Printed on Wed Dec 01 2021 4:13:35 PM

যেভাবে বলিউডে চকচকে ক্যারিয়ার গড়লেন বিদ্যা বালান

এম এস নাঈম
বিনোদন
বিদ্যা বালান
বিদ্যা বালান
বলিউডে একজন সুপ্রতিষ্ঠিত অভিনেত্রী বিদ্যা বালান। তবে শুরুতে বর্তমানের মত এমন চকচকে ক্যারিয়ার ছিল না। বলিউডে পা রাখার পরপরই নিজের ফিগারের জন্য বেশ কয়েকবার বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন।

নিজের অভিনয় দক্ষতায় সমালোচকদের কড়া জবাব দেওয়ার পাশাপাশি বলিউডে জায়গা করে নিয়েছেন প্রথম সারির অভিনেত্রীদের মধ্যে। একাধিক সুপারহিট ছবি উপহারের মাধ্যমে দর্শকদের মনে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি।

ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই ‘পরিণীতা’র এই নায়িকাকে এক ঢাল চুল, কপালে টিপ এবং শাড়িতে পাশের বাড়ির মেয়ে হিসেবে দেখতেই অভ্যস্ত দর্শক।

কিন্তু সেখান থেকে ‘সিল্ক স্মিতা’হয়ে খোলামেলা পোশাক, যৌনতা আর উন্মুক্ত বক্ষভাঁজে অন্যরকম এক বিদ্যা হাজির হন। তার এমন উদ্দাম অভিনয়ের ফলেই ‘১০০ কোটি ক্লাব’-এ পৌঁছে যায় ‘দ্য ডার্টি পিকচার’ ছবিটি।

বলিউডের তুমুল জনপ্রিয় বিদ্যা ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই ঘনিষ্ঠ দৃশ্য, ছোট পোশাকে পর্দায় আসা এবং খোলামেলা অভিনয় জন্য বিতর্কও হয়েছে বেশ।

কিন্তু তাতে কান না দিয়ে নিজের মতো করেই কাজ করে গেছেন। মূলত এ ছবির পর তার চাহিদাও বেড়ে যায় দ্বিগুণ। আবেদনময়ী বিদ্যাকে নিজেদের ছবিতে নেয়ার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়েন পরিচালকেরা।

ছবির গল্প ও চরিত্রের প্রয়োজনে এখনও খোলামেলা হতে আপত্তি করেন না বিদ্যা। চরিত্রের জন্য সবই করতে পারেন যার প্রমান ছিল ‘দ্য ডার্টি পিকচার’।

বলিউড এমন এক জায়গা যেখানে সব সময় তৈরি থাকতে হয় পার্ফেক্ট লুক থেকে পোশাক, ফিগার সব কিছুতেই। কিন্তু বিদ্যা আর পাঁচটা অভিনেত্রীর মত জিরো ফিগারের অভিনেত্রী নন। নিজের মোটা ফিগারের ফলে একাধিকবার অন্তঃসত্ত্বার তকমাও পেয়েছিলেন নেটিজেনদের কাছ থেকে।

নেটিজেনদের এমন মন্তব্যের জবাবে বিদ্যা মজা করে বলেন, মহাভারতের গান্ধারী ১০০ সন্তানের মা হয়েছিলেন। আমি মনে হয় খবরের জেরে তাকেও ছাড়িয়ে গিয়েছি।

নানা ধরনের চরিত্রে নিজেকে মেলে ধরতে পছন্দ করেন এই নায়িকা।

জনপ্রিয়তার প্রয়োজনে ‘পরিণীতা’ ছবির শান্ত মেয়েটি হঠাৎই সাহসী হয়ে উঠল ‘দ্য ডার্টি পিকচার’ ছবিতে। মেদযুক্ত শরীরে খোলামেলা পোশাকে বিদ্যার আবেদন ফেরাতে পারেনি কেউ।

নারী প্রধান চলচ্চিত্রে প্রযোজকদের পছন্দের তালিকায় বলিউডে যে কয়জন শিল্পী রয়েছেন তাদের মাঝে বিদ্যা অন্যতম। বলিউডের একমাত্র অভিনেত্রী বিদ্যা যাকে শাহরুখ খান ‘হিরো’ বলে সম্বোধন করেন।

২০০৩ সালে বিদ্যার ক্যারিয়ার শুরু হয় বাংলা সিনেমা ‘ভালো থেকো’ দিয়ে। সেই সিনেমায় তার পারিশ্রমিক ছিলো মাত্র ৫০০ টাকা। এরপর ২০০৫ সালে ‘পরিণীতা’ ছবিরে মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয়।

পরে ‘লাগে রাহো মুন্না ভাই’ বক্স অফিসে সফলতার পাশাপাশি এই অভিনেত্রীর ক্যারিয়ারও দাঁড়িয়ে যায়। ২০১১ সালে ইউটিভি-র সিইও সিদ্ধার্থ রায় কাপুরকে বিয়ে করেন বিদ্যা।

সিদ্ধার্থের তৃতীয় স্ত্রী হিসেবে বিদ্যা যখন বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন তখন অনেকেই অবাক হয়েছিলেন। বিদ্যা জানিয়েছিলেন, আগে ২ বিয়ে করা সিদ্ধার্থের বিয়ে সম্পর্কে যথেষ্ট অভিজ্ঞতা রয়েছে।

বিদ্যার এই হাস্যকর তত্ত্বের পেছনে লুকিয়ে ছিল সিদ্ধার্থকে বিয়ে করে নিজের ক্যারিয়ারের মাটি শক্ত করার আসল তত্ত্ব।

বিদ্যা বালান মানেই শাড়ি। চলচ্চিত্র কিংবা উৎসব- শাড়িই তাঁর প্রথম পছন্দ। বলিউডে তাঁর মতো শাড়িপ্রেমী অভিনেত্রী খুব একটা দেখা যায় না।

‘দি ডার্টি পিকচার’ ছবিতে বিদ্যা সবধরনের পোশাক পরেছেন। এই ফিল্মে তাঁকে যথেষ্ট খোলামেলা পোশাকেও দেখা গেছে। ‘সিল্ক স্মিতা’র খুল্লাম-খুল্লা চরিত্রে মেয়েকে দেখে মা-বাবা কী বলবেন, সেই চিন্তায় ছিলেন বিদ্যা।

স্ক্রিনিং রুমে ছবি দেখে বেরিয়ে আপ্লুত ছিলেন বিদ্যার বাবা। অন্যদিকে কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন বিদ্যার মা। ‘সিল্ক স্মিতা’র চরিত্রে অভিনয়ের জন্যই জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি।

বিদ্যা মনে করেন, চল্লিশের পরে নারী অপ্রতিরোধ্য ও আবেদময়ী হয়ে ওঠে। কারণ এ সময়ে তারা অনেক কিছুকেই পাত্তা দেন না। নিজের প্রতি যত্নশীল হতে গিয়ে জীবনকে আরও আনন্দময় করে তোলেন। বিদ্যার মতে যৌনতা দৈনন্দিক কাজের মতোই স্বাভাবিক একটি বিষয়। বিশ্বের অন্যতম জনবহুল দেশ ভারতের সংস্কৃতিতে যৌনতা মানেই বিয়ে।

‘দ্য ডার্টি পিকচার’ ছবিতে সিল্কের চরিত্রে অভিনয় করে বিদ্যা প্রশ্ন তুলেছিলেন, ‘সেক্স নিয়ে ছবি হয়। সেই ছবি বেচে রোজগার হয়। লোকে দেখে, অথচ সেক্সকে আপন করতেই যত ভয়...।’

নিজের শরীরকেই এক সময় জীবনের সবচেয়ে বড় সমস্যা মনে করতেন বিদ্যা।

মোটা ছিলেন বলে দীর্ঘ সময় ধরে নিজের শরীরকে ঘৃণা করতেন। তবে এখন আর বিষয়টিকে আমলে নেই না। শরীর নিয়ে কে কি বললো তা থোড়াই কেয়ার করি। কয়েক বছর হলো, নিজের ফিগার নিয়ে ভাবা ছেড়ে দিয়েছি।

এখন আমি নিজের শরীরকে ভালবাসি। তারপর থেকে আই ফিল সেক্সি অল দ্য টাইম’। নারীদেরও বলছি- নিজেদের শরীর ও এর আঁক-বাঁকগুলো নিয়ে বিব্রত না হয়ে বরং এগুলোকে ভালোবাসুন।

ভয়েস টিভি/আইএ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/58291
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ