Printed on Mon Oct 18 2021 3:57:48 PM

যেসব নির্দেশনা মানতে হবে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
শিক্ষাঙ্গনজাতীয়
নির্দেশনা
নির্দেশনা
করোনাভাইরাসে সৃষ্ট পরিস্থিততে গতবারের মতো 'অটোপাশ' থাকছে না এবার। তবে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে নভেম্বরে শুরু হচ্ছে এসএসসি পরীক্ষা। ইতোমধ্যে পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করা হয়েছে।

আগামী ১৪ নভেম্বর থেকে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত নেয়া হবে এই পরীক্ষা। তবে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি বিবেচনায় পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ ১৩ দফা নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে।

২৭ সেপ্টেম্বর সোমবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের পর আন্তঃশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক উপকমিটি এসএসসি পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করেছে। সেই রুটিনের সঙ্গেই এসেছে ১৩ দফা নির্দেশনা।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ পরিস্থিতি বিবেচনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে শিক্ষার্থীদের। পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষাকেন্দ্রে গিয়ে আসন নিতে হবে। আর দেড় ঘণ্টার পরীক্ষায় বহুনির্বচনি (এমসিকিউ) ও সৃজনশীল অংশের মধ্যে কোনো বিরতি থাকবে না। আর পরীক্ষার্থীদের নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান প্রধানের কাছ থেকে পরীক্ষার শুরুর কমপক্ষে তিন দিন আগে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে বলা হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সকাল ১০টায় অনুষ্ঠেয় পরীক্ষার ক্ষেত্রে সকাল সাড়ে ৯টায় উত্তরপত্র ও বহুনির্বাচনি ওএমআর শিট বিতরণ করা হবে। সকাল ১০টায় বিতরণ করা হবে বহুনির্বাচনি প্রশ্নপত্র। সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে বহুনির্বাচনি উত্তরপত্র (ওএমআর শিট) সংগ্রহ করে সৃজনশীল অংশের প্রশ্নপত্র বিতরণ করা হবে।

অন্যদিকে দুপুর ২টায় অনুষ্ঠেয় পরীক্ষার ক্ষেত্রে দুপুর দেড়টায় উত্তরপত্র ও বহুনির্বাচনি ওএমআর শিট বিতরণ করা হবে। দুপুর ২টায় বিতরণ করা হবে বহুনির্বাচনি প্রশ্নপত্র। দুপুর ২টা ১৫ মিনিটে বহুনির্বাচনি উত্তরপত্র (ওএমআর শিট) সংগ্রহ করে সৃজনশীল অংশের প্রশ্নপত্র বিতরণ করা হবে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, পরীক্ষার্থীরা নিজ নিজ উত্তরপত্রে ওএমআর ফরমে তার পরীক্ষার রোল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন নম্বর, বিষয় কোড ইত্যাদি যথাযথভাবে লিখে বৃত্ত ভরাট করবে। কোনো অবস্থাতেই উত্তরপত্র ভাঁজ করা যাবে না। পরীক্ষার্থীকে সৃজনশীল/ রচনামূলক (তত্ত্বীয়), বহুনির্বাচনি ও ব্যবহারিক খাতার নম্বরের অংশে আলাদা আলাদাভাবে পাস করতে হবে। এ ক্ষেত্রেরা পরীক্ষার্থীরা রেজিস্ট্রেশন ও প্রবেশপত্রে উল্লেখ করা বিষয়েই কেবল অংশ নিতে পারবে।

শিক্ষা বোর্ড বলছে, কোনো পরীক্ষার পরীক্ষা নিজ বিদ্যালয় বা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হবে না। পরীক্ষায় সাধারণ সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহারের সুযোগ থাকলেও প্রোগ্রামিং ক্যালকুলেটর ব্যবহারের সুযোগ থাকবে না। পরীক্ষার্থী বা অন্য কোনো ব্যক্তির জন্য পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল ফোন বহন ও ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কেবল কেন্দ্র সচিব ফিচার ফোন ব্যবহার করতে পারবেন।

নির্দেশনায় শিক্ষা বোর্ড আরও বলছে, সৃজনশীল/ রচনামূলক (তত্ত্বীয়) ও বহুনির্বাচনি পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীর উপস্থিতির জন্য একই উপস্থিতিপত্র ব্যবহার করতে হবে। পরীক্ষার ফলপ্রকাশের সাত দিনের মধ্যে পুনঃনিরীক্ষার জন্য অনলাইনে এসএমএসের মাধ্যমে আবেদন করা যাবে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে দেয়া নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ২০১৭-১৮, ২০১৮-১৯, ২০১৯-২০ ও ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে শারীরিক শিক্ষা, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান ও খেলাধুলা এবং ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়ে এনসিটিবি’র নির্দেশনা অনুযায়ী ধারাবাহিক মূল্যায়নের মাধ্যমে প্রাপ্ত নম্বর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রকে সরবরাহ করবে। প্রতিষ্ঠান নিজ নিজ পরীক্ষার্থীর ব্যবহারিক খাতার (নোটবুক) নম্বর দিয়ে নম্বরগুলো ২৮ নভেম্বরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রকে সরবরাহ করবে। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র ব্যবহারিক খাতার নম্বরের সঙ্গে ধারাবাহিক মূল্যায়নে প্রাপ্ত নম্বর বোর্ডের ওয়েবসাইটে অনলাইনে পাঠাবে।

এদিকে, এসএসসি পরীক্ষার রুটিন অনুযায়ী প্রথম দিন ১৪ নভেম্বর সকালে পদার্থবিজ্ঞান (তত্ত্বীয়), ১৫ নভেম্বর বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা সকালে এবং হিসাববিজ্ঞান বিকেলে অনুষ্ঠিত হবে। ১৬ নভেম্বর (তত্ত্বীয়) রসায়ন, ১৮ নভেম্বর শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া (তত্ত্বীয়) অনুষ্ঠিত হবে। ২১ নভেম্বর সকালে ভূগোল ও পরিবেশ এবং বিকেলে ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ২২ নভেম্বর উচ্চতর গণিত ও জীববিজ্ঞান সকালে অনুষ্ঠিত হবে। ২৩ নভেম্বর পৌরনীতি ও নাগরিকতা বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে সকালে আর বিকেলে ব্যবসায় উদ্যোগ বিষয়ের পরীক্ষা হবে।

ভয়েস টিভি/এসএফ
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/54432
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ