Printed on Fri May 20 2022 6:41:42 AM

বড়লোকের বিগড়ে যাওয়া সন্তান অভিনেত্রী অ্যামিশা প্যাটেল (ভিডিও)

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদনভিডিও সংবাদ
অ্যামিশা প্যাটেল
অ্যামিশা প্যাটেল
ব্লকবাস্টার হিট ‘কাহো না পেয়ার হ্যায়’ সিনেমা দিয়ে বলিউডে পা রাখেন লাস্যময়ী অভিনেত্রী অ্যামিশা প্যাটেল। বলিউডে প্রভাবশালী বাবা-মায়ের সন্তান হওয়ায় পেয়েছেন বাড়তি সুবিধা।

প্রথম সিনেমায় রাকেশ রোশনের ছেলে নবাগত হৃতিকের বিপরীতে অভিনয় করে জনপ্রিয়তার চূড়ায় উঠেছিল আনকোরা এ দুই তারকা সন্তান।

সফল তকমা পেলেও এই নায়িকা অভিনয়ের তুলনায় বেশি আলোচনায় ছিলেন তার ব্যক্তিগত জীবনে বিতর্কের কারণে। অ্যামিশাকে বলা হয় বড়লোকের বিগড়ে যাওয়া সন্তান।

অথচ আমেরিকার একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে সর্বোচ্চ নম্বর পেয়ে স্বর্ণপদক পেয়ে মেধার পরিচয় দিয়েছিলেন অ্যামিশা। সবকিছু ছাপিয়ে দুস্থদের সহায়তায় কাজ করা অ্যামিশা হয়ে উঠেছেন একজন মানবিক মানুষ।

অনেকদিন ধরেই পর্দায় অনুপস্থিত অ্যামিশাকে নিয়েই আজকের প্রতিবেদন।

মুম্বাইয়ের এক গুজরাটি পরিবারে ১৯৭৫ সালের ৯ জুন আমিশার জন্ম হয়। বাবা অমিত এবং মা আশার নাম মিলিয়ে তার নামকরণ করা হয় অ্যামিশা। তার ভাই অস্মিতও একজন অভিনেতা।

বিখ্যাত রাজনীতিক তথা কংগ্রেস নেতা প্রয়াত রজনী পাটেলের নাতনি। ছাত্রজীবনে অত্যন্ত মেধাবী আমিশা আমেরিকা পাড়ি দিয়েছিলেন বায়োজেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়বেন বলে।

ইঞ্জিনিয়ারিং শেষ না করেই আমেরিকার টাফ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতিতে ভর্তি হন। কৃতিত্বের সঙ্গে অর্থনীতিতে স্বর্ণপদক লাভ করেন আমিশা।

আমিশার কাজের সূত্রপাতও অর্থনীতি নিয়ে। এরপর তিনি আমেরিকায় চাকরি শুরু করেন ইকোনমিক অ্যানালিস্ট হিসেবে। তবে সেই চাকরি বেশি দিন করেননি তিনি।

ফিরে আসেন দেশে, ফিরেই যোগ দিলেন বিখ্যাত সত্যদেব দুবের নাটকের দলে। রক্ষণশীল পরিবারের ধারা ভেঙে আমিশা নাটকে অভিনয় এবং মডেলিং শুরু করেন। প্রথম ফিল্ম থেকে তার ভাবমূর্তি বিগড়ে দিয়েছিল বলিউড।

তার বদনাম করতে যা নয়, তা-ই রটাতেন ইন্ডাস্ট্রির লোকজন। তিনি নাকউঁচু, উদ্ধত, বড়লোকের বিগড়ে যাওয়া মেয়ে! হৃতিক রোশনের সঙ্গেও সব সময় তুলনা টানা হত। হৃতিকের থেকে বেশি দামি গাড়িতে চেপে তিনি কেন ফিল্মের সেটে ঢোকেন? এ প্রশ্নও তুলেছিলেন ইন্ডাস্ট্রির লোকজন।

সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমের কাছে এমনই দাবি করেছেন আমিশা পাটেল। আমিশার দাবি, “প্রথম ফিল্ম থেকেই আমাকে উদ্ধত, নাকউঁচু বলে দাগিয়ে দেওয়া হয়েছিল। আমি নাকি দক্ষিণ মুম্বাইয়ের বড়লোকের বিগড়ে যাওয়া বাচ্চাদের মতো।”

বলিউডে অভিষেকেই বাজার মাত করেছিলেন আমিশা। তুমুল হিট প্রথম সিনেমা ‘কাহো না পেয়ার হ্যায়’। তবে ফিল্মের সাফল্য তো পরে। তার আগেই নাকি বলিউডের কদর্য দিকটি দেখে ফেলেছিলেন আমিশা। কেন তার বদনাম রটে গিয়েছিল, সে ব্যাখ্যাও দিয়েছেন আমিশা।

তিনি বলেন, “ফিল্মের সেটে আমি অর্থহীন গালগল্প করতে ভালবাসি না। পরচর্চায় মন নেই। অন্য নায়িকাদের গালমন্দও করি না। সহ-অভিনেতাদের ফিল্ম হিট করলে খুব খুশি হই। আমি একেবারে বইয়ের পোকা। গসিপ করার বদলে ফিল্মের সেটে বসে গল্পের বই পড়তাম। তাই অনেকেই বলতেন, আমিশা’জি খুব নাকউঁচু। কে জানে নিজেকে কী মনে করেন!”

সম্প্রতি ব্যক্তি জীবন নিয়ে আলোচনায় এসেছেন অ্যামিশা প্যাটেল। তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু ফয়সাল প্যাটেলের সঙ্গে এই অভিনেত্রীর প্রেমের গুঞ্জন ওঠে। তবে অ্যামিশা প্যাটেল তা অস্বীকার করে বলেন, ‘এটা খুবই অদ্ভুত।

ফয়সাল ও আমার মধ্যে বন্ধুত্ব অনেক আগে থেকে। পরস্পরকে অনেক বছর ধরে জানি। এর বেশি কিছু না। আমি এখনও একা এবং এতেই খুশি। এখন কোনো সম্পর্কে জড়াতে চাই না।’

অ্যামিশার ক্যারিয়ারে সাফল্যের মতো ব্যর্থতাও এল বেশ তাড়াতাড়ি। হৃতিকের বিপরীতে অ্যামিশার দ্বিতীয় ছবি ‘আপ মুঝে আচ্ছা লাগনে লাগে’ ফ্লপ হয়। এরপর বেশকিছু সিনেমা বক্স অফিসে হিট করলেও অধিকাংশই প্লপ হতে থাকে।

এরই একপর্যায়ে নীরবে বলিউড থেকে বিদায় নেন আবেদনময়ী নায়িকা অ্যামিশা প্যাটেল। অভিনয় থেকে বহু দূরে এখন আমিশাকে দেখা যায় ইনস্টাগ্রামে।

বেশিরভাগ সময়েই তিনি শরীরচর্চার ছবি দেন। সেখানেও বহু বার ট্রলের শিকার হয়েছেন। সমালোচকদের মতে, এর পরেও আমিশার ঔদ্ধত্য দূর হয়নি।
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/69361
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ