Printed on Sat Sep 25 2021 8:53:29 AM

আফগান রাজপ্রাসাদ ও এয়াপোর্টে তালেবানদের যত হাস্যকর কাণ্ড

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক
বিশ্বভিডিও সংবাদ
রাজপ্রাসাদ
রাজপ্রাসাদ
এতদিন মরুভূমি আর জলে জঙ্গলে ঘুরে বেড়ানো তালেবান সৈন্যরা হঠাৎ রাজ প্রাসাদে এসে যেন স্বর্গে এসে পড়েছে। দীর্ঘদিন প্রাসাদের এমন সাজসজ্জা দেখেনি তারা। জিনিসপত্র বা আসবাবের সঠিক ব্যবহারও জানে না। তাই ইচ্ছেমত ব্যবহার করছে চেয়ার টেবিল এমনকি প্রেসিডেন্টের চেয়ারটিও। যে যেভাবে পারছে চেয়ারে, টেবিলে, সোফায়, মেঝেতে বসে, পা উচিয়ে, দাড়িয়ে, হেটে হেটে খাচ্ছে। অথচ এসব আসবাবগুলো ভিন্নভাবে ব্যবহার হতো ইতোপূর্বে।

প্রেসিডেন্টের চেয়ারে বসে যে মজাকরে উদ্ভটভাবে খাচ্ছে সে নিজেও হয়তো জানে না যে কত গুরুত্বপূর্ণ স্থানটিকে এভাবে ব্যবহার করছে সে। ছড়িয়ে ছিটিয়ে যে যেভাবে ইচ্ছে খাচ্ছে রাজকীয় খাবার। শুধু যে প্লেটে সাজানো খাবার খাচ্ছে তা নয় মেঝেতে পড়ে যাওয়া খাবারও বাদ দিচ্ছে না। কিছু খাচ্ছে কিছু আবার হাত থেকে পড়েও যাচ্ছে। দরজা ব্যবহার ছাড়াই- ডিজাইনের ভেতর দিয়ে এক ঘর থেকে আরেক ঘরে যাতায়াত করছে তারা। এককথায় পুরো প্রাসাদটিকে সদরঘাট বানিয়ে রেখেছে তালেবান যোদ্ধারা।

এদিকে কাবুলের নিরাপত্তা পরিস্থিতি প্রতিনিয়ত পরিবর্তন হচ্ছে। বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশিত এই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে বিমানবন্দর এলাকায় জনসমুদ্র। আর এই ভিডিওটিতে ধরা পরেছে এক অদ্ভুত দৃশ্য। বিমানে ওঠার সিঁড়িতে মানুষ সংকুলান না হওয়ায় বিশৃঙ্খলভাবে সিড়ির বাইরে থেকে বেয়ে বেয়ে ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করছে তারা। একের পর এক ঢোকার সময় নেই তাদের। মনে হচ্ছে একেবারে বর্বর যুগ থেকে সবেই পা রাখলো এই শতাব্দীতে।

তালেবান সৈন্যরা অবিশ্বাস্য গতিতে দখল করেছে পুরো আফগানিস্তান। পুরো বিশ্বই এখন হা হয়ে তাকিয়ে রয়েছে, কারণ গত সাত দিনে ডজন-খানেকের বেশি প্রাদেশিক রাজধানী শহর তাদের দখলে নিয়েছে যেভাবে। এক্ষেত্রে আরও যা বিস্ময়কর তা হলো,এগুলোর মধ্যে সাতটিই হলো আফগানিস্তানের উত্তর এবং উত্তর-পশ্চিমের প্রদেশ, যেখানে তালেবান অতীতে কখনই তেমন কর্তৃত্ব করতে পারেনি। তালেবানের এই সামরিক সাফল্যে হতচকিত হয়ে পড়েছে খোদ আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র।

আমেরিকান অস্ত্রে সজ্জিত আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর সংখ্যা তিন লাখের মতো। বিমান বাহিনীও রয়েছে তাদের। অন্যদিকে তালেবানে যোদ্ধার সংখ্যা ৬০ থেকে ৮০ হাজারের মতো। কোনও ইউনিফর্ম নেই, সিংহভাগ যোদ্ধার পায়ে জুতো পর্যন্ত নেই। কিন্তু তাদের চাপে তাসের ঘরের মত ধসে পড়ছে আফগান বাহিনীর প্রতিরোধ।

যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগান সরকার দেশটির ভবিষ্যৎ নিয়ে তালেবানদের সঙ্গে আলোচনা করে গত রোববার। এরই মধ্যে রাজধানী কাবুলকে চারপাশ থেকে ঘিরে ফেলে তালেবান বাহিনী। এর পর কাবুলে তালেবান যোদ্ধাদের প্রবেশের পর স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় আফগানিস্তানের স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়, ঘনিষ্ঠ সহযোগীদের নিয়ে তাজিকিস্তানে পালিয়েছেন প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি। আশরাফ ঘানির সঙ্গে দেশ ছেড়ে তাজিকিস্তানে পালিয়েছেন আফগানিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হামদুল্লাহ মুহিব ও প্রেসিডেন্ট দপ্তরের প্রধান প্রশাসক ফজেল মাহমুদ ফজলি।
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/51299
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ