Printed on Wed Jan 26 2022 10:35:33 PM

ভাষাসৈনিক খান জিয়াউল হকের প্রয়াণ

নিজস্ব প্রতিবেদক
জাতীয়
ভাষাসৈনিক
ভাষাসৈনিক

মাগুরার বরেণ্য শিক্ষাবিদ ও ভাষাসৈনিক খান জিয়াউল হক প্রয়াত হয়েছেন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। ১৪ জানুয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যায় শহরের জামে মসজিদ রোডের নিজ বাসভবন মুসফেকা প্যালেসে মারা যান তিনি।


৯৩ বছর বয়সী এই ভাষাসৈনিক বেশ কিছু দিন ধরে বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি পাঁচ ছেলে, এক মেয়ে এবং অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।


জিয়াউল হকের ছেলে সাংবাদিক মাজহারুল হক লিপু জানান, ১৫ জানুয়ারি শনিবার দুপুর ২টায় শহরের নোমানী ময়দানে জানাজা শেষে ভায়না পৌর কবরস্থানে দাফন করা হয়।


১৯২৮ সালের ৮ জুন মাগুরা শহরের ভায়না গ্রামে জিয়াউল হক জন্মগ্রহণ করেছেন। তৎকালীন মাগুরা এসডিও কোর্টের নাজির আবুল কাশেম খানের ছেলে তিনি।


তার বাবার চাকরিসূত্রে বিভিন্ন জায়গায় শৈশব কেটেছে। পশ্চিমবঙ্গের বনগাঁ থেকে প্রাথমিক পর্যায়ের লেখাপড়া শেষ করে যশোর জেলা স্কুল থেকে মাধ্যমিক, কলকাতা রিপন কলেজে এবং যশোর এমএম কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক ও বিএ পড়েছেন।


এমএম কলেজে পড়াকালে পর্যায়ক্রমে ছাত্র সংসদের জিএস ও প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন জিয়াউল হক। এ সময় ভাষা আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন তিনি।


১৯৫২ সালে যশোর এমএম কলেজে ব্যাপক পুলিশি হামলার পর মাগুরায় চলে আসেন তিনি। ভাষা আন্দোলনের অন্যতম সংগঠকের ভূমিকা পালন করেন তিনি। ২১ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় ছাত্রহত্যার প্রতিবাদে মাগুরায় মিছিল বের হলে মিছিল থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।


জিয়াউল হক শিক্ষাজীবন শেষে কিছুদিন সাংবাদিকতা করেন। পরে মাগুরা মডেল হাইস্কুলে যোগ দিয়ে শিক্ষকতাকে পেশা হিসেবে বেছে নেন। ১৯৬২ সালে মাগুরা এজি একাডেমি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পদে যোগদান করেন। দীর্ঘ ৪৪ বছর দায়িত্ব পালন শেষে সেখান থেকে অবসর নেন।


ভয়েসটিভি/আরকে
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/63316
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ