Printed on Tue Sep 28 2021 8:11:26 PM

আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর দখল, নারী ইউপি সদস্য আটক

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি
সারাদেশ
আশ্রয়ণের প্রকল্পের
আশ্রয়ণের প্রকল্পের
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর দখল করে পরিচিত মানুষদের দেয়ার অভিযোগে রুবি আক্তার নামে এক নারী ইউপি সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

২২ আগস্ট রোববার বেলা দেড়টার দিকে উপজেলার চিলারং ইউনিয়নের আলাদিহাটের ধনিবস্তি গুচ্ছগ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়

সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা নির্দেশে রুবি আক্তারকে আটক করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম।

আটককৃত রুবি আক্তার চিলারং ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য এবং তিনি ওই ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি।

সদরের চিলারং ইউনিয়নে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর রয়েছে ২১৭টি। এর মধ্যে আলাদিহাট ধনিবস্তি গুচ্ছগ্রাম এলাকায় রয়েছে ৫৬টি। আর এসব ঘরে অসহায় মানুষরা বসবাস করছে।

চিলারং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আইয়ুব আলী বলেন, আলাদী হাটের ধনিবস্তি গুচ্ছগ্রামের ঘরের তালিকায় আঞ্জু আক্তার, লাইলি বেগম ও জুলেখা বেগমের নাম আসে। সেই অনুযায়ী সাব-রেজিষ্ট্রার অফিসে ঘরগুলো তাদেরকে রেজিষ্ট্রি করে দেয়া হয়। কিন্তু শনিবার (২১ আগস্ট) দুপুরে ঐ গুচ্ছগ্রাম ঘর থেকে আঞ্জু আক্তার, লাইলি বেগম ও জুলেখা বেগমকে মারপিট করে ঘর থেকে বের করে দেয় আমার ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য রুবি আক্তার। এরপর ওই ঘরে নারী ইউপি সদস্য তার পরিচিত মানুষদের ঢুকিয়ে দেয়। বিষয়টি তাৎক্ষণিক উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবহিত করা হয়।

এদিকে ২১ আগস্ট শনিবার বিকেলে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দেয় ভুক্তভোগী আঞ্জু আক্তার, লাইলি বেগম ও জুলেখা বেগম।

ভুক্তলোগী আঞ্জু আখতার বলেন, নারী ইউপি সদস্য রুবি আক্তার লোকজন নিয়ে এসে আমাকে ও আমার স্বামীকে মারপিট করে। সে আমাদের ঘর থেকে বের করে দিয়ে রাহিলা বেগম নামে তার পরিচিত মানুষকে ঢুকিয়ে দেয়। আমিসহ আরও দুইজনের সাথে ঠিক একই কাজ করেছে।

সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাওয়া তিনজন ভুক্তভোগীর লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর আজ রোববার দুপুরে পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে আলাদিহাটের গুচ্ছগ্রামে যাওয়া যায়। এরপর ঐ গুচ্ছগ্রাম থেকে নারী ইউপি সদস্য রুবি আক্তারকে আটক করা হয়।

কি কারণে নারী ইউপি সদস্যকে আটক করা হয়েছে জানতে চাইলে ইউএনও আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, তার বিরুদ্ধে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর বরাদ্দ পাওয়া আঞ্জু আক্তার, লাইলি বেগম ও জুলেখা বেগমকে মারপিট, ঘরে তালা দেয়া, ঘর থেকে তাদের বের করে দেয়া এবং ঐ ঘরে পরিচিত মানুষদের ঢুকিয়ে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়। এজন্য তাকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ওসি তানভিরুল ইসলাম বলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে গুচ্ছগ্রাম থেকে নারী ইউপি সদস্য রুবি আক্তারকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে।

ভয়েসটিভি/এএস
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/51915
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ