Printed on Wed Jan 19 2022 2:02:25 AM

মারিয়ানা খাতের কাছে মাউন্ট এভারেস্টও শিশু

তানজিলা বাবলী
ভিডিও সংবাদ
মারিয়ানা
মারিয়ানা
গভীর সমুদ্র মানেই এক গভীর রহস্য। আর এর মাত্রা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পেয়েছে যখন গভীর সমুদ্রের নতুন নতুন খাঁদগুলি আবিষ্কার হয়েছে। এই অঞ্চলগুলিকে গভীর সমুদ্র পরিখা বলা হয়। সমুদ্রের সবচেয়ে বেশি গভীরতা পরিমাপ করা হয় মারিয়ানা ট্রেঞ্চের চ্যালেঞ্জার ডিপ নামক স্থানে।

মারিয়ানা ট্র্যাঞ্চটির নামকরণ করা হয়েছিল মারিয়ানা দ্বীপপুঞ্জের নামে। গভীর অন্ধকার সবসময়ের জন্য রহস্যময় এ উপত্যকা আমাদের গ্রহের ভূত্বকের ১১,০০০ মিটার পর্যন্ত গভীরে গিয়ে ঠেকেছে।

মহাসাগরীয় ট্রেন্সগুলো সাধারণত সমুদ্রের তলদেশের টপোগ্রাফিক নিম্নচাপ অপেক্ষাকৃত সংকীর্ণ তবে খুব দীর্ঘ হয়ে থাকে।১৮৭৭ সালে খাঁদটিতে যখন প্রথম অনুসন্ধান চালানো হয় তখন এক ধরনের দড়ি ব্যাবহার করে এর গভীরতা নির্ণয় করা হয় ৮,১৮৪ মিটার।

পরবর্তীতে ১৯৫৭ সালে ১১ হাজার ৩৪ মিটার গভীরতার কথা জানা গিয়েছিল। ১৯৬২ সালে জাহাজ এম.ভি. স্পেনসর এফ বেয়ার্ড নির্ভুলতা গভীরতার গেজ ব্যবহার করে সর্বোচ্চ ১০,৯১৫ মিটার গভীরতা রেকর্ড করে।

ট্রেন্সগুলো প্রতিবছরই কয়েক মিলিমিটার থেকে দশ সেন্টিমিটারেরও বেশি পর্যন্ত পরিবর্তিত হয়ে থাকে। সাধারণত আটলান্টিক এবং ভূমধ্যসাগরের বিভিন্ন অঞ্চল গুলিতে প্রায় ৫০ টিরও বেশি গভীর খাঁদ রয়েছে এবং যা গভীর সমুদ্রের ১.৯ মিলিয়ন কিলোমিটার অঞ্চল জুড়ে বিদ্যমান।

১৯ শতাব্দীর শেষের দিকে এবং ২০ শতকের গোড়ার দিকে যখন মহাদেশগুলির সমুদ্রতলে ট্রান্স্যাটল্যান্টিক টেলিগ্রাফ কেবলগুলি প্রথম স্থাপন করা হয়েছিল।এসব অঞ্চলে অনেক বেশি আগ্নেয়গিরি এবং পর্বতশৃঙ্গ রয়েছে। এগুলি মূলত টেকটোনিক প্লেট এবং এর গতির ফলস্বরূপ গঠিত হয়েছে।

১৭০ মিলিয়ন বছর আগে এটি ছোট্ট একটি ট্রেন্স এর উপর দিয়ে স্লাইড হয়ে যাওয়ার সময় ডুবে এবং গলে যায়। ডুবে এবং গলে যাওয়ার এই সমন্বয়টি মারিয়ানা ট্রেঞ্চকে তৈরি করেছিল।

পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরের মারিয়ানা দ্বীপপুঞ্জের প্রায় ২০০ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত এবং এটি বিশ্বের গভীরতম খাঁদ। ট্রেঞ্চটির দৈর্ঘ্য পৃথিবীর ভূত্বকের প্রায় ২,৫৫০ কি.মি এবং প্রশস্ত ৬৯ কি.মি। এটি একটি অর্ধচন্দ্রাকৃতির আকারের খাঁদ।

চ্যালেঞ্জার ডিপ নামে পরিচিত মারিয়ানা ট্রেঞ্চের মেঝেতে একটি ছোট স্লট-আকৃতির উপত্যকা রয়েছে যার দক্ষিণ প্রান্তের সর্বাধিক গভীরতা ১০,৯৯৪ মিটার। কোন কোন ক্ষেত্রে কিছু ভিন্ন পরিমাপ পরিলক্ষিত হয় যা ১১ হাজার ৩৪ মিটার।

চ্যালেঞ্জার ডিপে জলের চাপ প্রতি বর্গ ইঞ্চিতে ৮ টন। যেখানে ১ ফুট গভীরতায় পানির চাপ প্রতি বর্গ ইঞ্চিতে ১৫ পাউন্ডের একটু বেশি। এতো গভীরতায় পানির চাপ তাত্ক্ষণিকভাবে এতোটাই বেশি যে একজন ব্যক্তিকে খুব সহজেই হত্যা করতে পারে।

ভয়েসটিভি/এমএম
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/61384
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ