Printed on Wed Dec 01 2021 12:58:40 PM

বলরামপুর ইউপি নির্বাচনের দাবিতে মানববন্ধন

পঞ্চগড় প্রতিনিধি
সারাদেশ
নির্বাচনের দাবিতে
নির্বাচনের দাবিতে
পঞ্চগড়ে দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে নির্বাচন বন্ধ রয়েছে। নাগরিক সমাজের ব্যানারে নির্বাচনের দাবিতে ইউনিয়নের প্রায় দুই হাজার মানুষ মানবন্ধনে অংশগ্রহণ করেছে। মানবন্ধন শেষে আটোয়ারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পক্ষে নাগরিক সমাজের স্মারকলিপি গ্রহণ করেন ভূমি কর্মকর্তা শায়লা সাঈদ তন্বী।

দুপুরে আটোয়ারী উপজেলা পরিষদের সামনে আটোয়ারী-পঞ্চগড় সড়কে এই মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। বলরামপুর ইউনিয়ন নাগরিক সমাজের ব্যানারে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে ওই ইউনিয়নের প্রায় দুই হাজার মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখার সময় বলরামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন বলেন, সর্বশেষ ২০০৩ সালে বলরামপুর ইউনিয়ন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পর আর পুনর্নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি। এভাবে দীর্ঘ আঠারো বছর বলরামপুর ইউনিয়নে নির্বাচন বঞ্চিত হয়ে আছে। একটি গণতান্ত্রিক দেশে এ ধরনের অনিয়ম নির্বাচন কমিশনের জন্য অত্যন্ত লজ্জাজনক ব্যাপার।

বলরামপুর দীর্ঘ ১৮ বছর নির্বাচন অনুষ্ঠিত না হওয়ার বড় একটি কারণ এই ইউনিয়নটির একটি অংশ বোদা পৌরসভার অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ফলে সীমানা জটিলতার কারণে নির্বাচন স্থগিত রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ২০১৮ সালে নির্বাচনী গেজেট প্রকাশিত হলেও রহস্যজনক ভাবে তা আলোর মুখ দেখেনি। ওই ইউনিয়নের ৩ জন ওয়ার্ড সদস্য ইতোমধ্যে মারা গেছে। ১ জন ওয়ার্ড সদস্য পদত্যাগ করেছে। বর্তমান চেয়ারম্যান ষড়যন্ত্র করে নির্বাচন আটকে রেখেছেন।

মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন, বলরামপুর ইউনিয়ন নাগরিক সমাজের আহবায়ক শাহ আলম সরকার, যুগ্ম আহবায়ক সাইদুর রহমান প্রমুখ। বক্তারা অবিলম্বে বলরামপুর ইউনিয়নে প্রশাসক নিয়োগ করে নির্বাচন ঘোষণা করার দাবি জানান। দাবি মানা না হলে পরবর্তীতে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারী দেয়া হয়।

মানববন্ধন শেষে বক্তারা আটোয়ারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট স্মারক লিপি প্রদান করেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পক্ষে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন ভূমি কর্মকর্তা শায়লা সাঈদ তন্বী।

ভয়েস টিভি/এমএম
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/56119
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ