Printed on Sat Feb 27 2021 7:22:54 PM

জীবনের ছন্দ খুঁজে ফেরা অদম্য শিল্পী মাহাবুব

অঞ্জন সৈকত
বিনোদনভিডিও সংবাদ
শিল্পী মাহাবুব
শিল্পী মাহাবুব
‘ঋণ করে বড় ভাইকে দেশের বাইরে পাঠিয়েছি। কিন্তু কখনও খোঁজ নেন না। একবারের জন্য ফোনও করেন না বড় ভাই। অথচ ঋণের টাকা আজও টেনে চলেছি আমি আর বাবা। আমার জীবনের ইচ্ছা কী জানেন, বাবা-মা’র সঙ্গে মিলেমিশে বেঁচে থাকা’ বারবার দু’চোখ মুছে এভাবেই কথা বলছিলেন মাদারীপুরের আদম্য শিল্পী মাহাবুব বেপারী।

২৬ বছর বয়সী এই শিল্পীর বাড়ি মাদারীপুর জেলার শিরকারা ইউনিয়নের শ্রীনদী বাহিরচর গ্রামে। বাবা কৃষক মো. নূরু বেপারী, মা মনোয়ারা বেগম। চার ভাই-বোনের সবার ছোট মাহাবুব। সুদর্শন এই যুবক একজন জীবন সংগ্রামী। সারাক্ষণ মনের মাঝে চাপা কষ্ট নিয়ে তার পথচলা। দু:খের সাগরে ভেসে কখনও তার মাঝে বিরহ ভর করলেও মুখের মিষ্টি হাসি কখনও কাউকে বুঝতে দেয় না।

হাসেনকান্দি ইউনাইটেড উচ্চ বিদ্যালয় থেকে সপ্তম শ্রেণি। এবং পরে ২০০১ সালে দাখিল পাস করেছেন শিল্পী মাহাবুব। তার লেখাপড়ার শুরুটা হয়েছিল শ্রীনদী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে। তবে সংসারের নানা টানাপোড়েন লেখাপড়া এগিয়ে নিতে দেয়নি।

একসময় রং এর কাজের দিকে মনোযোগ দেয় মাহাবুব। বিল্ডিং এ বিভিন্ন রং এর ব্যবহার আয়ত্ব করতে লেগে যায় এক বছর। সবমিলে এখন রং এর কাজের বয়স সাত বছর। এই দীর্ঘ সময়ে মাহাবুব শুধু রং এর কাজেই দক্ষ হয়ে ওঠেনি; ভালো আঁকতেও শিখেছে। শিল্পী মন কখনও উদাসী, কখনও একটু ছন্নছাড়া থাকতেই বেশি পছন্দ তার।

গলায় সুর আর রং এর আঁচড়ে জীবনের ছন্দ খুঁজে ফেরা অদম্য শিল্পী মাহাবুবের গান শেখার গল্পটি বেশ মজার। নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার ভূঁইগড় পশ্চিম ক্যানালপাড় এলাকায় চেয়ারম্যানের দশতলা নামে পরিচিত খান টাওয়ারে রং এর কাজে আসে বছর খানিক আগে। এখানে এসে ইউটিউবে গান শুনে একের পর এক ফোক গান আয়ত্ব করতে থাকে মাহাবুব। আর সারাদিন সেই গানগুলো গেয়ে কাজের মাঝে জীবনের স্বাদ খুঁজে ফিরতে থাকে। সঙ্গীদের উৎসাহ তাকে আরো বেশি অনুপ্রাণিত করে। কখনও তাদের সারারাত কাজ করতে হয়েছে। তবে সবার জন্য বিনোদনের খোরাক ছিলো এই মাহাবুব।

বিষয়টি জানতে পেরে একদিন ইঞ্জিনিয়ার সাজ্জাদ নিজেই সারারাত তাদের সঙ্গী হন। একটানা কাজ আর কাজের ফাঁকে মাহাবুবের গানে মুগ্ধ হন তিনি। এরপরই দৃষ্টিনন্দন কাজের উদ্ভাবক ইঞ্জিনিয়ার সাজ্জাদ সামনে আনেন মাহাবুবকে।

ভয়েস টেলিভিশনের ইউটিউব ও ফেসবুকে গানের কিছু অংশ প্রকাশ করতেই হাজারো মানুষের আগ্রহের কেন্দ্রে আসে মাহাবুব। অসংখ্য দর্শক তার পুরো গান প্রকাশের দাবি জানাতে থাকেন। মাত্র কয়েকদিনের ব্যবধানে অনেকের কাছেই চেনা মুখ হয়ে উঠেছেন আদম্য শিল্পী মাহাবুব ।

আরও পড়ুন : কবর থেকে বেঁচে ফেরা সেই শিশুটির মৃত্যু

ভয়েস টিভি/ডিএইচ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/32456
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ