Printed on Mon Dec 06 2021 3:03:25 AM

শতাধিক বছর ধরে টানেলে নিখোঁজ রহস্যময় ভৌতিক ট্রেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
বিশ্বভিডিও সংবাদ
শতাধিক
শতাধিক
শতাধিক যাত্রী নিয়ে এক বিশাল ট্রেন চোখের পলকেই অদৃশ্য হয়ে যায়। অবাক করা বিষয় হলেও সত্যিই আজও খোঁজ মেলেনি সেই রহস্যময় ট্রেনটির। এমনকি ট্রেনে থাকা ১০০ জন যাত্রী ও ৬ জন রেলকর্মীও গায়েব হয়ে গিয়েছেন। নিখোঁজ এই ট্রেনের রহস্য আজও জানতে পারেনি কেউ।

১৯১১ সালেই প্রথমবারের মতো জাঁকজমকভাবে রোমের একটি স্টেশন একটি ট্রেন চালু করেন ইটালির জেনেটি নামক রেল সংস্থা। উদ্বোধনের দিন যাত্রীদের বিনা টিকিটে ঘোরানোর ব্যবস্থা করেছিল সংস্থাটি। ঘোষণা শুনে ট্রেনে ১০০ জন যাত্রী আসন গ্রহণ করেন। যাত্রীদের সঙ্গে মোট ৬ জন রেলকর্মী ছিলেন।

যাত্রীদের জন্য ট্রেনে বাহারি সব খাবারেরও ব্যবস্থা ছিল। উদ্দেশ্য ছিল ট্রেনে করে যাত্রীদের ইতালির বিভিন্ন অঞ্চল ঘুরে দেখানো। ট্রেনটিটে থাকা যাত্রীরা ভ্রমণ খুব উপভোগ করছিলেন। তবে সে ট্রেনটি আর গন্তব্যে পৌঁছায়নি, মাঝপথে রহস্যজনকভাবে বিশাল ট্রেনটি গায়েব হয়ে যায়! ট্রেনলাইনটি একটি টানেলের মধ্য দিয়ে ছিল। সেই টানেলে প্রবেশ করে ট্রেনটি। ঘন্টার পর ঘণ্টা পার হলেও ট্রেনের খোঁজ মেলেনি সেদিন। আজও ট্রেনটির কোনো খোঁজ মেলেনি।

ট্রেনটির সন্ধানে ওই সুড়ঙ্গে অনেকে গেলেও ট্রেনের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। পাহাড়ের বুক চিড়ে তৈরি হওয়া ওই সুড়ঙ্গের ভেতর বিকল্প কোনো রাস্তাও ছিল না। এমনকি ট্রেন দুর্ঘটনারও কোনো চিহ্ন মেলেনি। ট্রেনের মধ্যে মোট ১০৬ জন ছিলেন। পরে তাদের মধ্যে দু’জনের সন্ধান পাওয়া যায়। টানেলের বাইরে থেকে তাদেরকে উদ্ধার করা হয়। তবে তারা কোনো তথ্যই দিতে পারেননি ট্রেনের বিষয়ে। অগোছালো কথা বলছিলেন তারা। তারা জানান, সেদিন ট্রেনটি যখন টানেলে প্রবেশ করছিলো, তখন চারপাশ ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে যায়। প্রাণ বাঁচাতে তারা দু’জন ঝাঁপিয়ে পড়েন ট্রেন থেকে। এরপর আর তাদের কিছু মনে নেই।

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় বোমা পড়ে সুড়ঙ্গের মুখ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর ট্রেনটির খোঁজও থেমে যায়। এর পর থেকে ওই ট্রেনকে ঘিরে এমন সব ঘটনা বা তথ্য সামনে আসতে থাকে, যা আরও রহস্যময়। মেক্সিকোর এক চিকিৎসক দাবি করেন, অনেক বছর আগে মেক্সিকোর একটি হাসপাতালে নাকি ওই ১০৪ জন যাত্রীকে ভর্তি করা হয়েছিল। তারা প্রত্যেকেই পাগলামি করছিলেন। তারা সবাই একটি ট্রেনের কথা বলছিলেন। সেই ট্রেনে করেই না কি তারা মেক্সিকোতে পৌঁছান।

বিজ্ঞানীরা অনেক অনুসন্ধান করেও পাননি ঘটনার কোনো যুক্তি বা সূত্র। এখনও বিশ্বজুড়ে এই ভৌতিক ট্রেনটি নিয়ে আলোচনা হয়। তবে আধুনিকমনা অনেকেই বিশ্বাস করেন না ভূতুড়ে এই ঘটনাটি। এমনকি ইটালির বিভিন্ন প্রান্তে যেমন- জার্মানি, রোমানিয়া ও রাশিয়াতেও নাকি বিভিন্ন সময়ে অনেকেই ওই রকমই একটি যাত্রীবোঝাই ট্রেন দেখতে পেয়েছেন বলে দাবি করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা ট্রেনের যে বর্ণনা দিয়েছিলেন, তা অদৃশ্য হওয়া ট্রেনটির মতোই। তখনকার সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ট্রেনটি না কি ট্রাইম ট্রাভেল করে ১৯৪০ সালের মেক্সিকোয় পৌঁছে গিয়েছিল। তবে এসব ব্যাখ্যার কোনো প্রমাণ পায়নি বিজ্ঞানীরা। রহস্যময় এই ঘটনা আজও অজানাই থেকে গেলো বিশ্ববাসীর কাছে।

ভয়েসটিভি/এএস
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/53904
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ