্রাথমিক ধারণা থেকে বেঁচে থাকা প্রায় অসম্ভব। এ বিষয়ে রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘নিশ্চয়ই আল্লাহ আমার উম্মতের সেসব অসওয়াসা ক্ষমা করে দিয়েছেন, যা তাদের মনে উদিত হয় বা যেসব কথা মনে মনে বলে থাকে; যতক্ষণ না তা বাস্তবে করে বা সে সম্পর্কে কথা বলে।’ (সহিহ বুখারি, হাদিস : ৬৬৬৪)

মুমিন মন্দ ধারণা অপছন্দ করে

আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, ‘সাহাবিরা বলেন, হে আল্লাহর রাসুল, আমাদের মনের মধ্যে এমন কিছু চিন্তার উদ্রেক হয়, যা সূর্য উদিত হওয়ার পরিধির মধ্যকার (মূল্যবান) সব কিছুর বিনিময়েও প্রকাশ করা আমরা সমীচীন মনে করি না। তিনি জিজ্ঞেস করেন, তোমরা কি তা অনুভব করো? তারা বলেন, হ্যাঁ। তিনি বলেন, এটিই ঈমানের সুস্পষ্ট পরিচয়।’ (আদাবুল মুফরাদ, হাদিস : ৩)

মুমিনের প্রতি ভালো ধারণা

মুমিন মুমিনের প্রতি সুধারণা পোষণ করবে। এমনকি সমাজে তার প্রতি মন্দ ধারণা ছড়িয়ে পড়লেও। যদি তা যথাযথভাবে প্রমাণিত না হয়। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘যখন তারা এটা শুনল, তখন মুমিন পুরুষ এবং মুমিন নারীরা আপন লোকদের সম্পর্কে কেন ভালো ধারণা করল না এবং বলল না, এটা তো সুস্পষ্ট অপবাদ।’ (সুরা নুর, আয়াত : ১২)

অন্যের মন্দ ধারণা থেকে আত্মরক্ষা

মুমিন যেমন অন্যের প্রতি মন্দ ধারণা পোষণ করে না, তেমন নিজেকেও অন্যের মন্দ ধারণা থেকে রক্ষা করে। মন্দ ধারণা হতে পারে এমন পরিস্থিতি তৈরি হলে তা ব্যাখ্যা করে দেওয়াও মুমিনের দায়িত্ব। আনাস (রা.) থেকে বর্ণিত, ‘একবার নবী (সা.) তাঁর কোনো এক স্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন। তখন তাঁর কাছ দিয়ে এক ব্যক্তি অতিক্রম করল। নবী (সা.) তাকে ডেকে বলেন, হে অমুক, এ আমার স্ত্রী অমুক। সে বলল, আমি হয়তো কারো সম্পর্কে ধারণা-অনুমান করতে পারি; কিন্তু আপনার সম্পর্কে কখনো ধারণা-অনুমানে লিপ্ত হই না। তিনি বলেন, শয়তান রক্তপ্রবাহের মতো মানুষের ভেতরে বিচরণ করে।’ (সুনানে আবু দাউদ, হাদিস : ৪৭১৯)

মন্দ ধারণা থেকে বাঁচার আমল

শাহর ইবনে হাওশাব (রহ.) থেকে বর্ণিত, আমি ও আমার মামা আয়েশা (রা.)-এর কাছে উপস্থিত হলাম। মামা বলেন, আমাদের কারো মনের মধ্যে এমন কিছুর উদ্রেক হয়, সে তা ব্যক্ত করলে তার আখিরাত ধ্বংস হয়ে যায় এবং তা প্রকাশ পেলে সে জন্য তাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হবে। বর্ণনাকারী বলেন, আয়েশা (রা.) তিনবার ‘আল্লাহু আকবার’ ধ্বনি করার পর বলেন, এ বিষয়ে রাসুলুল্লাহ (সা.)-কে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল। তিনি বলেছেন, তোমাদের কারো অন্তরে তা অনুভব করলে সে তিনবার ‘আল্লাহু আকবার’ বলবে। মুমিন ব্যক্তিই এটা অনুভব করে থাকে।’ (আদাবুল মুফরাদ, হাদিস : ৪)

আল্লাহ সবাইকে মন্দ ধারণা পোষণ করা থেকে রক্ষা করুন। আমিন।

লেখক : সাবেক প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, বাংলাদেশ পাট গবেষণা ইনস্টিটিউট, ঢাকা।
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/35793
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ