Printed on Sat Dec 04 2021 8:00:30 AM

ভালোবেসে রাজকীয় অধিকার ছাড়লেন রাজকুমারী

নিজস্ব প্রতিবেদক
বিশ্বভিডিও সংবাদ
ভালোবেসে
ভালোবেসে
ভালোবাসার মানুষকে পাওয়ার জন্যে মানুষকে কতোই না ত্যাগ স্বীকার করতে হয়। তবে যুগে যুগে বদলেছে ভালোবাসার নানা সংজ্ঞা ও প্রকৃতি। তাই তো রসাত্মকভাবে অনেকেই বলে অভাব যখন দরজায় এসে দাঁড়ায় ভালোবাসা তখন জানালা দিয়ে পালায়! এ যুগে এসে সত্যিকারের ভালোবাসার জন্যে কতোজনেই বা পেয়েছে বিত্ত বৈভব, বিলাসীতা ত্যাগ করতে? অনেকে না পারলেও পেরেছে এক রাজকুমারী। হ্যাঁ, পৃথিবীর অন্যতম ধনী ও সমৃদ্ধ দেশের রাজকুমারী ভালোবাসার মানুষকে পাওয়ার জন্যে এই সময়ে এসে ছেড়েছেন রাজপ্রসাদ। ভালোবাসার মানুষকে পাওয়ার জন্যে রাজকীয় মর্যাদা ও সকল প্রকার রাজকীয় অধিকার ছাড়তে যাওয়া জাপানী রাজকুমারী মাকোর কথা জানাবো আজ।

মহা ধুমধামে যে রাজকন্যার বিয়ে হওয়ার কথা, সেই রাজকন্যা বিয়ে করলেন একেবারে সাদামাটাভাবে। এ বিয়ের মধ্যদিয়ে অবশেষে জাপানের রাজকুমারীর বিয়ে নিয়ে চলা কয়েক বছরের বিতর্কের অবসান হলো। বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন রাজকুমারী মাকো ও সাধারণ পরিবারে জন্ম নেয়া তার সহপাঠী ও দীর্ঘদিনের বন্ধু কেই কোমুরো।

২৬ অক্টোবর তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়ের সঙ্গে সঙ্গে প্রিন্সেস মাকো বঞ্চিত হলেন রাজকীয় সব অধিকার থেকে। হয়ে গেলেন একজন সাধারণ জাপানী ।

জাপানের আইন অনুসারে রাজপরিবারের কোনো নারী সদস্য যদি বাইরের কোনো সাধারণ পুরুষকে বিয়ে করেন, তবে তাকে রাজকীয় পদমর্যাদা হারাতে হয় এবং রাজপ্রাসাদের সবকিছু থেকে বঞ্চিত হতে হয় ।

জানা গেছে, জাপানে রাজকীয় বিয়ের ক্ষেত্রে যেসব আনুষ্ঠানিকতা অনুসরণ করা হয়, সেগুলোও পরিহার করেছেন মাকো। ঐতিহ্য অনুযায়ী ১৩ লাখ মার্কিন ডলার পাওয়ার কথা রাজকুমারীর। কিন্তু তিনি এই পারিবারিক অর্থ নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। ফলে, জাপানি রাজপরিবারের তিনিই একমাত্র সদস্য, যিনি পদপদবি-অর্থ ত্যাগসহ পুরোপুরি রাজকীয় সম্পর্ক ছিন্ন করলেন।

কয়েক বছর ধরে এই জুটির প্রেম-ভালোবাসা-বিয়ের বিষয়টি জাপানের গণমাধ্যমে ব্যাপক প্রচার পেয়ে আসছে। এ কারণে রাজকুমারী মাকো একধরনের মানসিক বৈকল্যে ভুগছেন।

বিয়ের পর মাকো ও কোমুরো দম্পতি যুক্তরাষ্ট্রে চলে যাবেন বলে জানা গেছে। কোমুরো একজন আইনজীবী। তিনি আইনজীবী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে কাজ করেন।

ভালোবাসার মানুষ কোমুরোকে বিয়ের জন্য রাজকীয় মর্যাদা ছাড়ার ঘোষণা আগেই দিয়েছিলেন মাকো। বহুল আলোচিত এই বিয়ের আগে গত শনিবার মাকো তাঁর ৩০তম জন্মদিন উদ্‌যাপন করেন। রাজকীয় পদবি হারানোর আগে জাপানি রাজকুমারী হিসেবে এটাই ছিল তাঁর শেষ জন্মদিন উদ্‌যাপন।

মাকো ও কোমুরোর প্রথম দেখা ২০১২ সালে। সে সময় তাঁরা টোকিওতে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিশ্চিয়ান ইউনিভার্সিটিতে পড়তেন। একসঙ্গে পড়াশোনার সুবাদে তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ২০১৭ সালে তাঁদের বাগদান হয়। পরে চলতি বছরের ২৬ অক্টোবর মঙ্গলবার তাঁদের বিয়ের তারিখ নির্ধারিত হয়।

ভয়েসটিভি/এএস
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/56890
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ