Printed on Sun May 22 2022 5:45:17 PM

নিউজিল্যান্ডে টাইগার স্পিন কোচ করোনা আক্রান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক
খেলার খবরজাতীয়
স্পিন কোচ
স্পিন কোচ
নিউজিল্যান্ডে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের স্পিন কোচ রঙ্গনা হেরাথ। প্রথম দুই দফায় করোনা টেস্টে খেলোয়াড়, কোচিং স্টাফ সবারই নেগেটিভ আসে। কিন্তু তৃতীয় দফায় পজিটিভ আসে কেবল হেরাথের। তাকে বর্তমানে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

১৪ ডিসেম্বর মঙ্গলবার এই ৯ জন জিম করত আসেননি বলে জানায় দলীয় একটি সূত্র। আইসোলেনে থাকার সময়ে তারা জিমনেশিয়াম ব্যবহার করতে পারবেন না বলে জানা গেছে।

হেরাথের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে জাতীয় দলের ৯ ক্রিকেটার ও কোচিং স্টাফের কোয়ারেন্টাইনের সময়সীমা বেড়েছে। ৯ জন হলেন- অধিনায়ক মুমিনুল, ইয়াসির আলী, ফজলে মাহমুদ, মিরাজ, টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ, নির্বাচক আব্দুর রাজ্জাক ও সাপোর্ট স্টাফের তিন সদস্য।

এদিকে কোয়ারেন্টাইনের পঞ্চম দিনে মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) জিম সেশন করেছে ক্রাইস্টচার্চে অবস্থানরত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা।

এদিন ব্যাটার ও বোলাররা আলাদা গ্রুপে ভাগ হয়ে জিমে অনুশীলন করে। স্ট্রেন্থ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ নিক লির তত্ত্বাবধানে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারেই বিশেষ ব্যবস্থাপনায় দীর্ঘ সময় জিমে সময় পার করেন ক্রিকেটাররা। ৭ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে মাঠে অনুশীলন করতে পারবে বাংলাদেশ দল।

তিন দিনের আইসোলেশন শেষে সতীর্থদের সঙ্গে সামনাসামনি দেখা করার সুযোগ হয় ক্রিকেটারদের। কোয়ারেন্টাইন পর্ব এখনো শেষ হয়নি। তবে গতবারের তুলনায় এবার কিছুটা হলেও শিথিল নিউজিল্যান্ডের কোভিড প্রটোকল। এবার কোয়ারেন্টাইন ৭ দিনের। যদিও পরের চার দিন থাকতে হবে না রুমবন্দী। সুযোগ থাকছে জিম করার।

নিউজিল্যান্ডে পৌঁছে কোয়ারেন্টাইনে থাকা অবস্থায় প্রথমবারের মতো দলগতভাবে জিম করার সুযোগ পান ক্রিকেটাররা। প্রথমে ব্যাটারদের নিয়ে দীর্ঘ সময় কাজ করেন দলের স্ট্রেন্থ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ নিক লি।

ফিটনেস নিয়ে বরাবরই সিরিয়াস মুশফিকুর রহিম। জিমে তাকে বাড়তি কাজ করতে দেখা যায়। লিটন-সাদমান-শান্তরাও লি’র পরামর্শে জিমে নিজেদের ফিটনেস নিয়ে কাজ করেন। পাকিস্তান সিরিজের দুঃসহ স্মৃতি ভুলে সবারই চাওয়া নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাট হাতে ভালো করা।

ব্যাটারদের পর বোলারদের নিয়ে কাজ করেন স্ট্রেন্থ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ নিক লি। এবার পেস বোলারদের লম্বা বহর নিয়ে সফরে গেছে বাংলাদেশ দল। মাত্রই ঘরের মাঠে শেষ হওয়া টেস্ট সিরিজের প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হয়েছে এবাদত-রাহীরা। তবে নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশন সবসময়ই পেসারদের পক্ষে কথা বলে। পেস ইউনিটকে নিশ্চিতভাবেই বাড়তি সাহস দিবে দলে তাসকিনের অন্তর্ভুক্তি।

যদিও নিউজিল্যান্ডের মাটিতে বাংলার পেসারদের রেকর্ডও খুব একটা ইতিবাচক না। এখন পর্যন্ত মাশরাফীই সেখানে সবচেয়ে সফল। ৪ ম্যাচে ১১ উইকেট নিয়েছেন সবশেষ ১ যুগ আগে টেস্ট খেলা নড়াইল এক্সপ্রেক্স।

নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে ভালো করতে হলে অনুশীলনটাও যুতসই হতে হবে। তবে মাঠে নেমে অনুশীলনের জন্য অপেক্ষাটা ফুরাবে শিগগিরই। ৭ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে মাঠে অনুশীলনের সুযোগ পাবে দলের ক্রিকেটাররা। এই সময়ে তিনবার কোভিড পরীক্ষায় নেগেটিভ ফলাফল আসলেই মাঠে নামতে আর কোনো বাধা থাকবে না।

আগামী পহেলা জানুয়ারি নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে মাঠে নামবে বাংলাদেশ দল। এর আগে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে টাইগারদের।
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/60899
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ