Printed on Thu Jan 20 2022 11:11:26 AM

বিনা খরচে ও আহতদের পেনশন সুবিধা দিয়ে শ্রমিক নেবে মালয়েশিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রবাসীজাতীয়
বিনা খরচে
বিনা খরচে
জনশক্তি রপ্তানিকারক এজেন্সির সিন্ডিকেশনসহ নানা অনিয়মে বন্ধ ছিলো মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি শ্রমিক নেয়া। তবে সুখবর হলো বিনা খরচে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটি। সপ্তাহ খানেকের মধ্যে এ বিষয়ে সমঝোতা চুক্তি হতে পারে দুই দেশের মধ্যে। তবে এবার ভিসা প্রসেসিংয়ে সকল এজেন্সির সমান সুযোগ চান বায়রা। আর জাতীয় তথ্য ভাণ্ডার করে দালালদের দৌরাত্ম বন্ধের পরামর্শ বিশ্লেষকদের।

দীর্ঘ প্রায় ১০ বছর পর মালয়েশিয়ায় শ্রমিক নেয়া শুরু হয়েছিলো ২০১৬ সালে। তবে মাত্র ১০টি জনশক্তি রপ্তানিকারক এজেন্সি এই ভিসা প্রসেসিং এর সুযোগ পায়। দুই দেশের চুক্তিতে বিমান ভাড়াসহ সব মিলেয়ে খরচ প্রায় দুই হাজার রিংগিত নির্ধারিত থাকলেও এই এজেন্সিগুলো জনপ্রতি আদায় করতো ২০ হাজার রিংগিতেরও বেশি। সীমাহীন এই অনিয়মের কারণে চুক্তির দুই বছরের মাথায় শ্রমিক নেয়া বন্ধ করে দেয় মালয়েশিয়া।

প্রায় তিন বছর বন্ধ থাকার পর আবারো বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মালয়েশিয়া। করোনা পরিস্থিতির উন্নয়ন হলেই কর্মী নেয়া শুরু করবে দেশটি। সমঝোতা চুক্তির খসড়া অনুযায়ী বিনা খরচে ভিসা প্রাপ্তিসহ আহতরা পাবে আজীবন পেনশন। বিষয়টিকে ইতিবাচক হিসাবে দেখছেন খাত সংশ্লিষ্টরা।

একজন বলেন, সরকার যদি ইনিশিয়েসিভ ভালো নেয়, আমাদের মধ্যে যে একটা দলাদলি আছে অর্থাৎ আমি একটা জিনিস পাঁচ টাকায় কিনছি আরেকজন গিয়ে বললো আমি তোমাকে দশ টাকা দিব। এই জিনিসটা যদি না থাকে তাহলে আমি মনে করি অনেক কম খরচে যাত্রীরা যেতে পারবে।

রেকজন বলেন, আমরা তো সবসময় আশাবাদী মালয়েশিয়াতে যখন নতুন দ্বার উন্মোচিত হয় তখন হয়ত ভালো একটা কিছু হবে। পরে সরকারের সঠিক মনিটরিংয়ের জন্য আসলে কোনকিছুই শেষ পর্যন্ত ঠিকভাবে হয় না।
এবার মালয়েশিয়ার ভিসা প্রসেসিংয়ের সুযোগ সকল বৈধ এজেন্সির অংশগ্রহণ চান বায়রা'র সাবেক মহাসচিব শামীম আহমেদ চৌধুরী। তিনি বলেন, এতে প্রতিযোগিতার ভিত্তিতে কম খরচে মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠাতে এজেন্সিগুলো সচেতন থাকবে।

বায়রার সাবেক মহাসচিব শামীম আহমেদ চৌধুরী নোমান বলেন, এ বিষয়ে আমি মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশ সরকারের কাছে সকল সদস্যদের পক্ষ থেকে আমাদের দাবি এই মার্কেট যেনো সব সদস্যদের জন্য উন্মুক্ত থাকে।

শ্রমিকদের বিদেশ যাত্রায় খরচ কমাতে মধ্যস্বত্বভোগী বা দালালদের দৌরাত্ম্য বন্ধের পরামর্শ বিশ্লেষকদের। এ বিষয়ে পিআরআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. আহসান এইচ মনসুর বলেন, এ বিষয়টা যদি বন্ধ করতে হয় তাহলে আমি মনে করি সরকারের সঠিক ডাটাবেজ থাকা উচিত। প্রত্যেকটা কোম্পানিকে এই ডাটাবেজ থেকেই নিতে হবে এবং এবার প্রতারণা ঠেকাতে সরকারের কঠোর নজরদারির দাবি সংশ্লিষ্টদের।

ভয়েসটিভি/এমএম
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/60851
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ