Printed on Wed May 25 2022 6:43:59 PM

শেন ওয়ার্নের বর্নাঢ্য ক্যারিয়ার

স্পোর্টস ডেস্ক
খেলার খবরভিডিও সংবাদ
শেন ওয়ার্নের
শেন ওয়ার্নের
শেন কেইথ ওয়ার্ন ১৯৬৯ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর ভিক্টোরিয়ার ফার্নট্রি গুল্লিতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন একজন অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার। এক দিবসীয় আন্তর্জাতিক ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলের নেতৃত্বও দিয়েছেন। তাকে ক্রিকেট ইতিহাসের সর্বকালের অন্যতম সেরা বোলার বিবেচনা করা হয়।

১৯৯২ সালে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক হওয়ার পর নিজের ক্যারিয়ারে গড়েছেন একের পর এক রেকর্ড। ওয়ার্ন ১৯৯৪ সালে উইজডেন ক্রিকেটার্স অ্যালম্যানাক-এ বর্ষসেরা উইজডেন ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছিলেন।

ওয়ার্ন মূলত লেগ স্পিনার ছিলেন, সাথে লোয়ার অর্ডারে কার্যকরী ব্যাটিংটাও করতেন। ২০১৩ সালে ওয়ার্নকে আইসিসি ক্রিকেট হল অফ ফেমে অন্তর্ভুক্ত করে। ওয়ার্নের হেটেরোক্রোমিয়া ছিল, যার ফলস্বরূপ তার একটি চোখ নীল এবং অন্যটি সবুজ।

১৯৯২ সালে ভারতের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার অভিষেক হয়। ১৪৫ টি টেস্ট ম্যাচের ২৭৩ টি ইনিংসে তিনি ৭০৮টি উইকেট নিয়েছেন। এছাড়াও লোয়ার অর্ডারে ১৯৯ ইনিংসে ব্যাট করে তুলেছেন ১২ টি হাফ সেঞ্চুরি। তার ইনিংস সেরা বোলিং ফিগার ছিলো ৮/৭১।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিনি টেস্ট ক্যারিয়ারে সর্বোচ্চ ৯৯ রান করেন। ২০০৭ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিনি শেষ টেস্ট ম্যাচ খেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন। ‪‎মুরালিধরন‬ ওর্য়ানকে টপকাবার আগ পর্যন্ত তিনিই ছিলেন টেস্ট ইতিহাসের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি।

১৯৯৩ সালে মাইক গ্যাটিংকে আউট করা তার বলটিকে গত শতাব্দীর সেরা বল বলা হয়। ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ২৯৩ টি উইকেট নেন ওয়ার্ন। তার অসাধারণ পারফরমেন্সে অস্ট্রেলিয়া ১৯৯৯ সালে ক্রিকেট বিশ্বকাপ জিতে, যেখানে তিনি সেমিফাইনাল ও ফাইনালের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। ১৯৯৬ সালে বিশ্বকাপের রানার্সআপ দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি।

২০০৩ সালের বিশ্বকাপের আগে তার ক্রিকেট খেলার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়। বিশ্বকাপের আগে তার ডোপ টেস্টে ফলাফল পজিটিভ আসে, ২০০৪ সালে তিনি ক্রিকেটে ফেরেন, অস্ট্রেলিয়ার হয়ে আর ওয়ানডে না খেললেও টেস্ট খেলে যান ২০০৭ সাল পর্যন্ত।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের পর ওয়ার্ন আইপিএল ও বিগ ব্যাশে টি ২০ লীগ খেলতে থাকেন, তার নেতৃত্বেই রাজস্থান রয়েলস প্থ্ ম আইপিএলে চ্যাম্পিয়ন হয়, যেখানে তার অধিনায়কত্ব প্রশংসিত হয়েছিল। বিগ ব্যাশে তিনি মেলবোর্ন স্টার্সের অধিনায়ক ছিলেন। ২০১৩ সালে শেষবার বিগ ব্যাশ খেলে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর শেইন।

মুত্তিয়া মুরালিধরন এবং রিচার্ড হ্যাডলির পর আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তিনি তৃতীয় সর্বোচ্চ পাঁচ উইকেট শিকারী। তিনি ৩৭টি টেস্ট ফাইফার এবং একটি ওয়ানডে ফাইফারের সাথে ১০টি টেস্ট দশ উইকেট শিকার করেছেন।

২০০০ সালে শতাব্দীর সেরা অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ড দলে তাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ২০০৭ সালে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড ওয়ার্ন ও মুত্তিয়া মুরালিধরনের সম্মানে অস্ট্রেলিয়া- শ্রীলঙ্কা টেস্ট ক্রিকেট সিরিজের নাম ওয়ার্ন-মুরালিধরন ট্রফি রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। ২০০৭ সালে এই মাঠে ওয়ার্ন ক্রিকেট থেকে অবসর নেন।

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ২০২২-এ ৪ মার্চ থাইল্যান্ডে মৃত্যুবরণ করেন এই লিজেন্ডারি ক্রিকেটার।

/এএস
যোগাযোগঃ
ভয়েস টিভি ৮০/৩, ভিআইপি রোড, খান টাওয়ার, কাকরাইল,
ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
ফোনঃ +৮৮ ০২ ৯৩৩৮৫৩০
https://bn.voicetv.tv/news/69085
© স্বত্ব ভয়েস টিভি 2022 — ভয়েস টিভি
শাপলা মিডিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান
সর্বশেষ সংবাদ