Printed on Sun Jun 20 2021 1:58:58 PM

শুরু থেকে দেশের ৫০তম বাজেটের ইতিবৃত্ত

সোহাগ ফেরদৌস, ভয়েস টিভি
জাতীয়
৫০তম বাজেটের
৫০তম বাজেটের
সরকারের যে কর্মকাণ্ডের ওপর সব মহলের মোটামুটি তীক্ষ্ণ দৃষ্টি থাকে তা হলো জাতীয় বাজেট। নতুন কী থাকছে, কিসের দাম বাড়ছে, কিসের দাম কমছে সেদিকে থাকে সাধারণ মানুষের মূল আগ্রহ। বাজেট অংকের হিসাবে যতোটা না মনোযোগ পায় তার চেয়ে বেশি মনোযোগ থাকে বাজার দরের ওপর। রাজনৈতিক দলগুলোর জন্যও এটি মোক্ষম সময় প্রতিপক্ষকে আক্রমণের।

এবার দেশের ৫০তম বাজেট উপস্থাপন করা হবে। স্বাধীন দেশের প্রথম বাজেট উপস্থাপন করেছিলেন প্রথম অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ। আর দেশে সর্বোচ্চ ১৩ বার বাজেট পেশ করেছেন আবুল মাল আব্দুল মুহিত।

বাংলাদেশের প্রথম বাজেট ছিল ৭৮৬ কোটি টাকা। আর ২০২০-২১ অর্থবছরে এসে দেশের ৪৯ তম বাজেট দাঁড়ায় ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকায়।

স্বাধীন দেশে প্রথম বাজেট পেশকারী তাজউদ্দীন আহমদ মোট তিনটি বাজেট উপস্থাপন করেছিলেন। ১৯৭২ সালের ৩০ জুন একই সঙ্গে ১৯৭১-৭২ ও ১৯৭২-৭৩ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা করেছিলেন তিনি। এদিন তিনি ৭৮৬ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেছিলেন। ১৯৭৩ সালের ১৪ জুন ১৯৭৩-৭৪ অর্থবছরের জন্য ৯৯৫ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেছিলেন। পরের অর্থবছরে বাজেটের পরিমাণ দাঁড়ায় ১০৮৪ কোটি ৩৭ লাখ টাকা।

১৯৭৫ সালের ২৩ জুন ১৯৭৫-৭৬ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন করেন ডক্টর এ আর মল্লিক। সেবার বাজেটের পরিমাণ ছিল ১৫৪৯ কোটি ১৯ লাখ টাকা। তিনিই দেশের প্রথম টেকনোক্র্যাট অর্থমন্ত্রী। এছাড়া তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতান উপাচার্য ছিলেন।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। এরপর ক্ষমতা দখল করেন স্বৈরশাসক জিয়াউর রহমান। তিনি জাতীয় সংসদে তিনটি বাজেট উত্থাপন করেছিলেন। ১৯৭৬-৭৭ অর্থবছরে বাজেট ছিল ১,৯৮৯ কোটি ৮৭ লাখ। পরেরবার ছিল ২,১৮৪ কোটি টাকা এবং জিয়াউর রহমানের শেষবার ১৯৭৮-৭৯ অর্থবছরে বাজেটের পরিমাণ ছিল ২,৪৯৯ কোটি টাকা।

১৯৭৯-৮০ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন ড. মীর্জা নুরুল হুদা। তখন ৩,৩১৭ কোটি টাকার বাজেট পাশ হয়। ১৯৭৯ সালের ২৪ নভেম্বর রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান তাকে অর্থমন্ত্রী নিয়োগ দেন। জিয়াউর রহমান নিহত হওয়ার পর ১৯৮১ সালের ২৪ নভেম্বর বিচারপতি আবদুস সাত্তার তাকে উপরাষ্ট্রপতি নিয়োগ দেন।

১৯৮০-৮১ সালের বাজেট উত্থাপন করেন এম সাইফুর রহমান। তিনি বাংলাদেশের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১২ বার জাতীয় সংসদে বাজেট পেশ করেন। তার উত্থাপন করা প্রথম বাজেটের পরিমাণ ছিল ৪,১০৮ কোটি টাকা। ১৯৮১-৮২ অর্থবছরেও তিনি বাজেট পেশ করেন। ১৯৯১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এলে ফের এম সাইফুর রহমানকে অর্থমন্ত্রী করা হয়। তখন ১৯৯১-৯২ অর্থ বছর থেকে ১৯৯৫-৯৬ অর্থবছর পর্যন্ত মোট পাঁচবার বাজেট পেশ করেন তিনি। পরে ২০০১ সালে বিএনপি ফের ক্ষমতায় এলে আবারও অর্থমন্ত্রী হন এম সাইফুর রহমান। ২০০২-০৩ অর্থ বছর থেকে ২০০৬-০৭ অর্থ বছর পর্যন্ত টানা পাঁচবার জাতীয় সংসদে বাজেট পেশ করেন তিনি।

বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ১৩ বার জাতীয় সংসদে বাজেট পেশ করেন আবুল মাল আব্দুল মুহিত। তিনি প্রথম বাজেট উত্থাপন করেন ১৯৮২-৮৩ অর্থবছরে। সেবার বাজেটের পরিমাণ ছিল ৪,৭৩৮ কোটি টাকা। এর পরেরবারও তিনি বাজেট পেশ করেন। এরপর ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এলে ফের তাকে অর্থমন্ত্রী করা হয়। এরপর ২০০৯-১০ অর্থবছর থেকে ২০১৭-১৮ অর্থবছর পর্যন্ত টানা ১১ বার বাজেট উত্থাপন করেছেন আবুল মাল আব্দুল মুহিত।

১৯৮৩ সালে এরশাদ ক্ষমতা দখল করলে অর্থমন্ত্রী করা হয় এম সাইদুজ্জামানকে। তিনি ১৯৮৪-৮৫ অর্থবছর থেকে ১৯৮৭-৮৮ পর্যন্ত মোট চারবার জাতীয় সংসদে বাজেট পেশ করেছেন।

১৯৮৮-৮৯ সালের বাজেট পেশ করেন এম এ মুনিম। তার বাজেটের পরিমাণ ছিল ১০,৫৬৫ কোটি টাকা। এক বছর বাদ দিয়ে ১৯৯০-৯১ অর্থবছরেরও বাজেট পেশ করেছেন তিনি। হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের শাসনামলে বাংলাদেশের ১৩ তম অর্থমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন এম এ মুনিম।

১৯৮৯-৯০ অর্থ বছরের বাজেট পেশ করেছেন ড. ওয়াহিদুল হক। তার বাজেটের পরিমাণ ছিল ১২,৭০৩ কোটি টাকা। তিনি ১৯৮৮ সালের সেপ্টেম্বর থেকে ১৯৯০ সালের মে মাস পর্যন্ত এরশাদের শাসনামালে অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

১৯৯৬-৯৭ অর্থ বছরে অন্তর্বর্তী সরকারের বাজেট পেশ করেছেন ড. ওয়াহিদউদ্দিন মাহমুদ। তিনি নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেন।

পরে ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বিজয়ী হলে সরকার গঠন করে। তখন অর্থমন্ত্রী হন শাহ এ এম এস কিবরিয়া। তিনি ১৯৯৬-৯৭ (মূল) থেকে ২০০১-০২ অর্থ বছর পর্যন্ত মোট ছয়বার বাজেট পেশ করেন।

২০০৭-০৮ এবং ২০০৮-০৯ অর্থ বছরের বাজেট উপস্থান করেন ড. এ বি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন।

২০১৮ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সরকার ফের ক্ষমতায় এলে আ হ ম মুস্তফা কামালকে অর্থমন্ত্রী করা হয়। ২০১৯-২০ সালে তিনি প্রথম বাজেট পেশ করেন। সেবার বাজেট ছিল ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকা।

২০২০-২১ অর্থ বছরে তিনি ২য় বাজেট পেশ করেন। করোনাকালে সেবার বাজেটের পরিমাণ ছিল ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকা।

এবার তিনি তৃতীয়বারের মতো বাজেট উত্থাপন করবেন। আর এটি হবে বাংলাদেশের ৫০তম বাজেট।

ভয়েস টিভি/ডি/
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/45812
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ