Printed on Sat May 21 2022 5:42:18 AM

ভাষা আন্দোলনের উপরে এ দেশে মাত্র তিনটি সিনেমা নির্মিত হয়েছে

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদনভিডিও সংবাদ
ভাষা আন্দোলন
ভাষা আন্দোলন
একুশে ফেব্রুয়ারি মহান শহীদ দিবস। ইউনেস্কো দ্বারা স্বীকৃত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।এ দিবসকে নিয়ে রচিত হয়েছে কত সাহিত্য, গান আর নাটক।

তবে ৬ দশক পার হয়ে গেলেও তেমন কোনো উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র এখনও নির্মিত হয়নি। গত ৭০ বছরে ভাষা আন্দোলন নিয়ে নির্মিত হয়েছে মাত্র ৩টি চলচ্চিত্র।

এই চলচ্চিত্রগুলো নিয়েই থাকছে আজকের প্রতিবেদন।

ষাটের দশকে নির্মিত হয়েছে ভাষা আন্দোলনের উপর প্রথম সিনেমা ‘জীবন থেকে নেয়া’। প্রয়াত কিংবদন্তি চলচ্চিত্র নির্মাতা জহির রায়হান সিনেমাটি নির্মাণ করেন।

উনসত্তরের সেই উত্তাল দিনগুলোতে চলা অস্থিরতার মধ্যে এফডিসির ২নং ফ্লোরে ছবিটির শুটিং করছিলেন জহির রায়হান।

পাকিস্তানী শাসকদের বিরুদ্ধে জহির রায়হান ছবি করছেন এমন খবরে আর্মি এসে হাজির শুটিং স্পটে।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পরিচালক জহির রায়হান ও অভিনেতা রাজ্জাককে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়।

এরপর বিভিন্ন সময়ে এ নিয়ে সামরিক সরকারের কাছে জবাবদিহী করতে হয়েছে। হাজিরা দিতে হয়েছে।

এর মধ্যেই চালিয়ে যাচ্ছিলেন সিনেমার কাজ। অবশেষে বাংলাদেশের ভাষা আন্দোলনের উপর নির্মিত হলো প্রথম চলচ্চিত্র।

প্রখ্যাত পরিচালক আমজাদ হোসেনের চিত্রনাট্যে ছবিটির সঙ্গীত পরিচালনা করেছিলেন আরেক প্রখ্যাত অভিনেতা ও সঙ্গীত পরিচালক খান আতাউর রহমান।

ছবিটি একটি পরিবারের গল্প বলে। যে পরিবার একটি দেশের রুপক। সিনেমার পোস্টারেই দেখা যায় এর স্লোগান-‘জীবন থেকে নেয়া, একটি দেশ, একটি সংসার, একটি চাবির গোছা, একটি আন্দোলন।’

ছবিটিতে ব্যবহার হয় রবীন্দ্রনাথের ‘উদয়ের পথে শুনি কার বাণী’ কবিতাটি। এছাড়া রবীন্দ্রনাথের ‘আমার সোনার বাংলা’ গানটি এই ছবিতেই প্রথম ব্যবহার করেন জহির রায়হান।

সেখান থেকেই গানটি জনপ্রিয়তা অর্জন করে। দেশ স্বাধীনের পর এটিই হয় আমাদের জাতীয় সঙ্গীত।

একটি পরিবারের সাংস্কৃতিক জাগরণ ও একটি বোবা মেয়ের কথা বলার চেষ্টা-একে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে শহিদুল ইসলাম খোকনের সিনেমা ‘বাঙলা’।

বোবা মেয়েটি পরিবারের অন্য সদস্যদের মত কথা বলতে চায়। গান গাইতে চায়। কিন্তু কথা বলতে পারেনা মেয়েটি।

এরপরও তার চেষ্টা অব্যাহত থাকে। একসময় একটি ভাষার মিছিল যায়। ছবিটি শেষ হয় ভাষার মিছিলের সঙ্গে একাত্ন হয়ে বোবা মেয়েটির কথা বলার চেষ্টার মধ্য দিয়ে।

যেখানে সে কথা বলতে পারে। আর প্রথম যে শব্দটি সে উচ্চারণ করে সেটি হচ্ছে বাঙলা। ছবিটিতে বোবা মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেন শাবনুর। এতে আরও অভিনয় করেন মাহফুজ আহমেদ, হুমায়ূন ফরিদীসহ অনেকে।

২০১৯ সালে ভাষা আন্দোলনের দিনে মুক্তি পায় তৌকির আহমেদ নির্মিত সিনেমা ‘ফাগুন হাওয়ায়’। ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজনায় টিটো রহমানের ‘বউ কথা কও’ গল্পের অনুপ্রেরণায় সিনেমাটি নির্মিত হয়।

একটি মফস্বল অঞ্চলে পাকিস্তানী এক পুলিশ অফিসার সেই গ্রামের একে বউ কথা কও পাখিকে উর্দু শিখাতে চেষ্টা করে। সেখানে গ্রামের অন্যদেরও উর্দু শেখানোর ব্যবস্থা করে সে।

সেখানে গ্রামের লোকজনও সেই পুলিশ অফিসারের বিরুদ্ধে একসময় একতাবদ্ধ হয়। ছবিটিতে কেন্দ্রীয় দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন সিয়াম ও তিশা।

চলচ্চিত্রটির পাকিস্তানী পুলিশ অফিসারের চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলিউডের শক্তিমান অভিনেতা যশপাল শর্মা।
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/67562
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ