Printed on Thu Dec 09 2021 1:41:27 AM

টানা বৃষ্টিতে রাজধানীতে দুর্ভোগ, ১৭ নদীর পানি বিপৎসীমার ওপরে

নিজস্ব প্রতিবেদক
ভিডিও সংবাদ
দুর্ভোগ
দুর্ভোগ
রাজধানীতে টানা তৃতীয় দিনের মতো বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় বিভিন্ন সড়কে পানি জমে সৃষ্টি হয়েছে দুর্ভোগ। অবিরাম বৃষ্টির কারণে আগের দু’দিনের মতো ২২ জুলাই বুধবার রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা। এতে বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে অফিসগামী কর্মজীবী ও নিম্ন আয়ের মানুষ। ঈদকে ঘিরে ব্যবসা-বাণিজ্যও স্থবির হয়ে পড়েছে। দেশের ১৭ নদীর ২৮ পয়েন্টে পানি এখন বিপৎসীমার ওপরে বাইছে। বন্যায় আক্রান্ত ২০ জেলার প্রায় সোয়া ৬ লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

দেখা যায়, বৃষ্টির কারণে রাজধানীর প্রায় সব এলাকাতেই সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা। অলিগলি পেরিয়ে তলিয়ে গেছে প্রধান সড়কও। অনেক স্থানে হাঁটু সমান পানি ডিঙিয়ে নগরবাসীকে গন্তব্যে যেতে হচ্ছে। পানি জমেছে ঘরবাড়ি ও দোকানপাটে।

এদিকে দেশের ১৭ নদীর ২৮ পয়েন্টে পানি এখন বিপৎসীমার ওপরে। ২০ জেলা এখন পর্যন্ত বন্যা আক্রান্ত। এসব জেলার প্রায় সোয়া ৬ লাখ মানুষ এখন পানিবন্দি। পানিতে ডুবে মারা গেছে ২২ জন। প্রথম পর্যায়ের বন্যায় প্রায় ৩৪৯ কোটি টাকার ফসলের ক্ষতি হয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, গত কয়েক দিনের মতো আগামী ২৪ থেকে ৭২ ঘণ্টায় দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। বৃষ্টির ফলে ব্রহ্মপুত্র, যমুনা, উত্তরাঞ্চলের ধরলা ও তিস্তা এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা ও পার্বত্য এলাকার অববাহিকার প্রধান নদ-নদীগুলোর পানি দ্রুত বাড়তে পারে। এতে নতুন করে বন্যা পরিস্থিতির অবনতিসহ নতুন বেশ কিছু এলাকা প্লাবিত হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে আবহাওয়া ও বন্যা পূর্বাভাস কেন্দ্র সংশ্লিষ্টরা।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর ও ভারতের আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, আগামী ২৪ থেকে ৭২ ঘণ্টায় দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল এবং এর আশপাশের ভারতের হিমালয় পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ, আসাম ও মেঘালয় প্রদেশে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস আছে। এই সময়ে ব্রহ্মপুত্র, যমুনা ও উত্তরাঞ্চলের ধরলা ও তিস্তা এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদ-নদীগুলো এবং দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের পাহাড়ি অববাহিকার নদ-নদীগুলোর পানি দ্রুত বাড়তে পারে।

এদিকে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলার বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে। কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া, জামালপুর, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল ,নাটোর, মুন্সীগঞ্জ, ফরিদপুর, মাদারীপুর, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর ও ঢাকা জেলার নিম্নাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকতে পারে। এছাড়া আগামী ২৪ ঘণ্টায় ঢাকার জেলার আশপাশের নদীগুলোর পানি বাড়তে পারে।

প্রথম পর্যায়ে ২৫ জুন থেকে ৯ জুলাই পর্যন্ত বন্যায় রংপুর, গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, সিলেট, সুনামগঞ্জ, জামালপুর, নেত্রকোনা, রাজশাহী, মানিকগঞ্জ, ফরিদপুর, টাঙ্গাইল জেলাসহ ১৪ জেলা এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে ১১ জুলাই থেকে ১৯ জুলাই পর্যন্ত মানিকগঞ্জ, বগুড়া, টাঙ্গাইল, নাটোর, নওগাঁ, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, কিশোরগঞ্জ, নেত্রকোনা, জামালপুর, রাজশাহী, দিনাজপুর, ফরিদপুর, মাদারীপুর, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর, ময়মনসিংহ, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, শেরপুরসহ ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ মোট ২৬ জেলায় ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে।



ভয়েসটিভি/নিজস্ব প্রতিবেদক/এএস
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/8617
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2021 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ