Printed on Tue Sep 28 2021 7:40:39 PM

ঝুলে রয়েছে নারায়ণগঞ্জের ২০ লাখ পোশাক শ্রমিককে টিকার প্রদানের সিদ্ধান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক
সারাদেশ
ঝুলে রয়েছে
ঝুলে রয়েছে
দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন পোশাক কারখানা ও সহযোগী প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন ২০ লাখের বেশি শ্রমিক। করোনা সংক্রমণের ঝুঁকিতে থাকেন তারা। তবে তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র বিভিন্ন জেলার হওয়ায় নারায়ণগঞ্জে অবস্থান করলেও এই মুহূর্তে টিকা পাচ্ছেন না শ্রমিকরা।

শ্রমিকদের টিকা প্রদানের ব্যাপারে ৮ আগস্ট রোববার রাত পর্যন্ত কোন সিদ্ধান্ত আসেনি বলে জানিয়েছে জেলা প্রাশাসন। কারখানার মালিকরা ও প্রশাসন উভয়েই বলছে, শ্রমিকদের জন্য টিকার আবেদন করা হয়েছে। বরাদ্দ পেলে টিকাদান কর্মসূচি শুরু করা হবে।

সংশ্লিষ্টদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, জেলায় পোশাক কারখানা ও সহযোগী প্রতিষ্ঠান মিলিয়ে শিল্পকারখানা রয়েছে প্রায় পাঁচ হাজার। প্রায় ২০ লাখের বেশি শ্রমিক এসব কারখানায় কাজ করেন। তাদের সবাই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসেছেন। তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নারায়ণগঞ্জের নয়। ফলে এখানে অবস্থান করলেও টিকা নিতে পারছেন না তারা।

রোববার সকালে জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে গাজীপুরের কয়েকটি কারখানার শ্রমিকদের টিকা দেওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করেন কমিটির সদস্য মোহাব্বত হোসেন। এ সময় তিনি নারায়ণগঞ্জের পোশাকশ্রমিকদের গণটিকা কর্মসূচির আওতায় আনার দাবি জানান।

শ্রমিকদের জন্য টিকার ব্যবস্থা করতে চেষ্টা চালাচ্ছেন কারখানা কর্তৃপক্ষ। বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার অ্যান্ড এক্সপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশনের (বিকেএমইএ) সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ হাতেম বলেন, টিকার জন্য সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ চলছে। তবে এখন পর্যন্ত ব্যবস্থা করা যায়নি।

সরকার টিকা কেনার উদ্যোগ নিয়েছেন, সেগুলো দেশে এলেই টিকা নিতে পারবেন শ্রমিকরা, এমনটা জানালেন নারায়ণগঞ্জের সিভিল সার্জন ইমতিয়াজ আহমেদ।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জে পোশাকশ্রমিকদের টিকা দিতে হলে প্রায় ২০ লাখ শ্রমিককে টিকা দিতে হবে। আমার জানামতে, সরকারের কাছে এই মুহূর্তে এক জায়গায় দেওয়ার মতো এত টিকা নেই। তবে নতুন করে যেসব টিকা কেনার উদ্যোগ সরকার নিয়েছে, সেগুলো দেশে এলে পোশাকশ্রমিকদের দেওয়া সম্ভব হবে।

সরকারি সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে পোশাকশ্রমিকদের টিকা দেওয়া সম্ভব নয় বলে জানিয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ বলেন, পোশাকশ্রমিকদের টিকা দেওয়ার ব্যাপারে কোন নির্দেশনা আসেনি। সরকারি সিদ্ধান্তের বাইরে আমরা যেতে পারি না। জেলায় অবস্থানরত ২০ থেকে ২২ লাখ পোশাকশ্রমিকের জন্য টিকার ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছি। বরাদ্দ ও প্রয়োজনীয় নির্দেশনা পেলে শ্রমিকদের টিকা প্রদান শুরু করা হবে।
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/50606
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ