Printed on Sat May 21 2022 5:24:52 AM

শাবি সমর্থনে প্রধানমন্ত্রীর নিকট ১০১ ছাত্রলীগ নেতার তিন দফা দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
শিক্ষাঙ্গন
তিন দফা
তিন দফা
শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্যের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীর সমর্থনে চলমান সংকট পরিস্থিতিতে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রলীগ নেতারা। ১০১ ছাত্রলীগ নেতা এতে অংশগ্রহণ করেন।

ভার্চুয়াল বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থী ও শাবি ছাত্রলীগের প্রথম সভাপতি মো. ফরিদ আলম। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ব্যাচ থেকে সর্বশেষ ব্যাচের ১০১ নেতার সম্মতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তিন দফা দাবি উত্থাপন করা হয়।

দাবিগুলো হচ্ছে—অবিলম্বে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙাতে হবে। এর জন্য তাদের ন্যায্য দাবি মেনে নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর কথিত যে পুলিশ এসল্ট মামলা করা হয়েছে, তা দ্রুত প্রত্যাহার করতে হবে।

উপাচার্যের অপসারণ চেয়ে ৩৫ সংগঠনের বিবৃতি : শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমদের অপসারণ প্রয়োজন বলে দাবি করেছে সিলেটের ৩৫টি সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন। গতকাল এক যৌথ বিবৃতিতে তারা বলে, ‘শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান এক দফা দাবিতে আমরা একাত্মতা প্রকাশ করছি এবং অতি দ্রুত উপাচার্যের পদত্যাগের দাবি জানাচ্ছি। ’

সিলেটের বিভিন্ন সংগঠন ছাড়াও শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়, মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজসহ বিভিন্ন বিদ্যাপিঠের সংগঠনও রয়েছে।

নাট্য পরিষদের উদ্বেগ : শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান সংকটে গভীর উদ্বেগ জানিয়েছেন সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের নেতারা। সংগঠনের সভাপতি মিশফাক আহমেদ মিশু ও সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকদের সম্পর্কের অবনতি শিক্ষাব্যবস্থায় চরম সংকট তৈরি করেছে। এই অবস্থা থেকে পরিত্রাণে দ্রুত সংকট সমাধানে সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ জানাই।’

আরও পড়ুন : শিক্ষামন্ত্রীর আহ্বানে আলোচনায় সাড়া দেন শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল : অনশনের ১০০ ঘণ্টা পার হওয়ার পরও উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমদ পদত্যাগ না করায় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। গতকাল সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলচত্বর থেকে তাঁরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। রাত সাড়ে ৯টার দিকে আন্দোলনকারীরা ক্যাম্পাসে মশাল মিছিল বের করে। মিছিল শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ে মুক্তমঞ্চের সামনে এসে উপাচার্যের কুশপুত্তলিকা দাহ করেন তাঁরা।

ঢাবির দুই শিক্ষার্থীর সংহতি : সিলেটে এসে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংহতি জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) দুই শিক্ষার্থী। গতকাল দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এসে তাঁরা সংহতি জানান। ঢাবির এ দুই শিক্ষার্থী হলেন ব্যাংকিং ও ইনস্যুরেন্স বিভাগের মাহফুজুর রহমান এবং গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান। এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে উপাচার্যের কুশপুত্তলিকা দাহ করেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার পর শিক্ষার্থীরা যা বললেন : শনিবার মধ্যরাতে শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক শেষে শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘আমরা শিক্ষামন্ত্রীকে আমাদের সব ঘটনা বলেছি। তিনি বলেছেন, আমরা যাতে অনশন বন্ধ করি এবং এটা নিয়ে আলোচনায় বসি। আলোচনার মাধ্যমে এমন একটা পথ বের করি, যাতে কারো ক্ষতি না হয়। ’ তাঁরা আরো বলেন, ‘এ ছাড়া তিনি আগামীকাল (রবিবার) দুপুরের পরে আমাদের সঙ্গে আবার আলোচনায় বসবেন। ’

তবে গতকাল রাত ১০টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে শিক্ষার্থীদের ফের আলোচনার বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

ভয়েসটিভি/এমএম
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/64345
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ